চট্টগ্রাম, , বৃহস্পতিবার, ১৬ আগস্ট ২০১৮

সহিংসতা: আহত আরও ৯ রোহিঙ্গা চমেক হাসপাতালে

প্রকাশ: ২০১৭-০৮-২৮ ১৪:৫০:১৩ || আপডেট: ২০১৭-০৮-২৮ ১৯:৪৪:২০

মিয়ানমারের মংডু এলাকায় সহিংসতার ঘটনায় গুলিবিদ্ধ ও আগুনে পোড়া আরও ৯ রোহিঙ্গাকে চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ (চমেক) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

রবিবার (২৭ আগস্ট) গভীর রাত থেকে সোমবার দুপুর পর্যন্ত তাদেরকে চমেক হাসপাতালে আনা হয় বলে জানিয়েছেন হাসপাতাল পুলিশ ফাঁড়ির এএসআই আলাউদ্দিন তালুকদার।

আলাউদ্দিন তালুকদার বলেন, ‘হাসপাতালে আরও ৯ রোহিঙ্গা ভর্তি হয়েছেন। এদের মধ্যে সাতজন গুলিবিদ্ধ, অন্য দুজন আগুনে পুড়ে আহত হয়েছেন।এই ৯ জনসহ গত তিন দিনে মোট ১৭ জন রোহিঙ্গা হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। তাদের মধ্যে মুছা নামে একজনের মৃত্যু হয়েছে। অন্যদের হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।’

হাসপাতালে ভর্তি হওয়া ৯ রোহিঙ্গারা হলেন, মংডুর হাসুরমা গ্রামের বাসিন্দা মামুনুর রশিদ (২৭), একই এলাকার নুরুল হাকিম (২৬), শীলখালী গ্রামের মো. শাকের (২৭), ধুমাখালী গ্রামের মো. সাদেক (২০), একই গ্রামের জাহেদ হোসেন (২০), নাইয়্যাদং গ্রামের নুরুল সালাম (১৫), আওয়ারবিল গ্রামের পারভেজ (২০), আবুল কাশেম (২৭) ও নুরুল আমিন (২২)। এদের মধ্যে পারভেজ ও কাশেম আগুনে পুড়ে আহত হন। তাদেরকে চমেক হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

এর আগে শুক্রবার রাতে দুজনকে ভর্তি করা হয়। তাদের মধ্যে মুছা নামে একজনের মৃত্যু হয়। পরদিন শনিবার রাতে আরও চার জনকে হাসপাতালে আনা হয়। রবিবার দিনের বেলায় ভর্তি করা হয় আরও দুই রোহিঙ্গা নাগরিককে। এদের মধ্যে মোবারক নামে এক শিশুর অবস্থা আশঙ্কাজনক। তার গলার একপাশ দিয়ে গুলিবিদ্ধ হয়ে অপর পাশ দিয়ে বেরিয়ে যায়।