টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

নাজিরহাটে একই সময়ে আ.লীগের দু‘পক্ষের পাল্টাপাল্টি কর্মসূচি

মীর মাহফুজ আনাম

চট্টগ্রাম, ১৯ এপ্রিল ২০১৭ (সিটিজি টাইমস): ফটিকছড়ি উপজেলা আ.লীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটিতে ত্যাগী নেতাদের অন্তর্ভুক্ত না করা এবং  অযোগ্য ব্যক্তিদের কমিটিতে স্থান দেওয়ার অভিযোগ করে তার প্রতিবাদে কাল (বৃহস্পতিবার) সকাল দশটায় নাজিরহাট ঝংকারস্থ জারিয়া কমিউনিটি সেন্টারে সংবাদ সম্মেলন করার পূর্ব ঘোষণা দিয়েছিলেন আ.লীগের একটি পক্ষ। কিন্তু ঠিক একই সময়ে জারিয়া কমিউনিটি সেন্টারের নিচে মজিবনগর দিবস উপলক্ষ্যে আলোচনা সভা করার ঘোষণা দিয়েছে ফটিকছড়ি উপজেলা আ.লীগ। একদিকে, উপজেলা আ.লীগের কমিটি বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলন, অপরদিকে ওই কমিটি একই সময়ে সেখানে পাল্টা আরেকটি কর্মসূচি ঘোষণা করায় যে কোন অঘটন ঘটার সম্ভাবনা দেখা দিয়েছে। সন্ধ্যা থেকে বিষয়টি নিয়ে উপজেলাজুড়ে সচেতন মহলের মধ্য চলছে নানা অালোচনা- সমালোচনা। কাল কি হতে যাচ্ছে নাজিরহাটে? তবে, সবার একটায় প্রত্যাশা শান্তিপূর্ণ ফটিকছড়ি যেন কোনভাবেই অশান্ত হয়ে না উঠে।

সংশ্লিষ্টদের সাথে কথা বলে জানা যায়, নব গঠিত উপজেলা আ.লীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটির বিরুদ্ধে পূর্ব থেকে সেখানে সংবাদ সম্মেলনের ঘোষণা দিয়েছিলেন আ.লীগের একটি পক্ষ। যে পক্ষে রয়েছেন উত্তরজেলা আ.লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এম.তৌহিদুল আলম বাবু, জেলা আ.লীগের শিল্প ও বানিজ্য বিষয়ক সম্পাদক ফখরুল আনোয়ার, জেলা আ.লীগের সাবেক সদস্য এইচ.এম আবু তৈয়ব, উপজেলা আ.লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক সোলাইমান বি.কমসহ উপজেলার একাধিক নেতা।

অপরদিকে ফটিকছড়ি উপজেলা আ.লীগের সভাপতি মাজিবুল হক চৌধুরী ও সাধারণ সম্পাদক নাজিম উদ্দিন মুহুরীর নেতৃত্বে নব গঠিত পূর্ণাঙ্গ কমিটি মুজিব নগর দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা করার ঘোষণা দেন। যা সাধারণ সম্পাদক নাজিম উদ্দিন মুহুরী সংবাদ মাধ্যমকে আজ(বুধবার) সন্ধ্যায় জানান।

তিনি এ প্রতিবেদককে বলেন, সকাল দশটা থেকে জারিয়া কমিউনিটি সেন্টারের সামনে মজিব নগর দিবস উপলক্ষে দিনব্যাপী আলোচনা সভা করবে উপজেলা আ.লীগ।

সেখানে পূর্ব থেকে আ.লীগের একটি পক্ষের সংবাদ সম্মেলন করার ঘোষণা স্বত্বেও একই স্থানে আরেকটি কর্মসূচি দেওয়া প্রসঙ্গে জানতে চাইলে নাজিম উদ্দিন মুহুরী বলেন,‘ মুজিব নগর দিবস উপলক্ষ্যে আমাদের সারা উপজেলা ধারাবাহিক কর্মসূচি চলছে। তারাই ধারাবাহিকতায় নাজিরহাটেও কর্মসূচি দেওয়া হয়েছে। সেখানে অন্য কারো কোন কর্মসূচি দিয়েছে কিনা তা উপজেলা আ.লীগের বিবেচ্য বিষয় নয়। আ.লীগের কেও সেখানে কর্মসূচি করতে উপজেলা আ.লীগকে অবহিত করেনি। আমরা আমাদেরটা করে যাব।

তাদের দেওয়া পূর্ণ কমিটিকে নিয়ে প্রশ্ন তোলা সম্পর্কে তার বক্তব্য জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘দলের গঠনতন্ত্র মোতাবেক কমিটি অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। সেখানে ওই কমিটিকে বিতর্কিত করার কোন সুযোগ নেই। আমাদের জেলা ও উপজেলার সকল সিনিয়র নেতাদের কাছ থেকে মতামত নিয়ে এ কমিটি চুড়ান্ত করা হয়েছিল।

এ ব্যাপারে সংবাদ সম্মেলন ডাকাদের অন্যতম জেলা আ.লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও উপজেলা চেয়ারম্যান এম.তৌহিদুল আলম বাবু বলেন, আমাদের সংবাদ সম্মেলনটি ছিল পূর্ব নির্ধারিত। আমরা শান্তিপূর্ণভাবে সাংবাদিকদের মাধ্যমে কমিটি নিয়ে আমাদের বক্তব্য প্রকাশ করবো। সেখানে যদি অন্য কেও পাল্টা আরেকটি কর্মসূচি দেই তা হবে দলের মধ্যে বিভাজন সৃষ্টি করা।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা দীপক কুমার রায় বলেন, আইনশৃঙ্কলা ভিগ্নিত ঘটার সম্ভাবনা থাকলে প্রশাসন আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করবে।

সিটিজি টাইমসে প্রকাশিত সংবাদ সম্পর্কে আপনার মন্তব্য

মতামত