টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

মিরসরাইয়ে যুবলীগ নেতাকে কুপিয়ে হত্যা

এম মাঈন উদ্দিন
মিরসরাই (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি 

চট্টগ্রাম, ০৮ মে ২০১৭ (সিটিজি টাইমস): চট্টগ্রামের মিরসরাইয়ে এক যুবলীগ নেতাকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে খুন করেছে সন্ত্রাসীরা।তার নাম গোলাম মোস্তফা (৪০)। রবিবার (৭ মে) রাত আনুমানিক সাড়ে ১২টার সময় উপজেলার ১ নম্বর করেরহাট ইউনিয়নের দক্ষিণ অলিনগর এলাকায় এই হত্যাকান্ডের ঘটনা ঘটেছে। নিহত মোস্তফা করেরহাট ইউনিয়ন আওয়ামী যুবলীগের সহ-সভাপতির দায়িত্বে ছিলেন বলে জানান ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ শেখ সেলিম। মোস্তফা অলিনগর এলাকার কালাম হুজুর বাড়ির আব্দুল ওয়াদুদ মজুমদারের পুত্র। তার এক ছেলে ও এক মেয়ে রয়েছে।

করেরহাট ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এনায়েত হোসেন নয়ন জানায়, প্রতিদিনের মত রবিবার রাতে স্থানীয় করেরহাট বাজার থেকে রাতে নিজ মোটরসাইকেলে (নং ফেনী ল ১১-৩১৮৫) গোলাম মোস্তফা বাড়ি ফিরছিলেন। নিজ বাড়ির সামনে রাস্তার উপর এলে আগে থেকে ওঁৎ পেতে থাকা সন্ত্রাসীরা ধারালো অস্ত্র দিয়ে তাকে কুপিয়ে রেখে পালিয়ে যায়। এতে ঘটনাস্থলেই গোলাম মোস্তফার মৃত্যু হয়।

পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, রাত সাড়ে ১১টার সময় তার স্ত্রী তাকে ফোন দিলে সে কিছুক্ষণ পরে বাড়ি ফিরছেন বলে জানায়। বাড়ি না ফেরায় পুনরায় তার স্ত্রী ও ভাই মোবাইলে কল দিলে রিসিভ হয়নি। তারা ভাবেন অনেক সময় রাজনৈতিক ও ব্যবসায়িক কারণে বাড়ি ফিরে না। এরপর সোমবার ভোরে বাড়ির সামনে রাস্তায় তার রক্তমাখা নিথর দেহ পড়ে থাকতে দেখে।

তার মৃত্যুর খবর পেয়ে সোমবার ভোরে গোলাম মোস্তফার বাড়িতে ছুটে যান করেরহাট ইউনিয়নের চেয়ারম্যান এনায়েত হোসেন নয়ন, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি সুলতান জসিম উদ্দিন, সাধারণ সম্পাদক মোঃ শেখ সেলিম সহ আওয়ামীলীগ, যুবলীগ ও ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা ছুটে যান।

তারা এই হত্যাকান্ডের সাথে যেই জড়িত থাক না কেন, তাদের খুঁজে বের করে শাস্তির আওতায় আনার দাবী জানান।

জোরারগঞ্জ থানার ওসি জাহিদুল কবির জানান, সোমবার ভোরের দিকে বাড়ির সামনে রাস্তার ওপর মোস্তফার লাশ পড়ে থাকতে দেখে তার স্ত্রী থানায় খবর দেন।

এএসপি সার্কেল ইঞ্জিনিয়ার মাহবুবুর রহমান জানান, মোস্তফা রাজনীতির পাশাপাশি বালু ও পোলট্রি ব্যবসা করতেন। জমি নিয়ে মোস্তফার পারিবারিক বিরোধ ছিল বলেও আমরা খবর পেয়েছি। তদন্তে সবকিছুই খতিয়ে দেখা হবে। লাশের ময়নাতদন্তের জন্য লাশ চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে (চমেক) মর্গে পাঠানো হয়েছে।

মতামত