টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

দাম বাড়ছে যেসব পণ্যের

চট্টগ্রাম, ০১ জুন ২০১৭ (সিটিজি টাইমস): নতুন মূল্য সংযোজন কর ও সম্পূরক শুল্ক আইন আগামী ১ জুলাই থেকে বাস্তবায়ন হচ্ছে। নতুন আইনে আমদানি ও স্থানীয় পর্যায়ে উৎপাদিত বেশকিছু পণ্যে শুল্ক (সিডি), সম্পূরক শুল্ক (এসডি) বাড়ানো হয়েছে। সম্পূরক শুল্কের হার ক্ষেত্রবিশেষ ২০ শতাংশ থেকে বাড়িয়ে ২৫ শতাংশ এবং ৪৫ শতাংশ থেকে বাড়িয়ে করা হচ্ছে ৫০ শতাংশ। ফলে এসব পণ্যের দাম বাড়বে।

বৃহস্পতিবার জাতীয় সংসদে ২০১৭-১৮ অর্থবছরের বাজেট প্রস্তাবনায় অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত এসব পণ্যের ওপর শুল্ক বাড়ানোর কথা বলেন।

শুল্ক বাড়ার ফলে দাম বাড়ার তালিকায় রয়েছে বিদেশি ব্রান্ডের রঙ্গিন টিভি, টিভি কার্ড, ইমিটেশন জুয়েলারি: লিথিয়াম, লেড এসিড, ম্যাঙ্গানিজ ডাই অক্সাইডসহ সব ধরনের ব্যাটারি। ব্যক্তিগত গাড়িতে ব্যবহৃত ব্যাটারিসহ, আইপিএস, ইউপিএসে ব্যবহৃত ব্যাটারির দাম বাড়বে।

ওভারকোট, কার-কোট, কেইপ, ক্রোক, অ্যানোরাক, উইন্ডচিটার, উইন্ড-জ্যাকেট ও সমজাতীয় পণ্য বা নিটেড ও ক্রশেটেড পণ্য, ছেলে ও মেয়েদের স্যুট, ইনসিম্বল, জ্যাকেট, বেলজার, ট্রাউজার, বিব ও ব্রেস ওভারঅল, ব্রিচ ও শর্টস জাতীয় পণ্যে, ছেলেদের শার্ট, নিটেড, মেয়েদের ব্লাউজ, শার্ট ও শার্ট ব্লাউজ জাতীয় পণ্যে ৪৫ শতাংশের স্থলে ৫০ শতাংশ সম্পূরক শুল্ক দিতে হবে।ফলে এসব পণ্যের দাম বাড়বে।

তালিকার আরও আছে : আন্ডারপ্যান্ট, ব্রিফ, নাইটশার্ট, পায়জামা, বাথরোব, ড্রেসিং গাউন, স্লিপ, পেটিকোট, প্যান্টি, নেগলেজি, টি-শার্ট, সিংলেট ও অন্যান্য ভেস্ট, জার্সি, পুলওভার, কার্ডিগান, ওয়েস্টকোটসহ সমজাতীয় পণ্যে, শিশুদের গার্মেন্টস ও ক্লোদিং এক্সেসরিজ, নিটেড ও ক্রশেটেড ফেবিক্সের তৈরি গার্মেন্টস, প্যান্টি হোস, টাইটস, স্টকিংস, সকস ও অন্যান্য হোসিয়ারী, গ্লাভস, মিটেনস ও মিটস, সব ধরনের তৈরি পোশাক ও অন্তর্বাস বা সমজাতীয় পণ্য।

ট্র্যাক স্যুট ও অন্যান্য গার্মেন্টস, সব ধরনের পশমী কম্বল, বেড, টেবিল, টয়লেট ও কিচেন লিনেন, পর্দা ও ইন্টেরিয়র ব্লাইন্ড ও অন্যান্য আসবাবে ২০ শতাংশের স্থানে শুল্ক ২৫ শতাংশ করায় দাম বাড়বে।

রাবার, ফুটওয়্যার, প্লাস্টিকজাতীয় পণ্যে ৫ শতাংশ বাড়িয়ে শুল্ক ৫০% করা হয়েছে। আর্টিফিসিয়াল ফুল, সিরামিক বিল্ডিং ব্রিকস, ফ্লোরিং ব্লকস, ফিলার টাইলস, চিমনিসহ অন্যান্য সিরামিক সামগ্রীতে ২০ শতাংশের জায়গায় কর ২৫ শতাংশ করা হয়েছে।

