চট্টগ্রাম, , শুক্রবার, ১৬ নভেম্বর ২০১৮

সীমান্তে রোহিঙ্গাদের স্রোত অব্যাহত

প্রকাশ: ২০১৭-০৮-২৯ ১৯:১০:১৫ || আপডেট: ২০১৭-০৮-২৯ ১৯:১৯:১২

বাংলাদেশ সীমান্তে রোহিঙ্গাদের আসার স্রোত অব্যাহত রয়েছে। অনুপ্রবেশের অপেক্ষায় নো ম্যানস ল্যান্ডে থাকা রোহিঙ্গারা মানবেতর জীবন কাটাচ্ছেন।

তবে বিজিবি’র কড়া নজরদারির মধ্যেও অনেকেই বাংলাদেশে ঢুকে পড়ছে। এরই মধ্যে ৫২৫ জন রোহিঙ্গাকে আটক করে ফেরত পাঠানো হয়েছে।

মিয়ানমারে রোহিঙ্গাদের উপর চলছে নারকীয় তাণ্ডব। একের পর এক গ্রাম জ্বালিয়ে দেয়ার পাশাপাশি চলছে গণহত্যা। সে দেশের আইন শৃঙখলা বাহিনীর অস্ত্রের মুখে দাঁড়িয়ে অনেক রোহিঙ্গারা নির্যাতনের প্রতিবাদ জানাচ্ছেন। আর প্রতিবাদ করলেই বরণ করতে হচ্ছে ভয়াবহ মৃত্যু।

মুহুর্মুহু গুলির শব্দ ভেসে আসছে এ পাড়ে। সীমান্তে উড়ছে মিয়ানমারের হেলিকপ্টার। হত্যা আর নির্যাতন থেকে বাঁচতে নিরাপদ আশ্রয়ের খোঁজে কক্সবাজার সীমান্তে জড়ো হচ্ছেন হাজারো রোহিঙ্গা। খাবারের অভাবে খোলা আকাশের নীচে মানবেতন জীবন কাটছে তাদের। বিশেষ করে বৃদ্ধ আর শিশুরা রয়েছে সীমাহীন কষ্টে। এরপরও বিজিবি’র কড়া নজরদারির মধ্যে অনেক রোহিঙ্গা প্রবেশ করছে বাংলাদেশে।

মিয়ানমার থেকে আসা গুলির শব্দে আতঙ্ক কাটছে না বাংলাদেশের সীমান্ত এলাকার বাসিন্দাদের। স্থানীয়রা বলছেন, এ পর্যন্ত ২০ হাজারের মতো রোহিঙ্গা বাংলাদেশে প্রবেশ করে শরণার্থী ক্যাম্প আর বিভিন্ন স্থানে আশ্রয় নিয়েছে। তবে সীমান্তে অনুপ্রবেশ রোধে কড়া নজরদারীতে বিজিবি।

বৃহস্পতিবার মধ্যরাতে মিয়ানমারের পুলিশ চৌকিতে নির্যাতিত রোহিঙ্গাদের হামলার পর অশান্ত হয়ে ওঠে রাখাইন রাজ্য। হামলায় ৮৯ জন নিহত হয়। এরপরই বালাদেশ সীমান্তে ঢল নামে রোহিঙ্গাদের।