চট্টগ্রাম, , সোমবার, ১৯ নভেম্বর ২০১৮

৫ হাজার টাকার বিনিময়ে পেট কেটে ইয়াবা পাচার, লোহাগাড়ায় রোহিঙ্গা যুবক আটক

প্রকাশ: ২০১৭-১০-১৬ ২০:৪৪:৫৮ || আপডেট: ২০১৭-১০-১৭ ১১:১২:২৮

রায়হান সিকদার
লোহাগাড়া থেকে

চট্টগ্রামের লোহাগাড়া উপজেলার আমিরাবাদ বটতলী মোটর ষ্টেশনস্থ এলাকা থেকে মাত্র ৫ হাজার টাকার বিনিময়ে পেটের ভিতর দিয়ে ইয়াবা পাচারকালে ১ রোহিঙ্গা নাগরিককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

আটককৃত রোহিঙ্গার নাম আবু সামা প্রকাশ আসাদুল (২২)। সে টেকনাফের লেদা ক্যাম্পের মো: আলমের পুত্র।

সূত্র জানায় , আসাদুল পেটের ভিতর দিয়ে ইয়াবা নিয়ে কক্সবাজার হতে হানিফ পরিবহন যোগে বটতলী মোটর ষ্টেশনে এসে নামলে। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে এই এলাকা থেক ১৬ অক্টোবর দুপুর আনুমানিক ২টায় লোহাগাড়া থানার এসআই মো: নাছির উদ্দিন রাসেল ও এসআই জয়নাল আবেদীনের নেতৃত্বে একটি পুলিশি টিম তাকে আটক করে।

পরবর্তীতে তার পেটের ভিতর ইয়াবাগুলো নিশ্চিত করার জন্য আমিরাবাদের একটি বেসরকারী ক্লিনিকে তার পরীক্ষা করানো হয়। ডাক্তারের পরীক্ষায় স্পষ্ট ভাবে নিশ্চিত করা যায় যে, তার পেটের ভিতরে রাবারের দ্বারা ৮টি ইয়াবার প্যাকেট রয়েছে। পরে রোহিঙ্গা আসাদুলকে থানার হেফাজতে নিয়ে এসে ওষুধ খাওয়ার পর মলঘর দিয়ে ১টি রাবারের প্যাকেট বের হয়।

একইদিন বিকেলে থানার অফিসার ইনচার্জ কার্যালয়ে লোহাগাড়ার কর্মরত সাংবাদিকদের সাথে এক প্রেস ব্রিফিং আবু সামা বলেন, তার পেটের ভিতরে ৮টি ইয়াবার প্যাকেটে মোট ৪পিচ ইয়াবা ট্যাবলেট আছে বলে তিনি জানান। তাকে উক্ত ইয়াবাগুলো টেকনাফের মুসনি ক্যাম্পের সেলিম নামের এক ইয়াবা বিক্রেতা ৫হাজার টাকার বিনিময়ে চট্টগ্রাম শহরে পৌঁছে দেওয়ার জন্য দিয়েছিল। আটককৃত ইয়াবা পাচারকারী রোহিঙ্গা নাগরিকের বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলার প্রস্তুতি চলছে বলে থানা সূত্রে জানা গেছে।