চট্টগ্রাম, , শুক্রবার, ১৭ আগস্ট ২০১৮

চট্টগ্রামের সাংবাদিকদের আবাসনের জন্য সব করব: মেয়র

প্রকাশ: ২০১৭-০৮-২৮ ১৯:৪৩:৪৩ || আপডেট: ২০১৭-০৮-২৯ ১১:১১:০৮

চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের মেয়র ও নগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আ জ ম নাছির উদ্দিন বলেছেন চট্টগ্রামের সাংবাদিকদের আবাসনের জন্য প্রয়োজনীয় সব কিছু করা হবে। সোমবার দুপুরে চট্টগ্রাম সাংবাদিক হাউজিং কো-অপারেটিভ সোসাইটি লিমিটেড এর শেরশাহ প্রকল্প কার্যালয় উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ মন্তব্য করেন।

মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দিন বলেন, আপনাদের আবাসন প্রকল্প বাস্তবায়নে যত ধরণের সহায়তা আছে সব করা হবে। আমি শারীরিক, মানসিক, আর্থিক এবং প্রাতিষ্ঠানিক সব সহায়তা করতে প্র¯‘ত আছি। আপনারা আসুন। যে পরিকল্পনা আছে তা নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করুন। প্রয়োজনে আজই আসুন। যতজন প্রয়োজন ততজন আসুন। সিটি করপোরেশনের পক্ষ থেকে যা কিছু করা সম্ভব সবই করব।

এছাড়া শেরশাহ সাংবাদিক হাউজিং এলাকার আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে বায়েজিদ থানার পুলিশ কর্মকর্তাদের উদ্দেশ্যে মেয়র বলেন, থানা খুবই কাছে। সর্বক্ষণ নজর রাখবেন। যারাই অবৈধ অসামাজিক কাজ করে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নিবেন।

নগরবাসীর জন্য কাজ করার আকাঙ্খা ব্যক্ত করে নাছির বলেন, মানুষ কি চায়? প্রভাব প্রতিপত্তি অর্থ যশ খ্যাতি। আমি চট্টগ্রামের মেয়র হয়েছি। চট্টগ্রামে আর কি আছে? আমি আর কিছু চাই না। মানুষের জন্য কাজ করতে চাই। কাজ করতে আমি মরিয়া। সহায়তা বা পরিস্থিতি পাচ্ছি না বলে করতে পারছি না। মুখে যা বলছি হৃদয়েও তাই। হৃদয় খুলে দেখানোর সুযোগ থাকলে দেখাতাম। আমরা চলে যাব। পরবর্তী প্রজন্ম থাকবে। উত্তরসূরীদের জন্য একটা নিরাপদ শহর গড়তে চাই। শহরের এখন যে অবস্থা সেটা মানবসৃষ্ট। একটু সচেতন হলে এ অবস্থা হতো না। যেমন আগ্রাবাদে বক্স কালভার্ট করেছে। পরিস্কারের কোনা ব্যবস্থা নেই। অনেকবার টেন্ডার দিয়েছি, কেউ কাজ করতে চায় না।

মেয়র বলেন, আমরা অনেক সময় অনেক কাজ করে ফেলি পরে সমস্যা হয়। বিশেষজ্ঞ এবং অভিজ্ঞদের পরামর্শ নিয়ে কাজ করলে পরবর্তীতে সমস্যা হয় না। যা হয়ে গেছে, হয়ে গেছে। ব্যক্তি, প্রতিষ্ঠান বা রাষ্ট্রীয় পর্যায়ে যেন কোনো অপরিকল্পিত কাজ না হয়। পাস্ট ইজ পাস্ট। অতীত নিয়ে কোনো আলোচনা সমালোচনা করতে চাই না।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠান শেষে মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দিন সাংবাদিক হাউজিং কো-অপারেটিভ সোসাইটি লিমিটেড এর শেরশাহ প্রকল্প কার্যালয় উদ্বোধন করেন। এরপর তিনি প্রকল্প এলাকা ঘুরে দেখেন। ১৯৮২ সালে সাংবাদিক হাউজিং কো-অপারেটিভ সোসাইটির আওতায় শেরশাহ প্রকল্পের উন্নয়ন ও বসতি  স্থাপন শুরু হয়। দীর্ঘ সময় পরে এই প্রকল্প এলাকায় এই প্রথম কোনো কার্যালয় স্থাপন করা হলো।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন হাউজিং কো-অপারেটিভ সোসাইটির সভাপতি স্বপন মল্লিক, চট্টগ্রাম সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি রিয়াজ হায়দার চৌধুরী, সিইউজের সাবেক সভাপতি নেতা অঞ্জন সেন, সাধারণ সম্পাদক হাসান ফেরদৌস, সিইউজের সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ আলী, চৌধুরী ফরিদ, সমীর কান্তি বড়ুয়া, কামাল পারভেজ প্রমুখ। উপস্থিত ছিলেন সোসাইটির কোষাধ্যক্ষ নুরউদ্দিন আহমেদ, পরিচালক মহসীন কাজী ও মঞ্জুরুল আলম মঞ্জু।