টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

আওয়ামীলীগ নেতা এম এ রহিমের মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত

চট্টগ্রাম, ১৬ জুলাই ২০১৭ (সিটিজি টাইমস): নাঙ্গলমোড়া ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাবেক সভাপতি, হাটহাজারী উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি ও ছাত্রনেতা মরহুম এম এ রহিমের ২য় মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে মরহুমের কবরে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন, খতমে কোরআন, আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।

নাঙ্গলমোড়া ইউনিয়ন ছাত্রলীগের উদ্যোগে গত ১৫ই জুলাই শনিবার বিকেল তিনটার দিকে নাঙ্গলমোড়া মাদ্রাসা হল মিলনায়তনে চট্টগ্রাম উত্তর জেলা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এম এ আব্বাসের সভাপতিত্বে অধ্যাপক হোসেন ও মোঃ মোজাম্মেল হক বাবলুর সঞ্চালনায় উক্ত সভা অনুষ্ঠিত হয়।

এতে প্রধান অতিথি ছিলেন চট্টগ্রাম উত্তর জেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি ও প্রধান কারা পরিদর্শক এডভোকেট সিরাজউদ-দ্দৌলা, প্রধান আলোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম উত্তর জেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব ইউনুছ গনি চৌধুরী। বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম উত্তর জেলা আওয়ামীলীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক জসিম উদ্দিন শাহ, ফরহাদাবাদ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ইদ্রিস মিয়া তালুকদার, হাটহাজারী উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংস্কৃতিক সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন মিন্টু। এতে আরও উপস্থিত ছিলেন আলহাজ্ব আমিনুল হক, শ্রমিকলীগ নেতা আবু সাইদ চৌঃ,শহিদ চৌঃ,এডভোকেট তসলিম উদ্দিন, গিয়াস উদ্দিন,আলহাজ্ব নাসির,নাসির উদ্দিন মন্টু, দুলাল, উত্তর ছাত্রনেতা তরিকুল কালাম তুহিন,আলাউদ্দিন মাহমুদ, রায়হান চৌঃ,কাদের,মাসুদ রানা, রবিউল হোসেন,ওয়াহিদুল আলম,জামশেদ চৌঃ,মহিম উদ্দিন, সাহেদ খান,শাওন মাহমুদ,জি এম নিশান,আসম সাইফুল্লাহ,হাফেজ আকবর, আমির খসর রুবেল বড়ুয়া, রোকন মেম্বার, সিরাজ,মোজাম্মেল,মাহফুজ,আলা উদ্দিন, তানিম,নিজাম আলমগির, হামিদ, রাশেদ,মিজান,রুবেল,সোয়েব,শাওন, বিকি,আনিসুল ইসলাম সবুজ, ফরহাদ, আসমান, আরফাত, মোরশেদ,শাকিল,শহিদ, জিসান,তানভীরসহ উত্তর জেলা ও উপজেলা আওয়ামীলীগ, যুবলীগ ও ছাত্রলীগের নেতাকর্মী ও বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ।

প্রধান আলোচকের বক্তব্যে আলহাজ্ব ইউনুছ গনি চৌধুরী বলেন, এম এ রহিম ছিলেন সমাজ সেবক ও একজন বঙ্গবন্ধু আদর্শের নিবেদিন প্রাণ। সব সময় সুখ দুঃখে এলাকার মানুষের কাছে ছুটে যেতেন। হালদা নদী ভাঙ্গন রোধ ও নাঙ্গলমোড়া শাসছুল উলুম মাদ্রাসার উন্নয়নে ব্যাপক ভূমিকা পালন করেন। তিনি আরো বলেন, সমাজ ও দেশ প্রেমিক আমার ভাই, রনাঙ্গনের সহযোদ্ধা রহিমকে বাঁচতে দেয়নি তাদেরকে সামাজিক ভাবে বয়কট করার ঘোষণা দেন এবং তরুণ প্রজন্মের কাছে চিহ্নিত করে রাখার আহ্বান জানান।

উল্লেখ্য যে, ২০১৫ সালের রমযানে ইফতার মাহফিলকে কেন্দ্র করে নিজগ্রামে দলীয় আন্তঃকোন্দলের স্বীকার হয়ে মারাত্মক ভাবে যখম হন। টিক এর কয়েকদিন পর একটি বেসরকারি হাসপাতালে হৃদক্রিয়া বন্ধ হয়ে ইন্তেকাল করেন।- প্রেস বিজ্ঞপ্তি

মতামত