চট্টগ্রাম, , বৃহস্পতিবার, ১৬ আগস্ট ২০১৮

বৃষ্টি হবে ঈদের দিন

প্রকাশ: ২০১৭-০৮-২৯ ১০:৫৯:৫৮ || আপডেট: ২০১৭-০৮-২৯ ১৬:০৮:১৯

ঈদের দিন রাজধানী ঢাকাসহ সারাদেশেই বৃষ্টি হবে। বৃষ্টিপাত বেশি হবে দক্ষিণ‍াঞ্চল এবং মধ্যাঞ্চলের ঢাকায়। উত্তরাঞ্চলও ওই দিন বৃষ্টির বাইরে থাকবে না। ফলে কোরবানি ও ঈদের আনন্দ কিছুটা বিঘ্নিত হবে।

কয়েক দিন শুষ্ক আবহাওয়া থাকার পর ঈদের পাঁচ দিন আগে সোমবার থেকে বৃষ্টিপাতের প্রবণতা বৃদ্ধি পেতে শুরু করেছে। এর থেকেও বেশি বৃষ্টিপাত হবে ঈদের সময়টায়। বঙ্গোপসাগরে একটি লঘুচাপের সাথে সক্রিয় মৌসুমী বায়ু মিলে বৃষ্টিপাত ঘটাবে।

আগামী ২ সেপ্টেম্বর পবিত্র ঈদ-উল আজহা উদযাপিত হবে। ঈদের দিন নামাজ ছাড়াও কোরবানি দেবেন সামর্থ্যবান মুসলমানরা।

আবহাওয়া অধিদফতরের একজন আবহাওয়াবিদ নাম প্রকাশ না করে বলেন, ঈদের সময় প্রায় সারা দেশেই বৃষ্টিপাত হবে। এরমধ্যে মধ্যাঞ্চল এবং দক্ষিণাঞ্চলে বেশি বৃষ্টি হবে। তবে উত্তরে কম হবে বৃষ্টি।

সোমবার দেশের বিভিন্ন স্থানে বৃষ্টিপাত হয়েছে জানিয়ে তিনি বলেন, বিদ্যমান অবস্থা বিরাজ করবে আরো দু’দিন।

আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে৩১ আগস্টের পর মেঘ বাড়বে আকাশে। তারপর ১ সেপ্টেম্বর থেকে বেশি বৃষ্টিপাত শুরু হবে এবং তা ৪ বা ৫ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত অব্যাহত থাকবে।

সন্ধ্যা ৬টা থেকে পরবর্তী ২৪ ঘণ্টার আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, ভারতের উড়িষ্যা এবং তৎসংলগ্ন এলাকায় একটি লঘুচাপ অবস্থান করছে। মৌসুমী বায়ুর অক্ষ রাজস্থান, উত্তর প্রদেশ, মধ্য প্রদেশ, লঘুচাপের কেন্দ্রস্থল এবং গাঙ্গেয় পশ্চিমবঙ্গ ও বাংলাদেশের দক্ষিণাঞ্চল হয়ে উত্তর-পূর্ব দিকে আসাম পর্যন্ত বিস্তৃত রয়েছে। এর একটি বর্ধিতাংশ উত্তর বঙ্গোপসাগর পর্যন্ত বিস্তৃত। মৌসুমী বায়ু বাংলাদেশের উপর মোটামুটি সক্রিয় এবং উত্তর বঙ্গোপসাগরে মাঝারি অবস্থায় রয়েছে।

খুলনা, বরিশাল ও চট্টগ্রাম বিভাগের অনেক জায়গায় এবং রংপুর, রাজশাহী, ময়মনসিংহ, ঢাকা ও সিলেট বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় অস্থায়ী দমকা হাওয়াসহ হাল্কা থেকে মাঝারী ধরনের বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেই সাথে দেশের কোথাও কোথাও মাঝারি ধরনের ভারী থেকে ভারী বষর্ণ হতে পারে।

আবহাওয়া ‍অফিস বলছে, সোমবার ফরিদপুর, গোপালগঞ্জ, ময়মনসিংহ, সিলেট, রাজশাহী, বগুড়া, খুলনা, বরিশাল, ভোলাসহ দেশের বিভিন্ন জেলায় বৃষ্টিপাত হয়েছে। পরবর্তী ৪৮ ঘণ্টার আবহাওয়ার অবস্থায় সামান্য পরিবর্তন হতে পারে। তবে বর্ধিত পাঁচ দিনের আবহাওয়ার অবস্থায় বলা হয়েছে, বৃষ্টিপাতের প্রবণতা বৃদ্ধি পেতে পারে।

ঈদের আবহাওয়া পরিস্থিতি নিয়ে আবহাওয়া অধিদফতরের পরিচালক আগামী ৩০ আগস্ট গণমাধ্যমকে ব্রিফ করবেন বলে জানায় আবহাওয়া অফিস।

আবহাওয়ার আন্তর্জাতিক কয়েকটি ওয়েবসাইট বলছে, ওই দিন বাতাসের আর্দ্রতা কমে যাবে। বর্ষার কারণে ঈদের দিন সকালের দিকেই বৃষ্টি হবে। ২ সেপ্টেম্বর বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা অন্তত ৮০ ভাগ। বিকেলে হবে বজ্রঝড়। ওই রাতেও বৃষ্টি এবং বজ্রঝড় হবে।