চট্টগ্রাম, , মঙ্গলবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৮

মন্ত্রিত্বের প্রস্তাবেও চট্টগ্রাম ছাড়েননি মহিউদ্দিন: কাদের

প্রকাশ: ২০১৭-১২-১৫ ১৫:২২:০৯ || আপডেট: ২০১৭-১২-১৬ ০০:০৪:১৩

প্রয়াত এ বি এম মহিউদ্দিন চৌধুরীর বাড়িতে গেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। আজ শুক্রবার চট্টগ্রামের ষোলোশহরে তাঁর বাড়িতে গিয়ে শোকাহত পরিবারকে সান্ত্বনা দেন তিনি।

মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাবেক মেয়র এবিএম মহিউদ্দিন চৌধুরীকে মন্ত্রীত্ব ও দলের প্রেসিডিয়াম সদস্য পদে প্রধানমন্ত্রী দায়িত্ব দিতে চেয়েছিলেন, কিন্তু এসব প্রস্তাব ফিরিয়ে দেন ‘চট্টলবীর’ জানিয়ে  লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী জানিয়েছেন, তিনি মহিউদ্দিন ভাইকে মন্ত্রীর দায়িত্ব দিতে চেয়েছিলেন। এ ছাড়া দলের প্রেসিডিয়াম সদস্য হিসেবেও দায়িত্ব দিতে চেয়েছিলেন। কিন্তু প্রতিবারই ফিরিয়ে দিয়েছিলেন মহিউদ্দিন ভাই। তিনি চট্টগ্রাম ছেড়ে যেতে চাননি। মহিউদ্দিন চট্টগ্রামের, চট্টগ্রামের মহিউদ্দিন।’

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘মহিউদ্দিন ভাইয়ের স্বপ্ন ছিল চট্টগ্রাম জলাবদ্ধতামুক্ত হবে। চট্টগ্রাম হবে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন। চট্টগ্রামকে জলাবদ্ধতামুক্ত ও পরিচ্ছন্ন রাখতে আমরা কাজ করে যাবো।’

চট্টগ্রাম নগর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের সাবেক মেয়র এ বি এম মহিউদ্দিন চৌধুরী শুক্রবার ভোরে চট্টগ্রামের ম্যাক্স হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৭৪ বছর। দীর্ঘদিন ধরে কিডনি সমস্যায় রোগে ভুগছিলেন তিনি।

তার মৃত্যুর খবর শুনে শোকের ছায়া নামে চট্টগ্রামে। বিপুলসংখ্যক নেতাকর্মী ও সাধারণ মানুষ তার বাসার সামনে ভিড় করেন। প্রিয় নেতাকে হারিয়ে অনেকেই কান্নায় ভেঙে পড়েন।

১৯৯৪ সাল থেকে টানা তিনবার চট্টগ্রাম সিটির মেয়র নির্বাচিত হয়ে ১৬ বছর দায়িত্ব পালন করেন মহিউদ্দিন চৌধুরী। তার মেয়াদে চট্টগ্রামের সবচেয়ে বেশি উন্নয়ন হয়। এজন্য চট্টগ্রামবাসীর কাছে তিনি ছিলেন জনপ্রিয় নেতা। তার বাসার গলিটি চট্টগ্রামবাসীর কাছে ‘মেয়র গলি’ হিসেবেই পরিচিত।