চট্টগ্রাম, , শনিবার, ১৮ আগস্ট ২০১৮

রাউজানে এক নারীর দুই প্রেমিক, প্রেমিকাকে এককভাবে পেতে যুবককে খুন!

প্রকাশ: ২০১৮-০১-২৮ ২২:৫৫:১৬ || আপডেট: ২০১৮-০১-২৯ ১০:৪৮:২৭

মো. হাবিবুর রহমান
রাউজান প্রতিনিধি

এক নারীর দুই প্রেমিক, প্রেমিকাকে এককভাবে পেতে যুবককে খুন করা হয়েছে। এমনি ঘটেছে চট্টগ্রামের রাউজান উপজেলায়। সূত্র মতে, সুমি আকতার নামের এক গার্মেন্টস কর্মীর দুই প্রেমিকের মধ্যে একজন খুনের শিকার নেছার উদ্দিন (২১), অন্যজন খুনি ইকবাল (২০)।

জানা গেছে, সুমি আকতার নামের ওই গার্মেন্টস কর্মীর সঙ্গে ইকবালের প্রেমের সম্পর্ক ছিল। পরে সুমি আকতার নেছার উদ্দিনের প্রেমে পড়ে। এটি সহ্য করতে না পেরে নেছার উদ্দিনকে হত্যা করে ইকবাল।

সূত্র মতে, শনিবার দুপুরে রাউজান উপজেলার কলমপতি এলাকার কর্ণফুলি ফার্ম থেকে নেছার উদ্দিন (২১) নামের যুবকের অর্ধগলিত লাশ উদ্ধার করা হয়। নিহত নেছার চট্টগ্রাম জেলার বাঁশখালি উপজেলার বাসিন্দা মুক্তার আহমেদের পুত্র। সে নগরীর পতেঙ্গা কাঠঘর এলাকার স্টুডিও দোকানে কর্মরত ছিল। খুনি ইকবাল (২০) কে রাঙামাটি জেলার মাইনি থেকে আটক করেছে পুলিশ। আটককৃত ইকবাল রাউজান উপজেলার ডাবুয়া ইউনিয়নের হিংগলা সুন্দও পাড়া এলাকার মৃত আলাউদ্দিনের পুত্র।

গত শনিবার নেছার উদ্দিনের লাশ উদ্বারের পর রাউজান থানা পুলিশ খুনি ইকবালের ফুফাতে ভাই রাউজান ফকির হাটের অনামিকা স্টোরের কর্মচারী আজিজকে আটকের পর জিজ্ঞাসাবাদের পর ইকবালের অবস্থান জানা যায়। পরে পুলিশ গিয়ে তাকে আটক করে। আটককৃত ইকবাল পুলিশের কাছে স্বীকার করেছে নেছার উদ্দিন (২১) কে ফুসলিয়ে রাউজানে এনে ছুরিকাঘাত করে হত্যা করে রাউজান উপজেলার কলমপতি এলাকার কর্ণফুলি ফার্মে ফেলে পালিয়ে যায়।

প্রসঙ্গত, গত ১৬ জানুয়ারি বাঁশখালি উপজেলার বাসিন্দা ও নগরীর পতেঙ্গা কাঠঘর এলাকার স্টুডিও দোকান কর্মচারী নিখোঁজ হয়। পতেঙ্গা থানায় নিখোঁজ ডায়রী করে তার পরিবার।
এ প্রসঙ্গে রাউজান থানার সেকেন্ড অফিসার নুর নবী রবিবার দুপুর সাড়ে ৩টায় বলেন, ‘নিহতের পরিবার মামলার প্রস্তুতি নিচ্ছে বলে জানতে পেরেছি। এখনো পর্যন্ত রাউজান থানায় কেউ মামলা করেনি।’