টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

নিঃসন্তান ডাক্তারপত্নীর শাকিলার কোলে ঠাঁই পেয়েছে ‘একুশ’

চট্টগ্রাম, ০৫ এপ্রিল ২০১৭ (সিটিজি টাইমস)::: চট্টগ্রামে ময়লার স্তুপ থেকে উদ্ধার নবজাতক ‘একুশ’ অবশেষে ‘মা’ শাকিলা আক্তারের কোলে ঠাঁই পেয়েছে। বুধবার চট্টগ্রামের শিশু বিষয়ক আদালতের বিচারক জান্নাতুল ফেরদৌসের আদেশে ‘মায়ের’ কোলে জায়গা পায় ‘একুশ’।

আদালত সূত্রে জানা গেছে, নবজাতককে হস্তান্তরের আদেশে ১০ লাখ টাকার শিক্ষাবীমা করার শর্ত দিয়েছিলেন আদালত। বুধবার ডা. মো. জাকিরুল ইসলাম ও শাকিলা আক্তার দম্পতি শিক্ষাবীমার প্রথম কিস্তি এক লাখ ৫২ হাজার টাকা জমা দেয়ার স্লিপ আদালতে জমা দেন। এর আগে বিকেল ৩টার দিকে শিশু একুশকে নিয়ে আদালতে আসেন চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের নবজাতক বিভাগের সহকারী রেজিস্ট্রার ডা. দেবাশীষ রায় চৌধুরী এবং ওয়ার্ড সুপারভাইজার শিখা ভট্টাচার্য্য। আদালতের নির্দেশে দেবাশীষ ও শিখা শিশুটিকে নিয়ে এজলাসে উঠে বিচারকের পাশে গিয়ে দাঁড়ান। দেবাশীষ শিশুটিকে হস্তান্তর পত্রে এবং শাকিলা ও তার স্বামী গ্রহণের ফরমে স্বাক্ষর করেন।

একুশকে নেয়ার জন্য আদালতে শাকিলার সঙ্গে আসেন তার বাবা এম এ খালেক, ভাই-বোন, ননদসহ স্বজনরা। তাদের সঙ্গে একুশকে নিয়ে শাকিলা আদালত থেকে নগরীর বাকলিয়ায় বাসায় চলে যান।

রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী এম এ ফয়েজ বলেন, শাকিলা ও জাকির দম্পতির উদ্দেশ্যে আদালত বলেছেন, একুশকে এমনভাবে মানুষ করবেন যাতে সে আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন আলোকিত সুশিক্ষিত মানুষ হয়ে উঠে।

প্রসঙ্গত গত ২০ ফেব্রুয়ারি রাত সাড়ে ১০টার দিকে নগরীর আকবর শাহ থানার কর্নেল হাট প্রশান্তি আবাসিক এলাকায় একটি ভবনের পিছনে আবর্জনার স্তপ থেকে নবজাতকটিকে উদ্ধার করা হয়। স্থানীয়দের সহযোগিতায় পরে শিশুটিকে হাসপাতালে ভর্তি করে পুলিশ। একুশের রাতে উদ্ধার হওয়ায় আকবর শাহ থানার ওসি মোহাম্মদ আলমগীর শিশুটির নাম রাখেন ‘একুশ’।

সিটিজি টাইমসে প্রকাশিত সংবাদ সম্পর্কে আপনার মন্তব্য

মতামত