টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

চট্টগ্রামে ১০ ভ্রাম্যমান ট্রাকে কেজিতে ২০ টাকা কমিয়ে পণ্য বিক্রি করবে টিসিবি

চট্টগ্রাম, ০৯ মে ২০১৭ (সিটিজি টাইমস):: চট্টগ্রামে ১০ টি ভ্রাম্যমান ট্রাকে বাজারমূল্যের চেয়ে কেজিতে প্রায় ২০ টাকা কমিয়ে রোজায় ক্রেতাদের অতিপ্রয়োজনীয় পাঁচটি পণ্য বিক্রি করবে সরকারি সংস্থা টিসিবি। ১৫ মে থেমে শুরু হবে এ কার্যক্রম। পণ্যগুলো হলো চিনি, মসুর ডাল, সয়াবিন তেল, ছোলা ও খেজুর।

খুচরা বাজারে এক কেজি চিনির মূল্য ৬৬ থেকে ৭০ টাকা। আর টিসিবি তা ৫৫ টাকায় বিক্রি করবে। খুচরা বাজারে মসুর ডাল (মাঝারি দানার) প্রতি কেজি ৯০ থেকে ১০০ টাকায় বিক্রি হলেও টিসিবি বিক্রি করবেমাত্র ৮০ টাকায়। টিসিবি এক লিটার সয়াবিন তেল ৮৫ টাকায় বিক্রির সিদ্ধান্ত নিলেও খোলা বাজারে এর দাম ১০০-১০৬ টাকা। খোলা বাজারে এককেজি ছোলা বিক্রি হচ্ছে ৮৫ থেকে ৯০ টাকা। টিসিবি অষ্ট্রেলিয়া থেকে আমদানি করা ছোলা বিক্রি করবে ৭০ টাকায়। আর বাজারে এখন সাধারণ মানের খেজুর বিক্রি হচ্ছে ১৫০ থেকে ২৫০ টাকার মধ্যে। টিসিবি প্রতিকেজি খেজুরের মূল্য নির্ধারণ করেছে ১২০ টাকা।

পবিত্র রমজান ও ঈদ উল ফিতরকে সামনে রেখে সারাদেশে ১৮৫টি ভ্রাম্যমান ট্রাকের মাধ্যমে এসব পণ্য বিক্রি করবে টিসিবি। ঢাকায় থাকবে ৩০টি ট্রাক। এছাড়া চট্টগ্রামে ১০টি, অন্যান্য বিভাগীয় শহরে পাঁচটি করে এবং প্রত্যেক জেলা সদরে দুটি করে ট্রাক পণ্য বিক্রি করবে।

একজন ভোক্তা প্রতিদিন চার কেজি চিনি, তিন কেজি মশুর ডাল, পাঁচ লিটার সয়াবিন তেল ও ছোলা এবং এক কেজি খেজুর নিতে পারবেন। গেল বছর পণ্য বিক্রি করে টিসিবি ভর্তুকি দেয় প্রায় ৩৪ কোটি টাকা। এবারও সমপরিমাণ অর্থ ভর্তুকির আশংকা করছে টিসিবি।

টিসিবি ডিলার অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি ফরিদ উদ্দিন আহমেদ জুয়েল বলেন, অন্যান্য বছরের তুলনায় এবার টিসিবি’র পণ্য ভালো। তবে, বিশাল চাহিদার তুলনায় পণ্যের বরাদ্দ দেয়া হচ্ছে সামান্য।

টিসিবি’র মুখপাত্র, হুমায়ুন কবির বলেন, রোজার মাসে ক্রেতারা যাতে নায্যমূল্যে পণ্য কিনতে পারে সেই উদ্যোগ নিয়েছে টিসিবি। জনবহুল এলাকায় চলবে এই বিক্রি কার্যক্রম। বাজার মূল্যের চেয়ে কম দামে পণ্য পাবেন ক্রেতা। টিসিবি’র পণ্য কালোবাজারে বিক্রি ঠেকাতে তদারকি ব্যবস্থা জোরদার করা হবে।

মতামত