টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

চট্টগ্রামে আটক চেয়ারম্যানের ভাইকে ছিনতাই

চট্টগ্রাম, ০৫ মে ২০১৭ (সিটিজি টাইমস):: চট্টগ্রামের বোয়ালখালী উপজেলার ৫ নম্বর সারোয়াতলী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান বেলাল হোসেনের ছোট ভাই সাইফুদ্দীন বাপ্পীকে পুলিশের কাছ থেকে ছিনিয়ে নিয়েছেন স্বজনরা।

শুক্রবার সন্ধ্যায় দ্বিতীয় দফায় সাইফুদ্দীন বাপ্পীকে আটকের পর তার ছোট ভাই সালাউদ্দিন রুমি ৫০-৬০ জন লোক নিয়ে পুলিশের ওপর হামলা চালিয়ে বাপ্পীকে ছিনিয়ে নেয়। এই হামলায় তিন পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন।

আহত পুলিশ সদস্যরা হলেন- চট্টগ্রাম নগরীর বায়েজিদ বোস্তামী থানার এসআই মোহাম্মদ আইয়ুব উদ্দিন, এসআই এইচ এম এরশাদ উল্লাহ ও চন্দগাঁও থানার এসআই মো. মফিজ উদ্দিন।

পুলিশের উপ-কমিশনার (উত্তর) মো. আব্দুল ওয়ারিশ খান জানান, এর আগে বৃহস্পতিবার রাত ১০টার দিকে সাইফুদ্দিন বাপ্পীকে আটক করতে গেলে পুলিশের ওপর হামলা চালিয়ে পালিয়ে আত্মগোপন করেন তারা। তবে তখন থেকে এ পর্যন্ত পুলিশ বাড়িটি ঘেরাও করে রাখে।

বৃহস্পতিবার রাতের অভিযানে পুলিশ চেয়ারম্যানের বাড়ি থেকে একটি বিদেশি রিভলবার, একটি শাটার গান, একটি এয়ারগান, চাইনিজ কুড়াল, বিভিন্ন সাইজের চারটি ধামা, ১৬টি বিভিন্ন সাইজের ছুরি, ওয়েল্ডিং মেশিন, বায়ু সরবরাহকারী মেশিন, লোহার ঘষার রেত, কাটা কম্পাস, ড্রিল মেশিনের মুখ, লোহার ছাঁচ, গ্লেন্ডার মেশিন, অস্ত্রের ম্যাগাজিন স্প্রিং, ছোট বড় প্লাস, ড্রিলিং স্কুসহ অস্ত্র তৈরির বিভিন্ন সরঞ্জাম উদ্ধার করা হয়।

আবদুল ওয়ারিশ খান বলেন, ‘বাপ্পীর বাড়ি থেকে উদ্ধার করা সরঞ্জামগুলো দিয়ে অস্ত্র তৈরি করা হয়ে থাকে। এছাড়া আমাদের কাছে তথ্য আছে বাপ্পী অস্ত্র বিক্রির সাথে জড়িত।’ বাপ্পী ও রুমিকে ধরতে পুলিশের অভিযান চলছে বলেও জানান তিনি।

চট্টগ্রাম নগর পুলিশের সহকারী কমিশনার (পাঁচলাইশ জোন) এসএম মোবাশ্বের হোসেন  জানান, গত ১ মে বায়েজিদের দক্ষিণ শহীদনগর এলাকা থেকে দুইটি অস্ত্র ও ১১ রাউন্ড কার্তুজসহ তিনজনকে গ্রেপ্তার করে বায়েজিদ থানা পুলিশ। তাদের স্বীকারোক্তিতে ইউপি চেয়ারম্যান বেলাল হোসেনের ভাই সাইফুদ্দিন বাপ্পীর তথ্য উঠে আসে। ফলে পুলিশ এ অভিযান চালায়। অভিযানে চান্দগাঁও থানা, বায়েজীদ বোস্তামী থানা ও বোয়ালখালী থানার শতাধিক পুলিশ অংশ নেন বলে জানান তিনি।

পুলিশ কর্মকর্তা বলেন, অভিযানে পুলিশের ওপর হামলার ঘটনায় বাপ্পী ছাড়াও তার ছোটভাই সালাউদ্দিন রুমি ও অজ্ঞাতদের আসামি করে বোয়ালখালী থানায় মামলা হচ্ছে। বাপ্পীর বিরুদ্ধে অস্ত্র আইনে মামলা দায়ের করা হচ্ছে। তার বিরুদ্ধে আরও তিনটি মামলা আছে বলে জানান মোবাশ্বের হোসেন।

মতামত