টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

পটিয়ায় বিদ্যু‍তের দাবিতে ভাঙচুর

চট্টগ্রাম, ০৩ জুন ২০১৭ (সিটিজি টাইমস):: পটিয়ার ইন্দ্রপুলে অবস্থিত পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-১ এর কার্যালয়ে শনিবার (৩ জুন) বেলা সোয়া ১১টার দিকে ভাঙচুর চালিয়েছে স্থানীয়রা। দক্ষিণের সাত উপজেলার বিদ্যুৎ সংযোগ এখান থেকে নিয়ন্ত্রণ করা হয়।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-১’র মহাব্যবস্থাপক এএইচএম মোবারক উল্লাহ  বলেন, ‘মোরার কারণে কয়েকদিন বিদ্যুৎ সংযোগে সমস্যা ছিল। কিন্তু শুক্রবার থেকেই আমি প্রায় ৯৮ শতাংশ এলাকায় বিদ্যুৎ সংযোগ চালু করেছি। এরপর থেকে তেমন কোনো সমস্যা হচ্ছে না। কিন্তু হঠাৎ করে কিছু লোক এসে সবকিছু ভাঙচুর করে চলে গেল। এতে অন্যকিছুর উসকানি থাকতে পারে। কাচের পাশাপাশি চারটি কম্পিউটার একটি ল্যাপটপ ভাঙচুর করা হয়েছে। এছাড়া এই ঘটনায় আমাদের দুজন ক্যাশিয়ার আহত হয়েছেন। আমরা বিষয়টি উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানিয়েছি। এই ঘটনায় ভিডিও ফুটেজ দেখে জড়িতদের দায়ী করে আইনানুগ ব্যবস্থা নেব।

কার্যালয়ের কর্মকর্তাদের দাবি, মোরার কারণে কয়েকদিন বিদ্যুৎ সমস্যা থাকলেও শুক্রবার থেকে ৯৮ শতাংশ এলাকায় বিদ্যুৎ সংযোগ সচল হয়েছে। বিদ্যুৎ সংযোগ নিয়ে বাণিজ্য করতে না পেরে স্থানীয় কিছু প্রভাবশালী ব্যক্তির উসকানিতে এই ঘটনা ঘটেছে। এতে প্রায় দশ লাখ টাকার জিনিসপত্র নষ্ট হয়েছে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে পটিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নেয়ামত উল্লাহ বলেন, ‘বিদ্যুতের দাবিতে গ্রাহকরা পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-১ কার্যালয়ে ভাঙচুর করছে এমন খবর পেয়েই দ্রুত আমরা ঘটনাস্থলে আসি। ভাঙচুর মাত্র কয়েক মিনিট স্থায়ী ছিল। তারা কার্যালয়ের বেশকিছু কাচ ভাঙচুর করেছে। যতদুর জেনেছি তিন-চারদিন ধরে বিভিন্ন এলাকায় বিদ্যুৎ নিয়ে কষ্ট পাচ্ছিল মানুষ। তারাই মূলত ক্ষুব্ধ হয়ে ভাঙচুর চালিয়েছে। এখানে অন্যকিছু আছে বলে মনে হচ্ছে না। তবে পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-১ কর্তৃপক্ষ যদি অভিযোগ দেয় তাহলে আমরা আইনগত ব্যবস্থা নেব।’

মতামত