টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

ফটিকছড়িতে নিজ চোখে স্ত্রীর মর্মান্তিক মৃত্যু দেখলেন প্রবাসী স্বামী

মীর মাহফুজ আনাম
ফটিকছড়ি থেকে

চট্টগ্রাম, ১৬ এপ্রিল ২০১৭ (সিটিজি টাইমস)::  মাত্র ছয় দিন পূর্বে প্রবাস থেকে দেশে এসে স্ত্রী ও ছোট সন্তানকে নিয়ে মোটরসাইকেলে করে মাইজভান্ডার দরবার শরীফ যাচ্ছিলেন তৌহিদুল আলম মানিক । যাত্রাপথে নির্মাণাধীন সেতুর জন্য অস্থায়ী নির্মিত সড়কের গর্তে পেছন থেকে পড়ে যান স্ত্রী খোদবানু(৩৫)। মুহূর্তেই পাশ দিয়ে যাওয়া ট্রাকের পেছনের চাকায় পিষ্ট হয়ে স্বামীর সামনেই প্রাণ হারান স্ত্রী। স্বামীর মতো পাঁচ বছরের ছেলেও দেখলেন মায়ের করুণ মৃত্যুর দৃশ্য। এমনি ঘটনা ঘটেছে ফটিকছড়ি উপজেলায়।

আজ (রোববার) সকালে উপজেলার নাজিরহাট- মাইজভান্ডার সড়কের সাদা মসজিদ সংলগ্ন এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। নিহতের নাম খোদবানু (৩৫)। তিনি উপজেলার নাজিরহাট পৌরসভাধীন মতিউর রহমান শাহ বাড়ির ওমান প্রবাসী তৌহিদুল আলম মানিকের স্ত্রী।

সরেজমিন নিহতের বাড়িতে গিয়ে দেখা যায়, তার তিন পুত্র সন্তান সহ স্বামীর আহাজারিতে ভারী হয়ে উঠেছে সেখানকার আকাশ বাতাস। স্বজনরা তাদের সান্তনা দিতে ব্যস্ত।

স্বামী তৌহিদুল আলম কাঁদতে কাঁদতে বলেন, এ কেমন পরনিতি ? মাত্র ছয়দিন পূর্বে বিদেশ থেকে এসে পরিবার নিয়ে বেড়াতে যাচ্ছিলাম মাইজভান্ডারে। এমন মর্মান্তিক দৃশ্য দেখতে হবে কখনো ভাবিনী। ট্রাক চালকটির কোন দুষ ছিল না। সড়কটিতে গর্ত থাকায় আমার স্ত্রী মোটরসাইকেলের পেছন থেকে পড়ে ট্রাকের পেছনের চাকার নিচে চলে যায়।’

এদিকে ফটিকছড়ি থানা পুলিশ ট্রাকটি আটক করে থানায় নিয়ে যায়। লাশ ময়নাতদন্ত ছাড়া দাফন করা হয়েছে।

মতামত