টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

বাংলাদেশের টিকে থাকার লড়াই আজ

চট্টগ্রাম, ০৫ জুন ২০১৭ (সিটিজি টাইমস):: বাংলাদেশ ক্রিকেট দল চলতি চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির উদ্বোধনী ম্যাচে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে তিন শতাধিক রান তুলেও হেরেছে। নিউজিল্যান্ড ও অস্ট্রেলিয়ার মধ্যকার দ্বিতীয় ম্যাচটা বৃষ্টিতে ধুয়ে গেলেও সেই ম্যাচে ব্যাকফুটে ছিল অজিরা। বাংলাদেশ ও অস্ট্রেলিয়ার মধ্যে ব্যবধান এক পয়েন্টের। নিউজিল্যান্ডের সঙ্গে ম্যাচটা পরিত্যক্ত হওয়াতে এক পয়েন্ট পেয়েছে অজিরা। অন্যদিকে বাংলাদেশের ঝুলিতে পয়েন্ট নেই। পয়েন্ট টেবিলের এরকম অবস্থায় চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির ‘এ’ গ্রুপের ম্যাচে সোমবার বাংলাদেশ সময় সন্ধ্যা সাড়ে ছয়টায় লন্ডনের দ্য ওভালে দিবারাত্রির প্রথম অজিদের মুখোমুখি হবে টাইগাররা। এ ম্যাচে অস্ট্রেলিয়ার লক্ষ্য থাকবে জয়ের মধ্য দিয়ে সেমিফাইনালের পথে এগিয়ে যাওয়া। অন্যদিকে হারলেই সেমির দৌড় থেকে ছিটকে যাবে বিধায় বাংলাদেশ দল অন্তত জয়ের চেষ্টার কমতি রাখবে না।

ইংল্যান্ডের বিপক্ষে আজকের ভেন্যুতেই উদ্বোধনী ম্যাচ খেলেছিল বাংলাদেশ। সেই ম্যাচে তামিম ইকবাল খেলেছিলেন শতরানের ইনিংস। উইকেটকিপার-ব্যাটসম্যান মুশফিকুর রহিমের ব্যাট থেকে আসে হাফ-সেঞ্চুরির ইনিংস। সৌম্য সরকার বড় স্কোরের আশা জাগিয়েও চিরাচরিতভাবে আউট হয়ে হতাশার জন্ম দেন। ব্যাটিং লাইনআপের গভীরতা বাড়াতে ওয়ানডাউনে ইমরুল কায়েসকে রেখে ছয় নম্বর পজিশনে হার্ডহিটার সাবি্বর রহমানকে খেলিয়েছে থিংক ট্যাংক। এ নিয়ে সমালোচনার শেষ নেই। বলাবলি হচ্ছে ইমরুলকে না খেলিয়ে মিরাজকে খেলানো হলে একজন বোলার বেশি পাওয়া যেত। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে মিরাজের স্পিন এবারের চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির ব্যাটিং সহায়ক পিচে কতটুকু কার্যকর হতো সে বিষয়ে না ভেবেই যে মন্তব্যগুলো করা হচ্ছে, তা বলা বাহুল্য। প্রথম ম্যাচে সাবি্বর রহমান শেষদিকে নেমে ধূম ধাড়াক্কা পেটাতে গিয়ে সেট হওয়ার সময়ই পাননি। মাহমুদুল্লাহও ক্রিজে সেট হওয়ার সময় পাননি। সবকিছুকে ছাপিয়ে সমালোচনার তীর ছুটেছে সাকিব আল হাসানের দিকে। বোলিং বা ব্যাটিং কোনটাতেই অনেকদিন ধরে দলে কোন অবদান রাখতে পারছেন না তিনি। সাকিব নিজের সেরা সময় পেরিয়ে এসেছেন কিনা, তা নিয়েও প্রশ্ন উঠেছে। যাহোক বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানদের তোলা তিনশ’ পাঁচ রান ইংলিশ ব্যাটসম্যানরা যেভাবে টপকে গেছে, তাতে বোলিং ডিপার্টমেন্টও কাঠগড়ায়। কাজেই দুটো আসরে বাইরে থাকার পর চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে খেলার সুযোগ পাওয়া বাংলাদেশ দলের এই টুর্নামেন্টে টিকে থাকতে হলে অজিদের বিপক্ষে জয়ের বিকল্প নেই।

