চট্টগ্রাম, , বৃহস্পতিবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮

সংবিধানের ষোড়শ সংশোধনী রায়ের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রপক্ষের রিভিউ আবেদন

প্রকাশ: ২০১৭-১২-২৪ ১১:০৬:৫২ || আপডেট: ২০১৭-১২-২৪ ১১:০৬:৫২

বিচারপতি অপসারণ সংক্রান্ত সংবিধানের ষোড়শ সংশোধনী বাতিল করে দেওয়া রায়ের বিরুদ্ধে আজ রবিবার সুপ্রিম কোর্টের রিভিউ আবেদন করেছে রাষ্ট্রপক্ষ।

এর আগে গত ২০ ডিসেম্বর এটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম গণমাধ্যমকে জানিয়ে ছিলেন, ষোড়শ সংশোধনীর রায় রিভিউ চেয়ে আগামী সপ্তাহে রাষ্ট্রপক্ষের আবেদন করা হবে।

তিনি জানিয়ে ছিলেন, বিচারপতি অপসারণ সংক্রান্ত সংবিধানের ষোড়শ সংশোধনী বাতিল করে দেওয়া রায়ের বিরুদ্ধে আগামী সপ্তাহের শুরুতেই রিভিউ আবেদন করবে রাষ্ট্রপক্ষ।

এ ব্যাপারে গত ১৮ ডিসেম্বর সোমবার এটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলমের নেতৃত্বে বিশেষ কমিটি বসে রিভিউ আবেদন করার বিষয়টি চূড়ান্ত করেন বলে জানা গেছে। ওই বৈঠকে অতিরিক্ত এটর্নি জেনারেল মুরাদ রেজাসহ অন্য সরকারি আইনজীবীরা উপস্থিত ছিলেন।

সবকিছু ঠিক থাকলে ২৪ ডিসেম্বরের মধ্যে সুপ্রিম কোর্টের সংশ্লিষ্ট শাখায় দাখিল করা হবে। এটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম বলেছিলেন, আগামী সপ্তাহে সবাইকে জানিয়ে তারা এই রিভিউ আবেদন করবেন। তবে এ মাসেই হবে এ কথা আগেই জানিয়েছিলেন তিনি।

রায়ের সত্যায়ায়িত কপি পাওয়ার আগেই সুপ্রিম কোর্টের ওয়েভ থেকে রায় কপি করে বিশেষ কমিটি প্রতিদিন সন্ধ্যায় আলোচনা করেছেন। এতে বেশ কয়েকটি গ্রাউন্ড তারা চূড়ান্ত করেছেন যা রিভিউ আবেদনের শুনানিতে তুলে ধরা হয়।

এর মধ্যে বিচারকদের অপসারণে তদন্ত করার জন্য আইন করবার আগেই ষোড়শ সংশোধনী বাতিল করে দেওয়া, সামরিক সরকারের সময়ে করা সুপ্রিম জুডিশিয়াল কাউন্সিল ফিরে আসা, জাতীয় সংসদ সদস্যদের নিয়ে মন্তব্যসহ বিভিন্ন গ্রাউন্ড আছে।

এ বিষয়ে একজন অতিরিক্ত এটর্নি জেনারেল জানিয়েছেন পুরো রায়ে আইনের যে ব্যত্যয় ঘটেছে সেই বেশি জোড় দেবেন তারা। কারণ আপিল বিভাগ যে রায় দিয়েছেন তা রিভিউ চাইতে গেলে ওই বিষয়গুলো বেশি জোড় দিতে হবে।

বিচারপতি অপসারণে সংবিধানের ষোড়শ সংশোধনী বাতিল করে দেওয়া আপিল বিভাগের পূর্ণাঙ্গ রায়ের সত্যায়িত অনুলিপি পাওয়ার কথা ১১ অক্টোবর জানিয়েছিলেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম। গত ০১ আগস্ট ৭৯৯ পৃষ্ঠার পূর্ণাঙ্গ রায়টি প্রকাশিত হয়।

একই বছরের ০৩ জুলাই হাইকোর্টের রায় বহাল রেখে সর্বসম্মতিক্রমে চূড়ান্ত রায় দেন সে সময়ের প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহার নেতৃত্বে সাত বিচারপতির পূর্ণাঙ্গ আপিল বেঞ্চ। ২০১৪ সালের ১৭ সেপ্টেম্বর বিচারপতি অপসারণের ক্ষমতা সংসদের কাছে ফিরিয়ে নিতে সংবিধানের ষোড়শ সংশোধনী আনা হয়েছিলো।