টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

সময় বলে দেবে কে কার দায়িত্ব নেয়: অপু বিশ্বাস

চট্টগ্রাম, ১১ এপ্রিল ২০১৭ (সিটিজি টাইমস):: বছর খানেকের অজ্ঞাতবাস থেকে সম্প্রতি দেশে এসে; কোলে শিশু নিয়ে বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেল নিউজ টোয়েন্টিফোরকে দেওয়া এক্সক্লুসিভ সাক্ষাৎকারে চিত্রনায়িকা অপু বিশ্বাস দাবি করেন, চিত্রনায়ক শাকিব খানের সঙ্গে তার বিয়ে হয়েছে। এই সন্তান তাদের। গত বছরের ২৭ সেপ্টেম্বর কলকাতায় তার (সন্তানের) জন্ম হয়।

পরে অপু বিশ্বাসকে বিয়ে করার কথা স্বীকার করেন শাকিব। স্বীকার করলেন ছেলে আব্রাহাম খান জয়ের কথাও। তবে বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেল নিউজ টোয়েন্টিফোরকে দেওয়া এক্সক্লুসিভ সাক্ষাৎকারের মাধ্যমে বিয়ে আর সন্তানের কথা বলায় নাখোশ তিনি।

এ খবর প্রকাশ হলে দেশজুড়ে হই চই পড়ে যায়। অপুর ওপর ক্ষোভ প্রকাশ করে শাকিব বলেন, সন্তানের দায়িত্ব নিলেও অপুর দায়িত্ব তিনি নেবেন না।

এ প্রসঙ্গে অপু বলেন, এসব হাস্যকর কথা। আমাকে শাকিব অনেক শাস্তিই দিয়েছে। নতুন করে আর কী শাস্তির ভয় দেখাবে। সময়ই বলে দেবে কে কার দায়িত্ব নেয়। আমি আর ভয় পাই না। সময়ের হাতেই সব ছেড়ে দিয়েছি।

অপু বলেন, ওকে ভালোবেসে সব দায়িত্বই আমি পালন করেছি প্রেমিকা হিসেবে, স্ত্রী হিসেবে। আমার পক্ষে আর গোপনে থাকা সম্ভব হচ্ছিল না। সন্তানের স্বার্থেই আমাকে প্রকাশ্যে আসতে হলো।

অপুর দায়িত্ব নেবে না শাকিব, সেই কথার প্রতিক্রিয়ায় অপু জানান, আমি আমার সন্তানের স্বীকৃতি চেয়েছি। আমি আর দশজন ঘরোয়া মেয়ের মতো না। আমি অপু বিশ্বাস, আমি আমার দায়িত্ব নিতে পারি।

তিনি বলেন, আমি হ্যাপি, বাবা তার ছেলেকে নেবে। পৃথিবীতে এর চেয়ে বড় কিছু নেই। আমার বাচ্চার বয়স ছয় মাস হলো। কয়দিন পর একবছরের বার্থ ডে করতে হবে না? এই স্বীকৃতি তো লাগবে।

অপু বিশ্বাস বলেন, সে (শাকিব) কেন আমার দায়িত্ব নেবে না বলেছে, সেটা নিয়ে পরে বলতে পারবো। তবে আসলে আজকের ঘটনায় সে একটু আপসেট মনে হয়।

অপু বলেন, আমি নিজের স্বীকৃতি নিয়ে কাল শ্বশুরবাড়ি গিয়ে বলব, মা আপনার জন্য ভাত রান্না করি এমন মেয়ে আমি না। আমি আমার সন্তানের ভবিষ্যৎ ভেবে একজন মায়ের দায়িত্ব পালন করেছি।

অপু বিশ্বাস জানান, আজ রাতে তার বাসায় সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলবেন তিনি। সেখানে জানাবেন আরও অনেক অজানা কথা।

জানা যায়, অপু যখন সরাসরি অনুষ্ঠানের মাধ্যমে শাকিবের সঙ্গে তার সম্পর্কের কথা জানাচ্ছিলেন, তখন রাজধানীর একটি হোটেলে শরীর চর্চায় ব্যস্ত ছিলেন শাকিব খান। তিনি জানান, অপুর আচরণে ক্ষুব্ধ আমি।

শাকিব বলেন, এটি তার ক্যারিয়ার ধ্বংস করার জন্য চক্রান্ত। বিয়ের কথা এতদিন গোপন রাখার বিষয়ে তিনি বলেন, ব্যক্তিগত জীবন সামনে আনতে চাইনি। এখন সে (অপু বিশ্বাস) এনেছে। তার সব চাহিদা পূরণ করেছি। যখন বলেছে টাকা দিয়েছি।

সাক্ষাৎকারে অপু বলেন, ধর্মান্তরিত হয়ে অপু ইসলাম নাম নিয়ে শাকিবকে তিনি বিয়ে করেন।

তিনি বলেন, ২০০৮ সালে ১৮ এপ্রিল আমাদের বিয়ে হয়। গুলশানে শাকিব খানের বাসায় এ বিয়ে হয়। কাজী আসেন ফরিদপুরের ভাঙ্গা থেকে। বিয়ের সময় শাকিব ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন তার মা, চাচাতো ভাই ও আমার মা। সাকিবের ছবির প্রযোজকও। খুব গোপনে আমাদের বিয়ে হয়। বর্তমানে আমাদের সংসারে ৮ মাস বয়সি এক ছেলে সন্তান রয়েছে। ছেলের নাম আব্রাহাম খান জয়।

অনুষ্ঠানে এতদিনে নিজের আত্মগোপনের কথা বলতে গিয়ে অপু বলেন, আমি অনেক কষ্ট করেছি। শাকিব শুধু টাকা দিয়ে সাহায্য করেছে কিন্তু আমার পাশে থাকেনি। শাকিব আমাকে ঠকাই গেছে কিন্তু আমি তাকে ঠকাইনি। আমার প্রাণের ছবি বসগিরি ছেড়ে গেছি। আমি তাকে সার্পোট দিয়ে গেছি। আমি চেয়েছি শাকিবের ক্যারিয়ার ভালো হোক।

সাক্ষাৎকারে বাংলাদেশের চলচ্চিত্রের এই সময়ের সবচেয়ে জনপ্রিয় অভিনেতা শাকিব খানের বিরুদ্ধে নানা অভিযোগ করেন অপু।

কয়েক মাস আগে দেশে আসার পর চলচ্চিত্রে শাকিবের সঙ্গে জুটি নিয়ে আরেক অভিনেত্রী বুবলির সঙ্গে দ্বন্দ্বে জড়ান অপু।

এর পরপরই শাকিবের সঙ্গে নিজের বিয়ের কথা বললেন অপু, যা বোমা ফাটানোর মতো খবর হিসেবে দেখছেন ঢাকার চলচ্চিত্র অঙ্গন সংশ্লিষ্টরা।

বিয়ে ও সন্তান হওয়ার খবর শাকিবের কারণেই চেপে রেখেছিলেন বলে দাবি করেন অপু।

২০০৬ সালে ‘কোটি টাকার কাবিন’ চলচ্চিত্রের মধ্য দিয়ে শাকিব-অপুর জুটি গড়ে ওঠে।

মতামত