চট্টগ্রাম, , বৃহস্পতিবার, ২২ নভেম্বর ২০১৮

পাহাড় কেটে পোল্টি ফার্ম: পুকুরিয়া ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে আদালতের সমন জারি

প্রকাশ: ২০১৭-১০-৩১ ২০:১১:১২ || আপডেট: ২০১৭-১০-৩১ ২০:১২:১৪

প্রধান প্রতিবেদক

পাহাড় কেটে পোল্টি ফার্ম করছেন চট্টগ্রামের বাঁশখালী উপজেলার পুকুরিয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মো. আসহাব উদ্দিন। এ নিয়ে প্রতিবাদ করায় ১১ বছরের শিশু মারুফকে বেধড়ক পিটিয়েছেন তিনি। এ ঘটনায় দায়ের করা মামলায় চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে সমন জারি করেছেন আদালত।

আজ (৩১ অক্টোবর) মঙ্গলবার চট্টগ্রামের বিচারিক হাকিম হোসেন মো. রেজা মামলার বিবাদি চেয়ারম্যান মো. আসহাব উদ্দিনকে আগামি ২২ নভেম্বর আদালতে হাজির থাকার আদেশ দিয়ে সমন জারি করেন।

মামলার বাদির আইনজীবী মোকাররম হোসেন আদালতের আদেশ জারীর ব্ষিয়টি নিশ্চিত করে বলেন, শিশু মারুফের বাবা আবুল কাশেম আজ মঙ্গলবার আদালতে মামলাটি দায়ের করেন। পরে শুনানী শেষে আদালত চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে সমন জারির আদেশ দেন।

তিনি বলেন, চেয়ারম্যান মো. আসহাব উদ্দিন নিজ এলাকায় পাহাড় কেটে পরিবেশের ক্ষতিসাধন করে ঝিনুক পোল্ট্রি ফার্ম নামে একটি প্রতিষ্ঠান গড়ে তুলেন। এ সময় পাহাড় কাটার প্রতিবাদ করেন আবুল কাশেম। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে তার ১১ বছরের শিশু মারুফকে বেধড়ক পিটিয়েছেন।

মামলার বাদি আবুল কাশেম জানান, পাহাড় কাটায় পরিবেশের উপর বিরূপ প্রভাবের প্রতিকার চেয়ে গত ১৫ অক্টোবর স্থানীয় লোকজন চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসককে একটি স্মারকলিপি দেন। স্মারকলিপি দিতে যাওয়া স্থানীয়দের মধ্যে আবুল কাশেমও ছিলেন। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে চেয়ারম্যান ১৭ অক্টোবর নিজের পোল্ট্রি ফার্মে মারুফকে ডেকে নিয়ে মারধর করেন। এতে মারুফ জখম হন বলে মামলার আরজিতে উল্লেখ করা হয়।

আইনজীবি মোকাররম হোসেন বলেন, চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে দন্ডবিধির ৩২৩ ধারায় মামলাটি দায়ের করা হয়। আদালত মামলাটি আমলে নিয়ে সরাসরি সমন জারি করেন। ফৌজাদির মামলায় এই আদেশের ফলে চেয়ারম্যানের আর নিজের পদে থাকার যোগ্যতা নেই।

এ ব্যাপারে যোগাযোগ করা হলে পুকুরিয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মো. আসহাব উদ্দিন মুঠোফোনে বলেন, মারধরের কথা ঠিক নয়। আবুল কাশেম মিথ্যা মামলা করেছেন। আদালত যখন আদেশ দিয়েছেন ধার্যদিনে অবশ্যই হাজির থাকব।