টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

ভূজপুর ট্র্যাজেডি: এখনো বিচার না হওয়ায় হতাশ নিহতের স্বজনরা, মামলা সিআইডিতে

মীর মাহফুজ আনাম
ফটিকছড়ি থেকে

চট্টগ্রাম, ১১ এপ্রিল ২০১৭ (সিটিজি টাইমস)::  ফটিকছড়ি উপজেলার ভূজপুরে ২০১৩ সালের ১১ এপ্রিল জামায়াতের ডাকা হরতালে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতা এটিএম পেয়ারুল ইসলামের নেতৃত্বে হরতাল বিরোধী মিছিলে সহিংস হামলায় তিনজন নিহত এবং পুলিশ-বিজিবি সদস্যসহ কমপক্ষে দেড়’শ জন আহত হন। এ নৃশংস হত্যাকান্ডের চার বছর পূর্ণ হচ্ছে আজ। ভূজপুর ট্র্যাজেডির সেই ভয়াল দিনটি বছর বছর সামনে আসলেও এখনো শুরু হয়নি তার বিচার।

চার বছর অতিবাহিত হতে চললেও ঘটনার এখনো বিচার শুরু না হওয়াতে হতাশা ব্যক্ত করেছেন ঘটনায় নিহতদের স্বজনরা। সেদিনের ঘটনায় নিহত তিন পরিবারের পক্ষ থেকে তিনটি হত্যা মামলা ও পুলিশ বাদী হয়ে আরো দু‘টি মামলা দায়ের করেছিলেন। এতে আসামি করা হয় ১৬ হাজার ৪৭১ জনকে। তন্মধ্যে ৪৭১ জনের নাম উলে¬খ করা হয়। বাকিরা অজ্ঞাত আসামি। নিহত ৩ পরিবারের পক্ষে দায়ের করা মামলায় ইতিমধ্যে ৬২৩ জনকে আসামী করে আদালতে অভিযোগ পত্র দেওয়া হয়। বাদির নারাজির আবেদনের ফলে বর্তমানে মামলাগুলো সিআইডি অধিকতর তদন্ত করছে।

জানা যায়, তিনটি হত্যা মামলার অধিকতর তদন্ত এখনো শেষ করতে পারেনি পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি)। এ ছাড়া অগ্নিসংযোগ ও ভাঙচুরের ঘটনায় করা দুটি মামলায় ২০১৫ সালের শুরুতে পুলিশ অভিযোগপত্র দিলেও এখনো অভিযোগ গঠন হয়নি।

পুলিশ জানায়, সব আসামীদের মধ্যে ৩৫৫ জনকে ইতিমধ্যে গ্রেপ্তার করা হয়। অন্যরা কেউ বিদেশ এবং কেউ পলাতক। তবে গ্রেপ্তারকৃতদের অধিকাংশই এখন জামিনে মুক্ত।

ওই তান্ডবে মিছিলে তাকা তিনজনের মৃত্যু হয়েছে। তারা হলেন- উপজেলা স্বেচ্ছা সেবকলীগ নেতা ফারুক ইকবাল বিপুল, মো. ফোরকান ও মো. রুবেল। ফোরকান ও রুবেলের তেমন কোন দলীয় পরিচয় নেই।

স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতা ফারুক ইকবাল বিপুলের স্ত্রী সানজিদা আরফিন নিশু ক্ষোভ আর হতাশার সাথে বলেন, ‘আমার স্বামী দলের জন্য সারাজীবন ত্যাগ করে গেছেন। জামাতের হারতাল বিরোধী মিছিল করতে গিয়ে নিজের প্রাণটা হারালেন, অথচ তার দুই এতিম বাচ্চা আর আমার কেউ আর এখন খোঁজ নেয় না। আর বিচারের কথা কি বলবো, চার বছর পার হয়েও বিচারি শুরু হয়নি।’

নিহত মো. ফোরকানের মা ফেরদৌস বেগম বলেন,‘কবে ছেলে হত্যার বিচার পাবো জানিনা। খনিরা ফাঁসিতে ঝুলবে সেই খবর শুনার অপেক্ষায় আছি। শুনলাম আসামীরা নাকি সবাই বীরদর্পে চলাফেরা করছে । আবার অনেকে নাকি বিদেশে পলাতক। আ.লীগ সরকার ক্ষমতায় থাকতে তা কিরে সম্ভব হয় ?’

সেদিনের মিছিলের নেতৃত্বদানকারী এটিএম, পেয়ারুল ইসলাম বলেন, আজ উপজেলা আ.লীগের পক্ষ থেকে নিহতদের কবরে জিয়ারত, কোরআন খতম, কবরে পুস্পস্তবক দিয়ে শ্রদ্ধাসহ নানা কর্মসূচিতে তাদের স্বরণ করেছি। এছাড়া চলতি মাসের শেষের দিকে ভূজপুরে তাদের একটি স্মরণসভা ও প্রতিবাদ সভা করার পরিকল্পনা রয়েছে।

মামলার অগ্রগতি সম্পর্কে এটিএম পেয়ারুল বলেন, ‘সিআইডিতে থাকা তিনটি মামলার মধ্যে কয়েকদির মধ্যে দুটির অভিযোগপত্র দাখিল করা হবে বলে তদন্ত কর্মকর্তা জানিয়েছেন । এবং অপরটিরও একমাসের মধ্যে অভিযোগপত্র দাখিল করা হবে বলে জানিয়েছেন সিআইডি কর্মকর্তারা।

মতামত