চট্টগ্রাম, , বৃহস্পতিবার, ১৬ আগস্ট ২০১৮

ধর্ষক রাম রহিমের ১০ বছর কারাদণ্ড

প্রকাশ: ২০১৭-০৮-২৮ ১৭:০৯:২৯ || আপডেট: ২০১৭-০৮-২৮ ১৮:৩০:৪৬

ভারতের আলোচিত ধর্ষণ মামলায় দোষী সাব্যস্ত হওয়া বিতর্কিত স্বঘোষিত হিন্দু ধর্মগুরু ডেরা সচ্চা সৌদার প্রধান গুরমিত রাম রহিম সিংকে ১০ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছে আদালত।

সিবিআই আদালতের বিচারপতি জগদীপ সিং-এর বেঞ্চ এ রায় দেন। ২০০২ সালে দুই নারীকে ধর্ষনের দায়ে ডেরা প্রধানকে ১০ বছরের এই কারাদণ্ড দেয়া হয়।

এদিন রোহতক কারাগারের লাইব্রেরিকে অস্থায়ী আদালতে পরিণত করা হয়। এ সময় গুরমিত রাম রহিম সিং-সহ ৯ ব্যক্তি আদালতে উপস্থিত ছিলেন।

আসামীপক্ষের আইনজীবীরা রাম রহিমের সেবামূলক কর্মকাণ্ডের দিকে তাকিয়ে দণ্ড কমিয়ে আনার আবেদন করলেও সিবিআই বিশেষ আদালত সেই আবেদন নাকচ করে দেয়।

রায় ঘোষণার সময় আদালতে নাটকীয় কান্না শুরু করেন গুরমিত রাম রহিম। আদালতের কাছে হাত জোর করে ক্ষমা চান তিনি। এমনকি ক্ষমা না করলে আদালত কক্ষ ছেড়ে যেতে অস্বীকৃতি জানান। এ সময় তাকে আদালত থেকে টেনে বের করে নিয়ে যাওয়া হয়।

সিবিআইয়ের আইনজীবী এবিএম খায়রুল হক বলেন, ‘৪৫ জনেরও বেশি ধর্ষনের শিকার হয়েছে, তারা এগিয়ে আসতে পারছে না। কিন্তু মাত্র দু’জন শেষ পর্যন্ত তা প্রকাশ করার সাহস পেয়েছেন। তাই এ অপরাধের জন্য রাম রহিম সিং আরো কঠোর শাস্তি প্রাপ্য।’

সাজা ঘোষণার আগে থেকেই এদিন শুরু হয়েছে ভণ্ড অনুগামীদের তাণ্ডব। ফুলকায় দুটি গাড়িতে আগুন জ্বালিয়ে দেয়া হয়েছে। সংবাদমাধ্যমের গাড়ির উপরেও আক্রমণ চালিয়েছে ভণ্ড অনুগামীরা।

ইতোমধ্যেই ইন্টারনেট পরিষেবা এবং শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখা হয়েছে। ডেরার প্রথমসারির নেতাদের আটক করেছে পুলিশ। রোহতক শহরের সীমানায় জারি হয়েছে কড়া নিরাপত্তা। এমনকি ডেরা ঘাঁটিগুলোতেও মোতায়েন করা হয়েছে অতিরিক্ত পুলিশবাহিনী।

পরিস্থিতি খতিয়ে দেখেছেন রোহতকের আইজি এবং ডেপুটি কমিশনার। এলাকাজুড়ে চলছে তল্লাশি। ১৪৪ ধারাও জারি করা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, ১৫ বছরের আগে দুই ভক্তকে ধর্ষণের অভিযোগ ওঠে ডেরা সচ্চা সৌদা ধর্মীয় সংগঠনের প্রধান গুরমিত রাম রহিম ইনসান সিংয়ের বিরুদ্ধে। গত শুক্রবার তাকে দোষী সাব্যস্ত করে হরিয়ানার সিবিআইয়ের বিশেষ আদালত। তারপরেই রণক্ষেত্র হয়ে ওঠে হরিয়ানার সিরসা, পাঁচকুলা-সহ পাঞ্জাব ও দিল্লির একাধিক এলাকা। সহিংসতায় ৩৩ জন নিহত হয়।

সোমবার যেন সেই ঘটনার পুনরাবৃত্তি না হয় এর জন্য আগে থেকেই কড়া সতর্ক প্রশাসন।