টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

আতঙ্কে মানসিক পীড়ায় ভুগছেন সাফাতের পুরানো বান্ধবীরা!

চট্টগ্রাম, ১৫ মে ২০১৭ (সিটিজি টাইমস):: বহুল আলোচিত বনানীর রেইন ট্রি হোটেলে বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের দুই ছাত্রী ধর্ষণ মামলার প্রধান আসামি সাফাত আহমেদের পুরানো বান্ধবীদের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে। তারা এক অজানা ভীতির মধ্যে রয়েছেন বলে জানা যাচ্ছে।

এতদিন সাফাতের সঙ্গে যারা ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক গড়ে একসঙ্গে চলাফেরা ও সেলফি তুলেছেন তারাই বেশি আতঙ্কে রয়েছেন। বিশেষ করে সাফাত গ্রেপ্তারের পর রিমান্ডে যাওয়ার পর এ আতঙ্ক তাদের বেশি করে তাড়া করছে। কেননা, রিমান্ডে সাফাত অনেক তথ্যই প্রকাশ করছেন যা অন্যদেরকেও বিব্রত করছে।

গত দুইদিনের রিমান্ডে সাফাত আহমেদ বলেছেন, শুধু ওই দুই ছাত্রীর সঙ্গেই নয়, তার ছিল একডজন ঘনিষ্ঠ বান্ধবী এবং চার জন নায়িকা। এদের সবার সঙ্গেই মেলামেশা করতেন তিনি। এর মধ্যে ৪ নায়িকার সঙ্গে নিয়মিতই মেলামেশা হতো তার। রিমান্ডে তিনি সবার নামই প্রকাশ করেছেন।যত সম্পর্ক তিনি মেয়েদের সঙ্গে করেছেন একটিও জোর করে নয়, সবই অর্থের বিনিময়ে।’

সাফাতের এমন তথ্যে আতঙ্কিত হয়ে পড়েছেন তার পুরানো বান্ধবী। কেননা, ছোটকাল থেকেই সাফাত ছিল উচ্ছৃঙ্খল জগতে বালক। বাবার বিশাল সম্পদের প্রতাপে স্কুল জীবন থেকেই অবৈধ যৌনচারিতায় লিপ্ত হয়ে পড়ে। অনেকের সঙ্গেই গড়ে উঠে তার সখ্যতা। এতে অনেকেই সাফাতের সঙ্গে তোলা সেলফি নিয়েও বিব্রত। কেননা, অনেক মিডিয়ায় সাফাতের অন্ধকার জগতের সংবাদ প্রকাশ করতে গিয়ে পুরানো বান্ধবীদেরও ছবি জুড়ে দিচ্ছে। এতে অনেকেই বিব্রত।

এদিকে সাফাতের আত্মীয়-স্বজন ও পরিচিতজনরা বিব্রত বলে জানা যাচ্ছে। এ ঘটনা ফাঁস হওয়ার পর থেকে ওই পরিবারের সঙ্গে আত্মীয়-স্বজন ও পরিচিতজনরাও এড়িয়ে চলছেন বলে জানা যাচ্ছে। অবশ্য এ কথা সাফাতের মা নিজেই সাংবাদিকদের জানিয়েছেন।

মতামত