টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

সীতাকুণ্ডে অজ্ঞাত রোগ: আরও ৩৮ শিশু হাসপাতালে

চট্টগ্রাম, ১৫ জুলাই ২০১৭ (সিটিজি টাইমস): সীতাকুণ্ডের বার আউলিয়া পাহাড়ের ত্রিপুরা পাড়ার পর এবার পার্শ্ববর্তী আরেকটি ত্রিপুরা পাড়াতেও ছড়িয়ে পড়েছে কথিত অজ্ঞাত রোগটি। শীতলপুর পাহাড়ে বসবাসরত ত্রিপুরা পাড়ার আরও ৩৮ শিশু অজ্ঞাত রোগে আক্রান্ত হয়ে গত তিন দিনে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে। এ নিয়ে এ পর্যন্ত আক্রান্ত ৮৪ জন জনকে হাসপাতলে ভর্তি করা হয়েছে। তাদের মধ্যে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের আইসিইউতে রাখা হয়েছে দুই শিশুকে।

তবে চিকিৎসাধীন শিশুরা বিপদমুক্ত আছে বলে জানিয়েছেন চট্টগ্রাম জেলা সিভিল সার্জন আজিজুর রহমান সিদ্দিকী। গত ৮ থেকে ১২ জুলাই পর্যন্ত চার দিনে ত্রিপুরা পাড়ায় অজ্ঞাত রোগে আক্রান্ত হয়ে নয় শিশুর মৃত্যু হয়। গায়ে জ্বর, ফুসকুড়ি, বমি ও পায়খানার সাথে রক্ত যাওয়াসহ নানা উপসর্গে দুই থেকে দশ বছর বয়সী শিশুরা এ অজ্ঞাত রোগে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছে।

আজিজুর রহমান সিদ্দিকী বলেন, ১২ জুলাইয়ের পর থেকে গত তিন দিনে আরও ৩৮ শিশু এসেছে। এখন মোট ৮৪ শিশু চিকিৎসাধীন আছে । এদের মধ্যে ৫০ জন চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ও বাকি ৩৪ জন ফৌজদারহাট বিআইটিআইডিতে আছেন। তাদের সবারই অবস্থা ভালো। ধীরে হলেও সবাই সুস্থতার পথে আছে।

এদিকে,  ঢাকা থেকে আসা ‘রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা’ প্রতিষ্ঠানের চার সদস্যের কমিটি প্রাথমিকভাবে দীর্ঘদিনের অপুষ্টিকে চিহ্নিত করে গেছেন। রক্তশূন্যতা, অপুষ্টি ও শরীরে পটাশিয়ামের অভাবকে এ রোগের জন্য দায়ী করা হয়।

মতামত