টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

ট্রাম্পের ফোনে অসন্তুষ্ট পুতিন

চট্টগ্রাম, ০৩ মে ২০১৭ (সিটিজি টাইমস)::   তৃতীয়বারের মতো টেলিফোনের কথা বললেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প এবং রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। হোয়াইট হাউজের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, কোরীয় উপদ্বীপে উত্তেজনা প্রশমন এবং কূটনৈতিক উপায়ে সিরিয়া সংকট সমাধানের উপায় নিয়ে টেলিফোনে কথা বলেছেন দুই নেতা। এদিকে ক্রেমলিনের পক্ষ থেকেও একই বিষয়ে জানানো হলেও, তারা এও বলেছেন যে, ট্রাম্পের সম্প্রতিক টেলিফোনে খুব বেশি তুষ্ট হননি পুতিন।

ওই টেলিফোনালাপের বরাত দিয়ে ক্রেমলিন ও হোয়াইট হাউজ নিশ্চিত করেছে যে, দুই প্রেসিডেন্ট আগামী জুলাইয়ে জার্মানির হামবুর্গে অনুষ্ঠেয় জি২০ শীর্ষ সম্মেলনের অবকাশে দ্বিপক্ষীয় বৈঠকে বসতে রাজি হয়েছেন। বিবৃতিতে এ টেলিফোলাপকে গঠনমূলক আখ্যায়িত করে দুই প্রেসিডেন্ট বিশ্বব্যাপী সন্ত্রাস বিরোধী যুদ্ধে পরস্পরকে সহযোগিতার আশ্বাস দিয়েছেন বলে জানানো হয়। এ ব্যাপারে মার্কিন ও রুশ পররাষ্ট্রমন্ত্রীরা সর্বোচ্চ চেষ্টা চালাবেন বলেও বিবৃতিতে উল্লেখ করা হয়।

ক্রেমলিনের বিবৃতিতে বলা হয়, পুতিন সিরিয়া ইস্যুতে ট্রাম্পকে ধৈর্য ধরার আহ্বান জানান এবং দুই নেতা উত্তর কোরিয়ার উত্তেজনা প্রশমনের ওপর জোর দেন। তারা সিরিয়ার চলমান যুদ্ধবিরতিকে স্থায়ী রূপ দিয়ে দেশটির জন্য প্রকৃত শান্তি প্রক্রিয়া শুরু করার লক্ষ্যে কাজ করতে সম্মত হন।

‘দ্যা আটলান্টিক’ অনলাইনে বলা হয়, ট্রাম্পের সিরিয়া নীতি এবং আকস্মিক ধৈর্য্যচ্যুতির কারণে কিছুটা বিরক্ত পুতিন। ক্রেমলিন আশা করেছিল, ট্রাম্প ক্ষমতায় আশার পর রাশিয়ার সঙ্গে সম্পর্কের পুর্নমূল্যায়নের যে সুযোগ রয়েছে সেটিকে কাজে লাগানো হবে। একই সঙ্গে মার্কিন বাণিজ্য মন্ত্রী উইলবোর রুশ সিরিয়াতে ৫৯টি টোমাহোক ক্ষেপণাস্ত্র হামলাকে রাতের খাবারের পর বিনোদন বলে উল্লেখ করেছিলেন। ‍যার সমালোচনা করে রাশিয়া।

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব নেয়ার পর ইতোমধ্যে ট্রাম্প পুতিনের সঙ্গে দুইবার টেলিফোনে কথা বলেছেন। কর্মকর্তারা জানান, গত ২৮ জানুয়ারি পুতিন অভিনন্দন জানিয়ে ট্রাম্পকে যে টেলিফোন করেন সেসময়ে উভয়ে ইসলামিক স্টেট গ্রুপকে কিভাবে দমন করা যায় সে নিয়ে আলোচনা করেন। সর্বশেষ গত ৩ এপ্রিল ডোনাল্ড ট্রাম্প সেন্ট পিটার্সবাগ মেট্রো ট্রেনে ভয়াবহ বোমা হামলায় ১৫ জন নিহত হওয়ায় টেলিফোন করে রাশিয়ার প্রতি তার সমর্থন পুনর্ব্যক্ত করেন।

মতামত