টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

ভুয়া ফেসবুক অ্যাকাউন্টের বিরুদ্ধে ‘অভিযান’ শুরু

চট্টগ্রাম, ১৫ এপ্রিল ২০১৭ (সিটিজি টাইমস):: ফেইক বা ভুয়া আইডি বন্ধের কার্যক্রম শুরু করেছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক। এক বিবৃতিতে প্রতিষ্ঠানটি জানিয়েছে, যারা ভুয়া নামে আইডি খুলে ফেসবুক চালাচ্ছেন, সেগুলো বন্ধ করে দেবে তারা। শুক্রবার থেকে শুরু হওয়া এই কার্যক্রম চলবে আগামী ছয় মাস।

গত ১০ এপ্রিল সচিবালয়ে সংবাদ সম্মেলনে ভুয়া ফেসবুক আইডি বন্ধ করে দেয়ার কথা জানান ডাক ও টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম। তিনি বলেন, ‘যতগুলো ফেইক ফেসবুক পেজ আছে এরমধ্যে অনেক পেজ কিন্তু ভিআইপিদের নামে। এগুলো ফেসবুক কর্তৃপক্ষ ইউআরএল পাঠানোর সঙ্গে সঙ্গে বন্ধ করে দেবে। আমরা এটি প্রস্তুতও করেছি এবং ফেসবুক কর্তৃপক্ষের কাছে শিগগিরই পাঠাবো।’

বাংলাদেশে ভুয়া ফেসবুক আইডি থেকে গুজব, সাম্প্রদায়িক উস্কানি এমনকি জঙ্গিবাদে উদ্বুদ্ধ করার অভিযোগ আছে। এসব আইডি থেকে নারীদেরকে হয়রানি বা হেয় করার অভিযোগও আছে অনেক।

ভিন্ন নামে খোলা আইডিই শুধু নয়, নামিদামি ব্যক্তিদের নামে আইডি খুলে প্রতারণার অভিযোগও রয়েছে। এমনকি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াসহ শীর্ষস্থানীয় অনেক রাজনীতিকের নামেও খোলা হয়েছে এসব পেজ। পরিস্থিতি এমন যে, বছর দুয়েক আগে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে বিবৃতি দিয়ে জানানো হয়েছে শেখ হাসিনা ফেসবুক ব্যবহার করেন না।

সাম্প্রতিক জঙ্গি তৎপরতার পর সরকার এসব ভুয়া আইডি বন্ধে উদ্যোগী হয়। বিষয়টি নিয়ে কথা বলে ফেসবুক কর্তৃপক্ষের সঙ্গে। গত ৩০ মার্চ ফেসবুকের সঙ্গে বৈঠক হয় সরকারের। এই বৈঠকেই ভুয়া আইডি বন্ধের অনুরোধ করে সরকার। টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী জানান, ইউআরএল পাঠালে ফেসবুক কর্তৃপক্ষ ভুয়া আইডি বন্ধ করে দেয়ার আশ্বাস দিয়েছে সরকারকে।

বন্ধ হচ্ছে সন্দেহজনক আইডি

ফেসবুকে যেসব অ্যাকাউন্টকে সন্দেহজনক মনে করেছে, সেসব অ্যাকাউন্টধারীদেরকে প্রমাণ দিতে নোটিফিকেশন পাঠাচ্ছে। উপযুক্ত প্রমাণ না দিতে পারলে অ্যাকাউন্ট বন্ধ করে দেয়া হচ্ছে।

বাংলাদেশের অনেক ফেসবুক ব্যবহারকারী ফেসবুক অ্যাকাউন্টে লগ ইন করতে সমস্যায় পড়ছেন বলে জানিয়েছেন।

রাহিতুল ইসলাম রুয়েল নামের এক ফেসবুক ব্যবহারকারী জানিয়েছে, তিনি আজ দুপুরে দেখতে পান তার বন্ধুদের সংখ্যা যা ছিল তার চেয়ে কমেছে। তিনি তার ফেসবুক বন্ধুদের তালিকায় দেখতে পান অনেকেই তার বন্ধুর তালিকায় নেই। অথচ বন্ধুরা জানিয়েছেন, তারা তাকে আনফেন্ড করেননি।

রুয়েল লেখেন, ‘বাংলাদেশে ফেসবুক ব্যবহারকারিদের অনেকেই আজ শনিবার সকাল থেকে তাদের অ্যাকাউন্ট বন্ধ পাচ্ছেন। হঠাৎ করে এ অবস্থার মধ্যে পড়ে অনেকেই অবাক হয়েছেন।’

একই কথা জানালেন, জিশান মেহেদি নামে একজন। তিনি একটি অনলাইন শপ পরিচালনা করছেন। তিনি তার ফেসবুক পেজে লেখেন, ‘ ‘আজ সকালে ঘুম থেকে উঠে দেখি আমার অনলাইন শপ এর লাইক এক হাজার কমে গেছে।’

বন্ধ করে দেয়া আইডি খোলার সুযোগও রয়েছে

ফেসবুক জানিয়েছে, তারা কোনো আইডিকে ভুয়া মনে করে বন্ধ করে দিলেও তা পুনরুদ্ধাদের সুযোগ রয়েছে। তবে এই আইডি যে ভুয়া না, তার প্রমাণ দিতে হবে।

বন্ধ হওয়া এসব অ্যাকাউন্ট চালুর জন্য ভেরিফিকেশন প্রক্রিয়ার মধ্যে যেতে হবে। এসব আইডি চালু করতে জাতীয় পরিচয়পত্র, মেইল অ্যাড্রেস, অ্যাকাউন্টের নাম ফেসবুকের কাছে পাঠাতে হবে। ফেসবুক এসব তথ্য খতিয়ে দেখবে। ফেসবুকের হেল্প সেন্টারে গিয়ে ‘সাবমিট অ্যান আপিল’ লিংকে ক্লিক করে প্রয়োজনীয় তথ্য সরবরাহ করতে হবে।

সিটিজি টাইমসে প্রকাশিত সংবাদ সম্পর্কে আপনার মন্তব্য

মতামত