টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

চট্টগ্রামে একদিনে পাহাড়-দেয়ালধস ও বজ্রপাতে ৩০ জনের মৃত্যু

চট্টগ্রাম, ১৩ জুন ২০১৭ (সিটিজি টাইমস):: নিম্নচাপের প্রভাবেটানা বৃষ্টিতে চট্টগ্রামে পাহাড় ও দেয়াল ধসসহ বিভিন্ন ঘটনায় ৩০ জন মারা গেছেন। এর মধ্যে চন্দনাইশ, রাঙ্গুনিয়া ও রাউজানে পাহাড়ধসে নারী-শিশুসহ ২৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। এছাড়া বাঁশখালী ও নগরীর হালিশহরে দেয়ালধসে দুজন এবং বাকলিয়ায় ও মিরসরাইয়েবজ্রপাতে দুজনের মৃত্যু হয়েছে।

এদিকে প্রশাসনের হিসাব অনুযায়ী মঙ্গলবার ভোর রাত থেকে বিকাল পর্যন্ত চট্টগ্রামের রাঙ্গুনিয়া ও চন্দনাইশে পাহাড় ধসে মারা গেছে ২৫ জন। এর মধ্যে রাঙ্গুনিয়ায় ২১ এবং চন্দনাইশে চারজনের মৃত্যু হয় । এছাড়া রাউজানে নদীতে ভেসে গিয়ে একজন, বাঁশখালীর বাহারছড়ায় গাছচাপায় একজন, নগরীর হালিশহরে দেয়াল চাপায় একজন এবং বাকলিয়ায় বজ্রপাতে একজনের মৃত্যুর খবর জানা গেছে।

বিষয়টি নিশ্চত করেন চট্টগ্রামের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মাসুকুর রহমান সিকদার ।

রাঙ্গুনিয়া

রাঙ্গুনিয়া উপজেলার ইসলামপুর ও রাজানগর ইউনিয়নে পাহাড়ধসে দুই পরিবারের আটজনসহ ২১ জনের মৃত্যুর কথা জানিয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মোহাম্মদ কামাল হোসেন বলেন,  সকালেই পাহাড় ধসের ঘটনা জানাজানি হলেও দুর্গম পাহাড়ি এলাকা হওয়ায় ফায়ার সার্ভিসসহ উদ্ধারকারী দলের সদস্যদের ঘটনাস্থলে পৌঁছাতে বেগ পেতে হয়।

 

রাঙ্গুনিয়ার এই দুই জায়গায় পাহাড় ধস ও পাহাড়ি ঢলে বেশকয়েকজন নিখোঁজ রয়েছেন বলে উপজেলা প্রশাসনের কর্মকর্তারা জানিয়েছেন।

চন্দনাইশ

উপজেলার ধোপাছড়ি ইউনিয়নের দুই নম্বর ওয়ার্ডের শামুকছড়ি ও ছনবনিয়া এলাকায় পৃথক দুটি পাহাড় ধসের ঘটনায় দুই পরিবারের শিশুসহ চারজন মারা গেছেন বলেচন্দনাইশ থানার ওসি ফরিদ উদ্দিন খন্দকার জানান।

 

এদিকে চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসনের নিয়ন্ত্রণ কক্ষ থেকে জানানো হয়, চট্টগ্রামের রাউজানে পাহাড়ি ঢলে ভেসে নদীতেগিয়ে এক যুবক মারা গেছে।বাঁশখালীর বাহারছড়া ইউনিয়নের রত্নপুর গ্রামে গাছচাপায় মারা গেছে এনায়েতুল হক (৭) নামে এক শিশু। তার বাবার নাম কবির আহমেদ। চট্টগ্রাম নগরীর আছদগঞ্জে ভোররাতে বজ্রপাতে মোহাম্মদ দেলোয়ার (১৯) নামে একটি ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠানের কর্মচারী মারা যান।অপরদিকে হালিশহরের বারুনিঘাটা এলাকায় দেয়াল চাপায় নিহত হয় মোহাম্মদ হানিফ (৪৫) নামে এক ব্যক্তি।

এছাড়া মিরসরাইয়ে বজ্রপাতে আবুল বশর (৬০) নামে এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন।

মতামত