চট্টগ্রাম, , রোববার, ১৮ নভেম্বর ২০১৮

২০২৪ সালের পর দেশে দারিদ্র্য থাকবে না : অর্থমন্ত্রী

প্রকাশ: ২০১৭-১০-২৯ ১৯:৫৯:০৭ || আপডেট: ২০১৭-১০-২৯ ১৯:৫৯:০৭

অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহিত বলেছেন, বিগতে এক দশক ধরে দেশ যেভাবে এগিয়ে যাচ্ছে, আশা করা যায় ২০২৪ সালের মধ্যে দেশে আর দারিদ্র্য থাকবে না।

অর্থমন্ত্রী রবিবার পল্লী কর্ম-সহায়ক ফাউণ্ডেশন (পিকেএসএফ) আয়োজিত উন্নয়ন মেলা-২০১৭ উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে একথা বলেন।

অর্থমন্ত্রী বলেন, ‘পিকেএসএফ একটি অনন্য প্রতিষ্ঠান। কারণ এই প্রতিষ্ঠানটি সম্পূর্ণ দেশীয় ধ্যানধারণা এবং সম্পদের মাধ্যমে সফলভাবে দারিদ্র্য বিমোচন এবং উন্নয়নে ভূমিকা রেখে চলছে।

উল্লেখ্য, পিকেএসএফ প্রতি দু’বছর অন্তর তার সহযোগী সংস্থার সদস্যদের উৎপাদিত দ্রব্যসামগ্রী প্রদর্শন, বিভিন্ন সহযোগী সংস্থার বৈচিত্র্যময় কর্মকাণ্ড তুলে ধরা এবং উন্নয়নকর্মীদের অধিকতর যোগাযোগের উদ্দেশ্যে উন্নয়ন মেলার আয়োজন করে থাকে।

পিকেএসএফ-এর পর্ষদ সভাপতি ড. কাজী খলীকুজ্জমান আহমদের সভাপতিত্বে উন্নয়ন মেলার উদ্বোধনী সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন কৃষিমন্ত্রী মতিয়া চৌধুরী। সভায় স্বাগত ও সূচনা বক্তব্য প্রদান করেন ড. কাজী খলীকুজ্জমান আহমদ।

অর্থমন্ত্রী বলেন, কয়েক বছর আগেও যেখানে দারিদ্র্য হার ছিল শতকরা ২৯, সেখানে বর্তমানে তা প্রায় শতকরা ২২।

তিনি পিকেএসএফ-কে ক্ষুদ্র ঋণের গণ্ডি থেকে মুক্ত হয়ে সামষ্টিক উন্নয়ন অভিযাত্রার প্রস্তুতি হিসেবে ঢেলে সাজানোর জন্য পিকেএসএফ-এর পর্ষদ সভাপতি ড. খলীকুজ্জমান আহমদকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে কৃষিমন্ত্রী মতিয়া চৌধুরী প্রথাগত ক্ষুদ্রঋণের বলয় পেরিয়ে সরকারের বিভিন্ন কর্মসূচির সাথে সামঞ্জস্য রেখে পিকেএসএফ নিজস্ব কর্মকাণ্ড বাস্তবায়ন করায় সন্তোষ প্রকাশ করেন এবং পিকেএসএফ-এর সকল কর্মকাণ্ডই যাতে টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রার দিকে সামঞ্জস্য রেখে অগ্রসর হয় সেদিকে লক্ষ্য রাখার পরামর্শ দেন।

পিকেএসএফ প্রতিবারের মত মানবমর্যাদা প্রতিষ্ঠা, টেকসই উন্নয়ন ও দারিদ্র্য বিমোচনে অবদানের জন্য দু’জন ব্যক্তিকে সম্মাননা প্রদান করে। এবারে সম্মাননা প্রদান করা হয় বীর মুক্তিযোদ্ধা, উন্নয়নকর্মী ফকীর আব্দুল জব্বার ও আবুল হাসিব খানকে। উল্লেখ্য, জনাব জব্বার পিকেএসএফ-এর সহযোগী সংস্থা কর্মজীবী কল্যাণ সংস্থা (কেকেএস) এবং জনাব খান রিসোর্স ইন্টিগ্রেশন সেন্টার (রিক)-এর প্রতিষ্ঠাতা ও নির্বাহী পরিচালক।

সমাপনী বক্তব্যে পিকেএসএফ-এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক আবদুল করিম বলেন, প্রয়োজনীয় আর্থিক সহযোগিতা পেলে পিকেএসএফ দেশের সকল ইউনিয়নে সামগ্রিক উন্নয়ন মডেল “সমৃদ্ধি” কর্মসূচি বাস্তবায়ন করতে প্রস্তুত রয়েছে।