চট্টগ্রাম, , সোমবার, ১০ ডিসেম্বর ২০১৮

চট্টগ্রাম টেস্ট থেকে ছিটকে গেলেন সাকিব

প্রকাশ: ২০১৮-০১-২৭ ২০:১৫:২৭ || আপডেট: ২০১৮-০১-২৭ ২০:১৫:২৭

প্রায় ৭ বছর পর বাংলাদেশ দলের টেস্ট সংস্করণের নেতৃত্ব ফিরে পেয়েছেন সাকিব আল হাসান। কিন্তু ইনজুরি বড় বেরসিক। নতুন অধ্যায়টা শুরু করতে দিচ্ছে না সময় মতো। লঙ্কানদের বিপক্ষে অধিনায়ক হিসেবে নতুন যাত্রার শুরুটা কিছুটা হলেও বিলম্বিত হচ্ছে তাই। শনিবার ত্রিদেশীয় ফাইনালের মাঝপথে পাওয়া ইনজুরির কারণে ৩১ তারিখ শুরু প্রথম টেস্ট থেকে ছিটকে গেছেন বিশ্বসেরা এ অল রাউন্ডার। এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে শনিবার বিষয়টি নিশ্চিত করেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। তবে সাকিবের পরিবর্তে চট্টগ্রাম টেস্টের জন্য এখনও কাউকে দলে নেওয়া হয়নি।

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ফাইনাল ম্যাচে লঙ্কান ইনিংসের ৪২তম ওভারে দুর্ঘটনাটি ঘটে সাকিবের। এক্সট্রা কাভারে ফিল্ডিং করছিলেন তিনি। বলটা ধরতে পারলে হয়তো রান আউটের সম্ভাবনা থাকতো। শতভাগ নিশ্চিত নয়। তবে শরীর ভাসিয়ে ঝাঁপিয়ে পড়ে সেটা ধরতে গিয়েই কাল হলো তার। ভারসাম্য হারিয়ে পড়ে গেলেন। ভারসাম্যের জন্য দু হাত বাড়িয়েছিলেন সামনে। তখন মাটিতে বাঁহাত পড়ে বেকায়দায়। কড়ে আঙুলে আঘাত পান খুব। যন্ত্রণায় সাকিব মাঠেই পড়ে রইলেন অনেকটা সময়। মাথা তুললেন বটে। কিন্তু এর খানিক পর মাটি থেকে উঠে সোজা বের হয়ে যেতে হলো মাঠের বাইরে। ড্রেসিংরুম থেকে সোজা হাসপাতালে এরপর।

তবে মন্দের ভালো এই যে আঙুলে কোন চিড় ধরা পরেনি। তবে সেলাই দিতে হয়েছে। রাজধানীর অ্যাপোলো হাসপাতালে এক্স-রে রিপোর্ট হাতে পেয়ে বিসিবির প্রধান চিকিৎসক জানালেন, ‘এক্স-রেতে কোন চিড় খুঁজে পাওয়া যায়নি। বাঁহাতের কনিষ্ঠ আঙুল মচকে গিয়েছে। বিশেষজ্ঞ ডাক্তার প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিয়েছেন। আঙ্গুলের অবস্থার উন্নতি হতে কমপক্ষে এক সপ্তাহ সময় লাগবে। তাই চট্টগ্রামে প্রথম টেস্টে সে খেলতে পারছে না।’

এদিন ৫ ওভার বল করেছিলেন সাকিব। ২০ রানের খরচায় উইকেটশূন্য ছিলেন তিনি। তবে তাকে ছাড়া বোলাররা ভালোই করেছে। ২২১ রানে বেঁধে ফেলেছে শ্রীলঙ্কাকে। কিন্তু ব্যাটিং ব্যর্থতায় শেষে ত্রিদেশীয় সিরিজের ফাইনালে ৭৯ রানে হেরে আরো একবার হৃদয় ভেঙেছে টাইগারদের।