টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

আজ জিতলেই ইতিহাসে বাংলাদেশ

চট্টগ্রাম, ১৫ জুন ২০১৭ (সিটিজি টাইমস):: চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির দ্বিতীয় সেমিফাইনালে বৃহস্পতিবার বদলে যাওয়া বাংলাদেশের মুখোমুখি হচ্ছে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন ভারত। এজবাস্টনে বাংলাদেশ সময় সাড়ে তিনটায় ম্যাচটি শুরু হবে। এই ম্যাচ জিতলেই প্রথমবারের মতো বাংলাদেশ আইসিসির দ্বিতীয় বৃহত্তম আসরের ফাইনাল খেলার গৌরব অর্জন করবে। টানা বর্ষণে চট্টগ্রাম বিভাগের পাঁচ জেলায় পাহাড় ধসে হতাহতদের স্মরণে এই ম্যাচে কালো ব্যাজ পড়ে খেলতে নামবেন মাশরাফিরা।

ইতোমধ্যে পাহাড় ধসে নিহতদের ঘটনায় শোক প্রকাশ ও নিহতদের আত্মার মাগফেরাত কামনা করেছেন অধিকাংশ ক্রিকেটার।

নিজের ভেরিফাইড ফেসবুক পেজে এক পোস্টে টাইগার দলপতি মাশরাফি লেখেন, ‘পাহাড় কাটা আর অপরিকল্পিত বসতবাড়ির কারণে প্রায় প্রতিবছরই এই সময়টাতে পাহাড় ধসের কারণে হতাহতের খবর শুনতে হয়। ভূমিধসে নিহত সবার আত্মার শান্তি কামনা করছি।’

তিনি আরো লেখেন, ‘উদ্ধার কাজে গিয়ে প্রাণ হারানো সেনাবাহিনীর বীর সদস্যদের আত্মার মাগফেরাত কামনা করছি। দেশের জন্য জীবন দেয়া সবাই পারে না, কিন্তু আপনারা পেরেছেন।’

ইতোমধ্যে ইংল্যান্ডকে হারিয়ে প্রথম দল হিসেবে ফাইনাল নিশ্চিত করেছে পাকিস্তান। আজকের ম্যাচে শোককে শক্তিতে রুপান্তর করে বাংলাদেশ কী পারবে পাকিস্তানের সঙ্গী হতে?

তবে গ্রুপপর্বের ম্যাচে নিউজিল্যান্ডকে বাংলাদেশ যেভাবে হারিয়েছে, সেটা দেখে সতর্ক ভারত। কিন্তু কাঙ্ক্ষিত জয় পেতে হলে এই ম্যাচে টাইগার বোলারদের জ্বলে উঠতে হবে।

অতীতেও দেখা গেছে, ভারতের বিপক্ষে যেসব ম্যাচ বাংলোদেশ জিতেছে অথবা জয়ের কাছাকাছি গেছে, তাতে বেশিরভাগ অবদান বোলারদের।

নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে বাংলাদেশ চার পেসার নিয়ে খেলেছিল। ভারতের বিপক্ষেও বোলিং আক্রমণ তেমনটিই থাকার সম্ভাবনা। আবহাওয়ার কারণে হেরফের দলে জায়গা পেতে পারেন স্পিন অলরাউন্ডার মেহেদী হাসান মিরাজ। এছাড়া ফর্মহীনতায় ভুগতে থাকা সৌম্য সরকারের জায়গায় ওপেনিংয়ে সুযোগ পেয়ে যেতে পারেন ইমরুল কায়েস।

অন্যদিকে বাংলাদেশ দলের বিপক্ষে পেসার উমেশ যাদবের রেকর্ড ভালো। কিন্তু দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ভারতীয় দল উইনিং কম্বিনেশন ভাঙতে না চাইলে তাকে ড্রেসিং রুমেই কাটাতে হবে।
ক্রিকইনফো জানাচ্ছে, দ্বিতীয় সেমিফাইনালের পিচে সাম্প্রতিক সময়ে কোনো ম্যাচ হয়নি। সেক্ষেত্রে যে কোনো সময় ম্যাচের মোড় ঘুরে যেতে পারে। আর আবহাওয়া কোনো ধরনের ধামেলা করবে না বলেই পূর্বাভাস পাওয়া গেছে।

বিশ্বকাপের পর থেকে ভারতের তুলনায় বাংলাদেশ এগিয়ে রয়েছে। দুটি দলই ১১টি করে ম্যাচ জিতেছে। তবে এই সময়ে ভারত ১৩টি আর বাংলাদেশ ১০টি ম্যাচে হেরেছে।

ম্যাচ পূর্ব সংবাদ সম্মেলনে ভারতীয় অধিনায়ক বিরাট কোহলি বলেন, ‘বাংলাদেশ সত্যিকার অর্থেই তাদের ক্রিকেটে দারুণ উন্নতি করেছে। বেশ কয়েকজন আছেন, যারা দায়িত্ব নিয়ে খেলছেন। তাদের সেমিফাইনালে ওঠা বিস্ময়কর কিছু নয়। নিজেদের দিনে বাংলাদেশ ভয়ঙ্কর, সেটি সবারই জানা।’

ম্যাচ পূর্ব সংবাদ সম্মেলনে বাংলাদেশ দলনেতা মাশরাফি মুর্তজা বলেন, ‘আমরা জানি, নিজেদের দিনে আমরা যে কোনো কিছুই করতে পারি।’

বাংলাদেশ দল (সম্ভাব্য)
তামিম ইকবাল, সৌম্য সরকার, সাব্বির রহমান, মুশফিকুর রহীম, সাকিব আল হাসান, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, মোসাদ্দেক হোসেন, তাসকিন আহমেদ, মাশরাফি বিন মুর্তজা (অধিনায়ক), রুবেল হোসেন ও মোস্তাফিজুর রহমান।

ভারতীয় দল (সম্ভাব্য)
রোহিত শর্মা, শিখর ধাওয়ান, বিরাট কোহলি (অধিনায়ক), যুবরাজ সিং, মহেন্দ্র সিং ধোনি, কেদার যাদব, হার্দিক পান্ডিয়া, রবীন্দ্র জাদেজা, ভুবনেশ্বর কুমার, রবিচন্দ্রন অশ্বিন ও জসপ্রিত বুমরাহ।

মতামত