চট্টগ্রাম, , রোববার, ১৮ নভেম্বর ২০১৮

মিছিল শ্লোগানে মুখরিত বন্দর নগরী: চট্টগ্রামে খালেদা জিয়া

প্রকাশ: ২০১৭-১০-২৮ ২০:৫৪:৫৭ || আপডেট: ২০১৭-১০-২৮ ২০:৫৪:৫৭

নিজস্ব প্রতিবেদক:

চট্টগ্রামে বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়ার আগমনকে কেন্দ্র করে গতকাল সারাদিন মিছিল মিটিংয়ে মুখরিত ছিল চট্টগ্রাম। খালেদা জিয়ার আগমনকে কেন্দ্র করে নগরীর কাজির দেউড়ি মোড়, লাভলেইন, নসিমন ভবন, লালখান বাজার মোড়, প্রর্বত্তক মোড় ও জিইসি মোড় এলাকা বিএনপি ও এর অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীদের মিছিল মিটিংয়ে মুখরিত হয়ে ওঠে। বিএনপি ও এর অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীদের মাঝে বিরাজ করে দলীয় চাঙ্গা ভাব। বিকেল ঘনিয়ে আসার সাথে সাথে নগরীর সার্কিট হাউজ থেকে সিটি গেইট এলাকামুখী হয়ে দলের নেত্রীকে শুভেচ্ছা জানাতে নেতাকর্মীরা উদগ্রীব হয়ে পড়ে। সন্ধ্যা সাতটার পর নেতাকর্মীদের দখলে চলে যায় পুরো সড়ক। সার্কিট হাউজ থেকে সিটি গেইট মোড় পর্যন্ত রাস্তার দুই পাশে নেতাকর্মীরা খালেদা জিয়াকে স্বাগত জানাতে দাঁড়িয়ে অবস্থান নেন।

সর্বশেষ ২০১২ সালের ১০ নভেম্বর খালেদা জিয়া কক্সবাজার জেলার রামুর বৌদ্ধ মন্দিরে হামলা ও ভাংচুরের ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছিলেন। সেখানে একটি জনসভায় অংশ নিয়েছিলেন। তখনও ঢাকা থেকে সড়কপথে তিনি চট্টগ্রাম এসেছিলেন। সার্কিট হাউসে রাতযাপন করে পরদিন কক্সবাজার গিয়েছিলেন। প্রায় সাড়ে চার বছর পর এবারও বেগম জিয়া সড়কপথে চট্টগ্রাম হয়ে কক্সবাজার যাচ্ছেন। দীর্ঘদিন পর নেত্রীর আগমনে ব্যাপক চাঙ্গাভাব তৈরী হয়েছে দলটির নেতাকর্মীদের মাঝে।

এদিকে সার্কিট হাউজে খালেদা জিয়ার অবস্থানকে কেন্দ্র করে গতকাল বিকাল পাঁচটার দিকে নগরীর বিভিন্ন এলাকা থেকে খন্ড খন্ড মিছিল নিয়ে কাজির দেউড়ি মোড়ে জমায়েত শুরু করে নেতাকর্মীরা। দলের নেতাকর্মীরা দলীয় শ্লোগানে মুখরিত করে তোলে পুরো সার্কিট হাউজ এলাকা। এসময় দলীয় নেতাকর্মীদের উপস্থিতি সার্কিট হাউজ এলাকা ছড়িয়ে আলমাস সিনেমা, লাভ লেইন মোড়সহ স্টেডিয়াম এলাকার চারপাশ ছড়িয়ে পড়ে। মিছিল মিটিংয়ের মধ্যদিয়ে সন্ধ্যার নামার আগেই পুরো এলাকা নিজেদের দখলে নেয় দলটির নেতাকর্মীরা। খালেদা জিয়ার আগমনকে কেন্দ্র করে দীর্ঘদিন পর দলের নেতাকর্মীদের মাঝে এমন চাঙ্গাভাব ব্যাপক চাঞ্চল্য সৃষ্টি করছে।
দলের নেত্রীকে স্বাগত জানাতে সার্কিট হাউজে অপেক্ষায় থাকা চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির সহ-দপ্তর সম্পাদক ইদ্রিছ আলী জানান, নেত্রীর আগমনের খবরে আমাদের দলের নেতাকর্মীরা খুবই উজ্জীবিত এবং আনন্দিত। নেতাকর্মীদের মধ্যে ফিরে এসেছে ব্যাপক চাঙ্গাভাব। তিনি জানান, পুরো চট্টগ্রামবাসী আমাদের নেত্রীকে বরণ করে নিতে প্রস্তুত রয়েছে।

মহানগর ছাত্রদলের সভাপতি গাজী মোহাম্মদ সিরাজ জানান, চট্টগ্রামে নেত্রীর আগমনে আমরা খুবই আনন্দিত ও উৎপল্ল। নেত্রীর আগমনের খবরে আমাদের দলের প্রতিটি নেতাকর্মীর মাঝে উৎসাহ উদ্দীপনা বিরাজ করছে। গাজী সিরাজ আরও জানান, দীর্ঘদিন পর নেত্রীকে কাছে পেয়ে দলের নেতাকর্মীদের পাশাপাশি পুরো চট্টগ্রামবাসী আনন্দিত।

অন্যদিকে দলের চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়ার আগমনকে কেন্দ্র করে দলীয় ব্যানার ও ফেস্টুনে ছেয়ে গেছে নগরীর গুরুত্বপূর্ণ মোড়গুলো। বিশেষ করে খালেদা জিয়া যে পথ দিয়ে আসা যাওয়া করবেন সে পথের দুই পাশে দলের নেতাকর্মীদের ব্যানার ফেস্টুনে ছেয়ে গেছে।

এদিকে, বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়াকে স্বতঃস্ফূর্তভাবে স্বাগত জানাতে চট্টগ্রামের মানুষ অধীর অপেক্ষায় রয়েছে বলে জানিয়েছেন দলটির স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী। তিনি জানান, চেয়ারপার্সনের সফরকে ঘিরে চট্টগ্রামের মানুষ উৎফুল্ল। লাখ লাখ মানুষ চট্টগ্রামে দলের নেত্রীকে স্বাগত জানাবে। এজন্য সবাই নিজ নিজ অবস্থান থেকে প্রস্তুতি নিয়েছে। আমীর খসরু আরো বলেন, শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে যেভাবে দেশের মানুষ বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়াকে স্বাগত জানিয়েছে ঠিক সেভাবেই চট্টগ্রামের মানুষ স্বাগত জানাবে ।

এদিকে, সবচেয়ে বেশি ব্যানার দেখা গেছে সার্কিট হাউস এলাকায়। আলমাস সিনেমা হলের সামনে থেকে নগর বিএনপির দলীয় কার্যালয়, নুর আহমদ সড়ক পর্যন্ত বেশি ব্যানার দেখা গেছে। ব্যানার আর ফেস্টুন জুড়ে দিয়ে নিজের অবস্থানের জানান দেওয়ার চেষ্টা করে অনেক নেতাকর্মী।