চট্টগ্রাম, , বুধবার, ২২ আগস্ট ২০১৮

মিয়ানমারকে যৌথ অভিযানের প্রস্তাব বাংলাদেশের

প্রকাশ: ২০১৭-০৮-২৮ ১৮:২৭:৩৪ || আপডেট: ২০১৭-০৮-২৮ ২০:০৫:৩৪

সীমান্তে অভিযান চালানোর ইস্যুতে মিয়ানমারকে নতুন প্রস্তাব দিয়েছে বাংলাদেশ। আজ সোমবার মিয়ানমারের ভারপ্রাপ্ত রাষ্ট্রদূত অং মিন্টকে আবারও ডেকে এ ব্যাপারে আনুষ্ঠানিক পত্র দেওয়া হয়েছে। পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের দক্ষিণ এশিয়া বিষয়ক পরিচালক মঞ্জুরুল করিম ডেকে সরকারের পক্ষ থেকে এই আনুষ্ঠানিক পত্র দেন। এর ফলে ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে মিয়ানমারের ভারপ্রাপ্ত রাষ্ট্রদূতকে দুই বার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে ডেকে পাঠানো হলো।

জানা গেছে, এই আনুষ্ঠানিকপত্রে বাংলাদেশ-মিয়ানমার সীমান্ত এলাকায় যৌথ অভিযানের প্রস্তাব করেছে বাংলাদেশ। এতে দুই দেশের নিরাপত্তা বাহিনী ইসলামিক মিলিটেন্ট, আরাকান আর্মি এবং অন্য যে কোনও অরাষ্ট্রীয় শক্তির বিরুদ্ধে কাজ করবে।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের একজন কর্মকর্তা জানিয়েছেন, এর মাধ্যমে আমরা আমাদের সদিচ্ছা প্রকাশ করেছি যাতে করে মিয়ানমার নিরাপত্তা উদ্বেগ প্রশমিত করতে পারে।

মিয়ানমার তাদের সীমান্তে অব্যাহতভাবে রোহিঙ্গাদের ওপর হামলা চালালেও এসব ঘটনা ‘বেঙ্গলি টেররিস্ট’রা ঘটাচ্ছে বলে উল্টো প্রচারণা চালায়। এক্ষেত্রে ‘বেঙ্গলি টেররিস্ট’ শব্দটি ব্যবহারের বিষয়ে কোনও আলোচনা হয়েছে কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘আমরা এই শব্দটি ব্যবহারের ক্ষেত্রে চরম উদ্বেগ প্রকাশ করেছি এবং মিয়ানমারের ভারপ্রাপ্ত রাষ্ট্রদূতকে বলা হয়েছে যাতে তিনি তার সরকারের উচ্চ পর্যায়ে বিষয়টি অবহিত করেন যাতে ভবিষ্যতে এ শব্দটি আর ব্যবহার করা না হয়।

উল্লেখ্য, গতবছর আগস্ট মাসে বাংলাদেশ যৌথ অভিযানের প্রস্তাব দিলেও সেখানে এত খুঁটিনাটি সেখানে ছিল না। এ বিষয়ে এ বছরের এপ্রিল মাসে বিজিবি-বিজিপি বৈঠক হয়েছিল। সেখানেও বিষয়টি নিয়ে আলোচনা হয় তবে কোনও সিদ্ধান্ত হয়নি।