সম্পূর্ণভাবে রংকৃত নন ওয়্যারড শীট আকারে কাস্ট অথবা রোল গলাস, ড্রন ও ব্রোন গলাস শীট, ফ্রেমবিহীন ও ফ্রেমযুক্ত অন্যান্য কাঁচের আয়না, অমসৃণ হীরা, ইমিটেশন জুয়েলারীতে সম্পূরক শুল্ক ২৫ শতা্ংশ করা হয়েছে। এতোদিন এটা ছিল ২০ শতাংশ। টেবিল, রান্নাঘর, টয়লেট, অফিস, ইনডোর ডেকোরেশেন অথবা একইরূপ উদ্দেশে ব্যবহারের উপযোগী কাঁচের তৈজসপত্রে শুল্ক ৪৫ শতাংশের স্থলে ৫০ শতাংশ করা হয়েছে। কাস্ট আয়রনের তৈরি টিউব পাইপস, অয়েল বা গ্যাস পাইপ লাইনে ব্যবহৃত লাইন পাইপ, অয়েল ও গ্রাসের ড্রিলিং কাজে ব্যবহৃত কেসিং ও টিউবিং, লীফ স্প্রীং, গ্যাস জ্বালানির উপযোগী বা গ্যাস এবং অন্যান্য উভয় জ্বালানির উপযোগী রান্নার তৈজসপত্র, পেলট গরমকারক, স্টেইনলেস স্টীলের সিঙ্ক, ওয়াস বেসিন উহার যন্ত্রাংশ, ওয়াটার ট্যাপ, বাথরুমের অন্যান্য ফিটিংস ও ফিক্সার্স, কপারের তৈরি সেনিটারি ওয়্যার ও যন্ত্রাংশ, পেপার/পেপার বোর্ড দ্বারা ব্যাক্ড অ্যালুমিনিয়াম ফয়েল, অ্যালুমিনিয়াম স্যানিটারি ওয়্যার ও যন্ত্রাংশ, রেজর, স্টেইনলেস স্টীল বেলড, দুই/চার স্ট্রোক বিশিষ্ট অটো রিক্সা/থ্রি হুইলারের ইঞ্জিন বা সমজাতীয় পণ্যে ২০ শতাংশ শুল্ক বিদ্যমান আছে। বাজেটে সেটি ২৫ শতাংশ করার প্রস্তাব দেয়া হয়েছে।

একইভাবে ফিল্টার, ম্যাঙ্গানিজ ডাই, সিলভার, লিথিয়াম অক্সাইড ব্যাটারি, লীড এসিড ব্যাটারি ও ইলেকট্রিক অ্যাকুমুলেটর,কয়েন, ব্যাংকনোট, ব্যাংক কার্ড, টোকেন দ্বারা চালিত সাউন্ড রেকর্ডিং বা রিপ্রোডিউসিং এপারেটস, টার্ণ টেবলস, ভিডিও রেকর্ডিং বা রিপ্রোডিউসিংয়ের যন্ত্রপাতি, অন্যান্য সাউন্ড রেকর্ডিং, লেটেড প্রিন্টেড সার্কিট বোর্ড জাতীয় পণ্য, পকেট সাইজ রেডিও ক্যাসেট প্লেয়ার, রঙিন টেলিভিশন,টিভি কার্ডসহ টেলিভিশন পার্টস –এ সম্পূরক শুল্ক ২০ শতাংশ থেকে বাড়িয়ে ২৫ শতাংশ করার প্রস্তাব দেয়া হয়েছে।

প্রতিটি সিম কার্ডেও শুল্ক ৫ শতাংশ বাড়িয়ে ২৫ করা হচ্ছে।

অযান্ত্রিক বাই-সাইকেল ও অন্যান্য সাইকেল, এসব সাইকেলের চাকার রিম ও স্পোক, মোটর সাইকেলের ফুয়েল ট্যাংক, আসবাবপত্র ও যন্ত্রাংশ, ডেন্টাল প্লেট ব্রাশসহ সব ধরণের টুথব্রাশে নতুন আইনে শুল্ক ২০ থেকে ২৫ শতাংশ করার প্রস্তাব দেয়া হয়েছে।

মতামত