চট্টগ্রাম, ১২ই বৈশাখ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল ২০১৯

নৈতিক শিক্ষা বনাম অনৈতিক শিক্ষা

প্রকাশ: ১৩ ডিসেম্বর, ২০১৭ ৪:৪৬ : অপরাহ্ণ

আব্দুল মান্নান

শিক্ষা মানুষের বিবেগ বুদ্ধিকে জাগ্রত করে। প্রতিটি মানুষের হৃদয়ের আশা-প্রত্যশাকে বাস্তবে প্রকাশ করতে প্রয়োজন নৈতিক শিক্ষা। নৈতিক শিক্ষায় শিক্ষিত হলে তার মনের আশা, প্রত্যাশা, চিন্তা-চেতনা, ধ্যান-ধারণা সব নৈতিকতা সম্পন্ন হবে। সমাজের প্রতিটি মানুষ হয়ে উঠবে আদর্শিক চরিত্রের গুণাবলী সম্পন্ন। কথিত আছে পানির অপর নাম জীবন। কিন্তু এখন পানির অপর নাম জীবন বলে না। বিশুদ্ধ পানির অপর নামই হলো জীবন। কারণ শুধু পানি খেলেই হবে না সেটা বিশুদ্ধ আছে কিনা সেটাও জানা দরকার। তেমনি আমরা পড়ে আসছি শিক্ষা জাতির মেরুদন্ড। বর্তমান যুগেও শিক্ষার জাতির মেরুদন্ড বলতে নিজের বিবেগ বাধা প্রধান করে। কারণ নৈতিক শিক্ষা তথা সুশিক্ষাই হলো জাতির মেরুদন্ড। শিক্ষিত জাতি আমাদের চারপাশে সমাজের অনেক ক্ষেত্রেই আমাদের মেরুদন্ড ভেঙ্গে দিচ্ছে। নৈতিক শিক্ষা ছাড়া যারা শিক্ষিত হচ্ছে তারা সৎ ও আদর্শবান মানুষ সৃষ্টি করতে পারে না। জাতীয় চেতনা ও মানবতাবোধ জাগ্রত করার জন্য প্রয়োজন নৈতিক শিক্ষা। সমাজের প্রতিটি স্তরে নৈতিক শিক্ষার বীজ বপন করতে হবে। শিক্ষার মধ্যে নৈতিকতা সুশিক্ষা না থাকলে সেই শিক্ষা পুরা জাতীকে অনৈতিক শিক্ষা দিয়ে যাবে। তার মাধ্যমে প্রতিটি সমাজের মানুষের মনে অনৈতিকতা ছড়িয়ে যাবে। ফলে মারামারি, হানাহানি, ব্যবিচার, হিংসা-বিদ্ধেষ বেড়েই চলবে। আগামীর সমাজ হবে মেধা শূণ্য।

জোনা খান সইফট বলেছিলেন- শিক্ষা মনের একটি চোখ। যদি শিক্ষা মনের চোখ হয়ে থাকে তাহলে সেই চোখ দিয়ে যদি নৈতিকভাবে সব কিছুকে দেখি সমাজের প্রতিটি স্তরে নৈতিকতাযুক্ত শিক্ষা ছড়িয়ে পড়বে আর যদি রাঙ্গা চোখের দৃষ্টি দিই তাহলে সমাজের নৈতিক শিক্ষার বদলে অনৈতিক শিক্ষায় ছড়িয়ে পড়বে। নৈতিক শিক্ষা প্রকৃত মানুষের জন্ম দেয়। কিন্তু অনৈতিক শিক্ষা মানুষকে অমানুষ হতে বাধ্য করে। শিক্ষার মূল উদ্দেশ্য হবে সমাজের নোংরা সংস্কৃতির মানুষকে নৈতিক শিক্ষার মাধ্যমে সুস্থ সংস্কৃতির মানুষ হিসেবে গড়ে তোলা। কিছু কিছু নৈতিক শিক্ষা বই বা স্কুলে বা কলেজে গেলেও পাবেন না। যেগুলো আপনাকে আপনি আপনি শিখে নিতে হবে। যদি শিক্ষার সেই যোগ্যতা আপনার না থাকে তাহলে বুঝতে হবে আপনি নৈতিক শিক্ষা পাননি। আপনি কোলষিতযুক্ত অনৈতিক শিক্ষার মাধ্যমে সমাজের কাছে ভদ্রতার মুখোশ পড়ে আছেন।

তাই শিক্ষার ক্ষেত্রে যদি নৈতিক শিক্ষা আমরা অর্জন করতে পারি তাহলে জীবনের প্রতিটি ক্ষেত্রে একজন সফল মানুষ হিসেবে নিজের আত্মসম্মানকে ধরে রাখতে পারবো। আজকের শিশুকে আগামীদিনের যোগ্য নাগরিক হিসেবে গড়ে তোলার জন্য প্রয়োজন নৈতিক শিক্ষা। তাই আগামীদিনের সুন্দর পৃথিবী গড়তে নৈতিক শিক্ষাকে অর্জন করি আর অনৈতিক শিক্ষাকে বর্জন করি। এজন্য জাতীয় স্বার্থেই আমাদের সকলকে নৈতিক শিক্ষা প্রদানে এগিয়ে আসতে হবে। তবেই আমাদের সোনার বাংলা একদিন সোনার মানুষে ভরে উঠবে।

লেখক: আব্দুল মান্নান, বিএসএস(সম্মান) অর্থনীতি বিভাগ, জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়।

*** প্রকাশিত মতামত লেখকের একান্তই নিজস্ব। সিটিজি টাইমস -এর সম্পাদকীয় নীতি/মতের সঙ্গে লেখকের মতামতের অমিল থাকতেই পারে। তাই সময়ের কথা বিভাগে প্রকাশিত লেখার জন্য সিটিজি টাইমস কর্তৃপক্ষ লেখকের কলামের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে আইনগত বা অন্য কোনও ধরনের কোনও দায় নেবে না।