টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

শাকিব খানের নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার

চট্টগ্রাম, ০১ মে ২০১৭ (সিটিজি টাইমস):: চলচ্চিত্র অভিনেতা শাকিব খান ও চলচ্চিত্র পরিচালকদের মধ্যে মনোমালিন্যের অবসান ঘটেছে। চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতির সংবাদ সম্মেলনের জানানো হয় দেশসেরা সিনেতারকাকে নিষিদ্ধ করে যে ঘোষণা তারা দিয়েছিলেন সেটা এখন আর বলবৎ নেই।

সোমবার এফডিসির পরিচালক সমিতির কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পড়ে শোনান পরিচালক সমিতির মহাসচিব বদিউল আলম খোকন। তিনি বলেন, ‘গতকাল পরিচালক সমিতির স্টাডিরুমে চিত্রনায়ক শাকিব খান সম্প্রতি পরিচালকদের সম্পর্কে তার দেয়া অনাকাঙ্খিত বক্তব্যের জন্য বিভিন্ন সমিতির নেতাদের কাছে আন্তরিকভাবে দুঃখ প্রকাশ ও ক্ষমা প্রার্থনা করেন। যার ফলে শাকিব খানের সাথে কাজ করা থেকে বিরত থাকার যে সিদ্ধান্ত সমিতিগুলো নিয়েছিলো তা আজ থেকে প্রত্যাহার করা হলো।’

প্রসঙ্গত দীর্ঘদিন অপু বিশ্বাস আড়ালে থাকার পর একটি বেসরকারি টেলিভিশনের লাইভে এসে দাবি করেন তিনি শাকিব খানের স্ত্রী। তাদের একটি পুত্রসন্তানও রয়েছে। এই ঘটনার পর আলোচনায় আসেন শাকিব ও অপু বিশ্বাস। এই ঘটনার রেশ ধরে বিভিন্ন গণমাধ্যমে শাকিব খান বলেন, ‘চলচ্চিত্রে এখন কাজ কমে গেছে। এফডিসিতে সবাই আসে আড্ডা দিতে। এই যে এত এত শিল্পী, পরিচালক, তারা কজন কাজ করেন?

শাকিব খানের এই বক্তব্যে ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া জানায় চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতি। তারা শাকিবকে তার বক্তব্য প্রত্যাহার ও ক্ষমা চাইতে সাত দিনের সময় দিয়ে ২৪ এপ্রিল চিঠি পাঠায়। সাত দিন পেরোনোর দুই দিন আগে ২৯ এপ্রিল শাকিবকে নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হয়।

এরপর গতকাল রবিবার চলচ্চিত্র অভিনেতা আলগীরের মধ্যস্থতায় এফডিসিতে আসেন শাকিব খান। সেখানে পরিচালকদের সঙ্গে এক বৈঠকে শাকিব খান বলেন, ‘ব্যক্তিজীবনের সংকটময় পরিস্থিতিতে আমি কিছুটা বিক্ষিপ্ত ছিলাম। তখন আমার আচরণ ও কথায় যদি কেউ আহত হয়ে থাকেন, তাহলে আমি দুঃখিত। চিত্র পরিচালকসহ চলচ্চিত্রসংশ্লিষ্ট কেউ কষ্ট পেয়ে থাকলে আমি ক্ষমাপ্রার্থী।’

এরই প্রেক্ষিতে চলচ্চিত্র পরিচালকরা শাকিব খানের উপর থেকে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করে নিল।

আজকের সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, চলচ্চিত্র সম্পর্কিত সব সংগঠনের নেতাদেরকে নিয়ে অচিরেই একটি সমন্বয় কমিটি গঠন করা হবে। এই কমিটি চলচ্চিত্রের সুষ্ঠু পরিবেশ ও শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনার জন্য নীতিমালা তৈরি করবে। যদি কেউ সেই নীতিমালা ভঙ্গ করেন, তাহলে তাকে শাস্তির আওতায় আনা হবে।

সংবাদ সম্মেলনে আলমগীর বলেন, ‘আমি আশা করবো এই শাকিব ইস্যুর সব কিছু এখানেই সমাপ্তি ঘটবে। শাকিব যেহেতু আমাদের পরিবারের সন্তান। তাই অ্যাসোসিয়েশন তার বিরুদ্ধে যে কর্ম বিরতি পালন করেছিল তা প্রত্যাহার করে নিয়েছে। ’

আলমগীর আরও বলেন, ‘শাকিব গতকালকে এখানে এসে আমাদের সবার সামনে আন্তরিকভাবে ক্ষমা চেয়েছে। পরিচালক সমিতির সভাপতি বলেছেন, ‘তুমি এসেছ আমরা খুশি হয়েছি। তাকে নিষিদ্ধ করা হয়নি’।

পরিচালক সমিতির সভাপতি মুশফিকুর রহমান গুলজার বলেন, ‘শৃঙ্খলার জন্য আমরা যে নীতিমালা তৈরি করবো বা যৌথ প্রযোজনার কেউ আমাদের নীতিমালা ভঙ্গ করলে আমরা তাকে এখানে ছবিই করতে দিবো না। আশা করি এই দুর্ঘনার মধ্য দিয়ে ভবিষ্যতে আমাদের চলচ্চিত্রের জন্য ভাল কিছুই হবে।’

রংবাজ ছবির পরিচালক শামীম আহমেদ রনির সম্পর্কে নিষেধাজ্ঞা এখনো বলবৎ থাকবে কি না জানতে চাইলে গুলজার বলেন, ‘তার বিরুদ্ধে আমাদের যে কর্মবিরতি, তা বলবৎ থাকবে। তার সঙ্গে কোন টেকনিশিয়ানই কাজ করবে না। নীতিমালা ভঙ্গের দায়ে যদি কোন পরিচালকের সদস্য পদ বাতিল করতে হয় তাহলে তা করা হবে। তখন তার সঙ্গে আর কেউ কাজ করতে পারবে না।’

শাকিব খান সর্বশেষ রংবাজ ছবিতে অভিনয় করছিলেন। ছবিটির শুটিং চলছিল পাবনায়। এই ছবিতে শাকিবের বিপরীতে অভিনয় করছেন বুবলী।

মতামত