টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

দক্ষিণ চট্টগ্রামের এমপিদের ধুয়ে দিলেন হানিফ

চট্টগ্রাম, ১৬ জুলাই ২০১৭ (সিটিজি টাইমস):  চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের আওতাধীন এলাকার এমপিদের ধুয়ে দিলেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুবুল আলম হানিফ।

তিনি বলেন, ২০০৭ সালের ১৬ জুলাই জননেত্রী শেখ হাসিনাকে সেনাসমর্থিত তত্তাবধায়ক সরকার মিথ্যা অজুহাত পরোয়ানা ছাড়ই গ্রেফতার করে। অথচ এ বিষয়ে এমপিদের কোন ধারণাই নেই। বিষয়টি খুবই দুঃখজনক। তারা নিজেদের সাফাই গেয়ে গেছেন। নেত্রীর কখন, কি কারণে গ্রেফতার হয়েছে স্বচ্ছ ধারণা নেই আপানাদের। সদস্য হলেই আওয়ামী লীগার হওয়া যায় না। আওয়ামী লীগ হতে হলে আওয়ামী লীগ সম্পর্কে আর শেখ হাসিনা সম্পর্কে জানতে হবে।

রোববার চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের প্রতিনিধি সম্মেলনে বক্তব্য রাখতে গিয়ে দক্ষিণ চট্টগ্রামের এমপিদের উদ্দেশ্য করে তিনি এসব কথা বলেন।

মাহবুবুল আলম হানিফ বলেন, দলের বাইরে থাকা অনেকে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেয়ে এমপি হয়েছেন। তাদের ব্যাপারে খোঁজ খবর নেয়া হচ্ছে। অনেকে দলের নেতাকর্মীদের অবমূল্যায়ন করে নিজেদের মতামত ছাপিয়ে দিচ্ছে। এমপি হয়ে আওয়ামী লীগের কর্মীদের সঙ্গে এসব করা যাবে না। এমপি হওয়ার মানি এই নই যে আওয়ামী লীগে স্থায়ী। আওয়ামী লীগ করতে হলে আওয়ামী লীগের ইতিহাস জানতে হবে। বঙ্গবন্ধু সম্পর্কে জানতে হবে। আমাদের নেত্রী শেখ হাসিনা সম্পর্কে জানতে হবে। শুধুমাত্র আসলাম আর মনোনয়ন নিয়ে এমপি হলাম আর চলে গেলাম, এটা হবে না। আওয়ামী লীগের তৃণমূল নেতাকর্মীদের নিয়ে সংগঠনের কাজ করতে হবে। তাহলেই প্রকৃত আওয়ামী লীগার হওয়া যাবে।

সভায় দক্ষিণ চট্টগ্রামের এমপিদের বক্তব্য নিয়ে দুঃখ প্রকাশ করে হানিফ বলেন, কেউ কেউ পুলিশ দিয়ে আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীদের হয়রানি করছেন। এসব কাজ যারা করছেন তাদের ব্যাপারে নেত্রী সিদ্ধান্ত নিবে।

এ অনুষ্ঠানে এমপিদের উপর ক্ষোভ জেড়ে কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক এনামুল হক শামীম বলেন, দলীয় নেতাকর্মীরা সমালোচনা করলেই কর্মীদের পুলিশে ধরিয়ে দেবেন না। আপনারা কেউ কেউ এমন কাজ করছেন বলে আমাদের কাছে অভিযোগ রয়েছে। কর্মীদের সমালোচনা সহ্য করতে হবে। কারণ তারা বঙ্গবন্ধুর কর্মী, শেখ হাসিনার কর্মী, আওয়ামী লীগের কর্মী। এমপিও আমাদের, দলও আমাদের।

নগরীর বাকলিয়ায় কে বি কনভেনশন হলে আয়োজিত সভায় দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মোছলেম উদ্দিন আহমেদের সভাপতিত্ব ও সাধারণ সম্পাদক মফিজুর রহমান সঞ্চালনায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

মতামত