টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

ফটিকছড়িতে ফেইসবুকে মৃত্যু কামনা করে স্ট্যাটাস; সাত ঘন্টা পর ঝুলন্ত লাশ

ফটিকছড়িতে এনজিওর ঋণগ্রস্থ যুবক স্বেচ্ছায় মৃত্যুকে বেচে নিল

মীর মাহফুজ আনাম
ফটিকছড়ি থেকে

চট্টগ্রাম, ০১ এপ্রিল ২০১৭ (সিটিজি টাইমস):  ‘জীবনটা আজ মনে হয় সমাপ্ত হওয়ার পথে, আমার জীবনটা খুব কষ্টের। জন্ম হওয়ার পর সুখের দেখা এখনো পাইনি, আর পাবো না মনে হয়। আমার জীবনে এতো কষ্ট দিয়ে কেন আল­াহ পাঠালো ? এই কি আল­াহ তোমার বিচার ছিল ? আমাকে তোমার কাছে নিয়ে যাও। আমি তোমার কাছে চলে আসতে চাই’।

শুক্রবার রাত একটার দিকে নিজের ফেইসবুক আইডিতে এই স্ট্যাটাস দিয়েছিলেন আলমগীর হোসাইন প্রকাশ রোমান (২৩) নামক এক যুবক। তিনি ফটিকছড়ি পৌরসভার উত্তর রাঙ্গামাটিয়া গ্রামের পাঠানপাড়ার মৃত নুরুল হকের দ্বিতীয় পুত্র। পেশায় সে একজন সিএনজি (অটোরিক্সা) চালক।

তার ওই স্ট্যাটাস প্রদানের এক ঘন্টা পর রাত দু‘টার দিকে তিনি ঘর থেকে বের হয়ে যান। সকাল আটটার দিকে বাড়ি থেকে কিছুটা দূরে একটি গাছের সাথে গলায় ফাঁস লাগানো ঝুলন্ত অবস্থায় তার লাশ দেখতে পায় এলাকাবাসী। খবর পেয়ে ফটিকছড়ি থানা পুলিশ লাশ উদ্ধার করে মর্গে প্রেরণ করে।


নিহতের ফুফাতো ভাই ও তার বন্ধু মোহাম্মদ সাকিল বলেন, ‘তিন ভাইয়ের মধ্যে রোমান মেজ। গত এক বছর পূর্বে তার বাবা মারা যান। অটোরিক্সা চালিয়ে সে সংসার চালাতো। স¤প্রতি সে বিভিন্ন এনজিও সংস্থা থেকে প্রায় চার লক্ষ টাকা ঋণ নিয়ে বড় ভাইকে কাতারে পাঠালেও সেখানে কোন চাকুরি না পাওয়ায় টাকা পাঠাতে পারে না সে। অপরদিকে বাবাকে চিকিৎসা করাতে পূর্বেরও কিছু লোন ছিল।

এমন সময় তার ‘মা’ ও গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়েন। একদিকে এনজিও সংস্থার লোন পরিশোধ অপরদিকে মায়ের চিকিৎসা খরচ বহন করা তার একার পক্ষে সম্ভবপর না হওয়ায় হতাশায় ভোগেন। সেই হতাশা থেকে সে আত্মহত্যার পথ বেচে নিয়েছে।’

ফটিকছড়ি থানার এস.আই ইরফান উদ্দিন রাজিব বলেন, গলায় ফাঁস লাগানো অবস্থায় আমরা তার লাশ উদ্ধার করি। ধারণা করা হচ্ছে রাতের যে কোন একটি সময় সে আত্মহত্যা করে। এ ব্যাপারে থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা দায়ের করা হয়েছে।

সিটিজি টাইমসে প্রকাশিত সংবাদ সম্পর্কে আপনার মন্তব্য

মতামত