কিন্তু ডেভিড ওয়ার্নার, অ্যারন ফিঞ্চ, স্টিভেন স্মিথ, গ্লেন ম্যাক্সওয়েল ও মোয়েসে হেনরিকসের মতো বিধ্বংসী ব্যাটসম্যান সমৃদ্ধ অস্ট্রেলিয়ান দলকে টাইগার বোলাররা কতটা আটকে রাখতে পারবেন, তা নিয়ে প্রশ্ন থাকছেই। নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে অস্ট্রেলিয়ান বোলিং ডিপার্টমেন্ট শুরুতে কিছুটা ছন্নছাড়া হলেও একটা পর্যায়ে জস হ্যাজেলউডের তোপের কাছে আত্মসমর্পণ করেন কিউই ব্যাটসম্যানরা। ছয়টি উইকেট শিকারের মধ্য দিয়ে হ্যাজেলউড সেদিন কিউইদের রান তিনশ’র কোটায় পৌঁছতে দেননি। বৃষ্টির কারণে ৪৬ ওভারে নামিয়ে আনা ম্যাচে অস্ট্রেলিয়ার ব্যাটিং ডিপার্টমেন্টও খুব একটা সুবিধা করতে পারছিল না। শেষ পর্যন্ত বৃষ্টির কারণে ম্যাচ পরিত্যক্ত হওয়ায় খোদ অজি অধিনায়ক স্টিভেন স্মিথ হাঁফ ছেড়ে বাঁচার কথা বলেছিলেন।

বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানরা এখন অনেক পরিণত। স্পিন বোলিংয়ের বিপক্ষে টাইগার বোলারদের সাবলীল ব্যাটিং কারো অজানা নয়। এবারের ইংলিশ কন্ডিশনে ওয়ার্মআপে পাকিস্তানের কাছে এবং প্রথম ম্যাচে ইংল্যান্ডের কাছে পরাজিত হলেও প্রতিটা ম্যাচেই তিন শতাধিক রান তুলে বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানরা নিজেদের ক্ষমতার জানান দিয়েছে।

আজকের ম্যাচের একাদশ নির্বাচন নিয়ে থিংক ট্যাংক কিছুটা হলেও দোদুল্যমানতার মধ্যে আছে। সাকিবের স্পিনের ওপর নির্ভর করা যাচ্ছে না। ফলে মেহেদি মিরাজকে একাদশে জায়গা দেয়া হতে পারে। সেক্ষেত্রে ইমরুল কায়েস বা মোসাদ্দেক হোসেন বাদ পড়বেন। রুবেল হোসেনের জায়গায় দেখা যেতে পারে তাসকিন আহমেদকে। এছাড়া ১ জুন তারিখে প্রথম ম্যাচে ইংল্যান্ডের মোকাবিলা করা টাইগার একাদশে আর কোন পরিবর্তনের সম্ভাবনা নেই।

অন্যদিকে অস্ট্রেলিয়ানরা সম্ভবত নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে খেলা একাদশটাকেই অপরিবর্তিত রেখে মাঠে নামবে।

সম্ভাব্য একাদশ

বাংলাদেশ: তামিম ইকবাল, সৌম্য সরকার, ইমরুল কায়েস, সাবি্বর রহমান, মুশফিকুর রহিম (উইকেটকিপার), সাকিব আল হাসান, মাহমুদুল্লাহ, মেহেদি হাসান মিরাজ, মাশরাফি মোর্তুজা (অধিনায়ক), মোস্তাফিজুর রহমান, রুবেল হোসেন/তাসকিস আহমেদ ।

অস্ট্রেলিয়া: ডেভিড ওয়ার্নার, অ্যারন ফিঞ্চ, স্টিভেন স্মিথ (অধিনায়ক), ময়েসে হেনরিকস, গ্লেন ম্যাঙ্ওয়েল, ট্রেভিস হেড, ম্যাথু ওয়েড (উইকেটকিপার), জন হেস্টিংস, মিচেল স্টার্ক, প্যাট কামিন্স ও জস হ্যাজেলউড।

মতামত