চট্টগ্রাম, , শনিবার, ১৮ আগস্ট ২০১৮

সীতাকুণ্ডে পুলিশের গুলিতে নিহতের ঘটনায় তদন্ত কমিটি, এসআইসহ তিনজন প্রত্যাহার

প্রকাশ: ২০১৮-০১-২৫ ১৫:২৫:১৬ || আপডেট: ২০১৮-০১-২৬ ১০:৫৫:৩২

সীতাকুণ্ডের ভাটিয়ারীতে পুলিশের গুলিতে সাইফুল ইসলাম নামে এক যুবক নিহত আরো দুই জন গুলিবিদ্ধ হওয়ার ঘটনায়  এক সাব ইন্সপেক্টরসহ (এসআই)সহ ৩ জনকে প্রত্যাহার করা হয়েছে। প্রত্যাহার করা তিনজন হচ্ছে সীতাকুণ্ড থানার এসআই নাজমুল হুদা, কনষ্টেবল আবুল কালাম, আনসার সদস্য ইসমাইল হোসেন।

জেলা পুলিশ সুপার নুরে আলম মিনা দুপুরে এ তথ্য নিশ্চিত করেন। এ ঘটনার তদন্তে তিন সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।

 

উল্লেখ, বুধবার দিবাগ রাতের সীতাকুণ্ডের ভাটিয়ারীতে পুলিশের গুলিতে সাইফুল ইসলাম নামে এক যুবক নিহত হয়েছেন; এ ঘটনায় গুলিবিদ্ধ হয়েছেন আরো দুই জন। নিহত সাইফুল ইসলাম (২২) ভাটিয়ারী ইউনিয়নের তেলিপাড়ার শামশুল আলমের ছেলে। গুলিবিদ্ধ অপর দু’জন হলেন- একই এলাকার বাসিন্দা ইমরান আলী জয় (১৮) ও কবির আহমেদ ওরফে ভোলা ড্রাইভার (৫৫)।

জানা যায়, বুধবার রাত আনুমানিক সাড়ে ৯টায় সীতাকুণ্ড মডেল থানা পুলিশের একটি টিম মাইক্রোবাস নিয়ে সাদা পোশাকে ভাটিয়ারী ইউনিয়নের তেলিপাড়া এলাকায় গিয়ে কয়েক ব্যক্তিকে তাস খেলতে দেখে টেনে তাদের গাড়িতে তুললে এলাকাবাসী বাধা দেয়। এক পর্যায় পুলিশের সঙ্গে গ্রামবাসীর সংঘর্ষ শুরু হয়। এতে তিনজন গুলিবিদ্ধ হলে এলাকাবাসী ক্ষিপ্ত হয়ে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে ব্যারিকেড দিয়ে যানবাহন ভাঙচুর করে। এদিকে গুলিবিদ্ধ তিনজনকে হাসপাতালে নেয়া হলে সেখানে সাইফুল ইসলাম মারা যান।

বারআউলিয়া হাইওয়ে থানার ওসি আহসান হাবিব বলেন, গোলাগুলির ঘটনার পর এলাকাবাসী ভাটিয়ারী দক্ষিণ বাজার এলাকায় ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে ব্যারিকেড দিয়ে যান চলাচল বন্ধ করে দেয়। এরপর স্থানীয় চেয়ারম্যানের সহযোগিতায় আধা ঘণ্টা পর ১০টার দিকে ব্যারিকেড তুলে যান চলাচল স্বাভাবিক করে পুলিশ।