টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

আবগারি শুল্ক ইস্যুতে পিছু হটছে সরকার

চট্টগ্রাম, ০৩ জুন ২০১৭ (সিটিজি টাইমস):: প্রস্তাবিত বাজেটে ব্যাংকে ১ লাখ টাকার উপরে আমানতে আবগারি শুল্ক না বাড়ানোর ইঙ্গিত দিয়েছেন অর্থ ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী এমএ মান্নান। শনিবার রাজধানীর লেকশোর হোটেলে মেট্রোপলিটন চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি (এমসিসিআই) আয়োজিত বাজেট পরবর্তী এক আলোচনায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ ইঙ্গিত দেন।

তিনি বলেন, ব্যাংকের আবগারি শুল্ক বাড়ানোর বিষয়ে যে হারে সমালোচনা হচ্ছে তাতে সরকার প্রস্তাবিত আবগারি শুল্ক থেকে পেছনে ফিরবে। জাতীয় সংসদে এ নিয়ে অবশ্যই আলোচনা হবে। সে সময় ব্যাংকের আমানতের উপর শুল্ক পূর্বেরটা বহাল রাখা হতে পারে বলে জানান তিনি।

এমসিসিআই সভাপতি রোকেয়া আফজাল রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন সাবেক গভর্নর ফরাসউদ্দীন, অর্থনীতিবিদ আহসান এইচ মনসুর।

এর আগে গত বৃহস্পতিবার জাতীয় সংসদে আগামী ২০১৭-১৮ অর্থবছরের জন্য ৪ লাখ ২২৬ কোটি টাকার প্রস্তাবিত বাজেট উত্থাপন করেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত।

প্রস্তাবিত বাজেটে রাজস্ব আহরণ বৃদ্ধির লক্ষ্যে মুহিত ব্যাংক হিসাবে রাখা আমানতের উপর আবগারি শুল্ক বাড়ানোর কথা বলেছেন। ব্যাংক হিসাবের উপর ধার্য করা নতুন আবগারি শুল্ক অনুযায়ী এক লাখ টাকা পর্যন্ত আমানত রাখলে কোনো আবগারি শুল্ক দিতে হবে না।

তবে এক লাখ টাকার উপর থেকে ১০ লাখ টাকা পর্যন্ত রাখলে ৮০০ টাকা আবগারি শুল্ক দিতে হবে। যা বর্তমানে আছে ৫০০ টাকা। আর ১০ লাখ টাকার উপর থেকে ১ কোটি টাকা পর্যন্ত ব্যাংকে টাকা রাখলে ২ হাজার ৫০০ টাকা কেটে রাখা হবে। যা বর্তমানে আছে ১ হাজার ৫০০ টাকা।

একই সঙ্গে ১ কোটি টাকার উপর থেকে ৫ কোটি টাকা পর্যন্ত ব্যাংকে রাখলে আবগারি শুল্ক দিতে হবে ১২ হাজার টাকা, যা বর্তমানে আছে ৭ হাজার ৫০০ টাকা। আর ৫ কোটি টাকার উপর ব্যাংকে টাকা রাখলে কেটে রাখা হবে ২৫ হাজার টাকা। বর্তমানে ৫ কোটি টাকার বেশি ব্যাংকে রাখলে ১৫ হাজার টাকা আবগারি শুল্ক বাবদ কেটে রাখা হয়।

মতামত