টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

প্রথমবার পাকিস্তানি সেনার বিরুদ্ধে তদন্ত প্রতিবেদন

চট্টগ্রাম, ২১  মার্চ ২০১৭ (সিটিজি টাইমস): মানবতাবিরোধী অপরাধের অভিযোগে এই প্রথমবারের মতো পাকিস্তান সেনাবাহিনীর সাবেক সদস্য মোহাম্মদ শহীদুল্লাহর (৭৫) বিরুদ্ধে চূড়ান্ত তদন্ত প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের তদন্ত সংস্থা। তার বিরুদ্ধে তিনটি অভিযোগ চূড়ান্ত করা হয়েছে।

মঙ্গলবার তদন্ত সংস্থার কার্যালয়ে মানবতাবিরোধী অপরাধ মামলার ৫১তম এ প্রতিবেদন প্রকাশ করা হয় বলে রাজধানীর ধানমণ্ডিতে আন্তর্জাতিক অপরাধ তদন্ত সংস্থার প্রধান কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়েছে।

মোহাম্মদ শহীদুল্লাহ কুমিল্লার দাউদকান্দি উপজেলার আমিরাবাদ এলাকার জিন্নত আলীর ছেলে। শহীদুল্লাহর বিরুদ্ধে তদন্ত শুরু হয় ২০১৫ সালের ১১ অক্টোবর। তদন্ত করেন জেড এম আলতাফুর রহমান। গত বছরের ২ আগস্ট শহীদুল্লাহকে কুমিল্লা থেকে গ্রেপ্তার করা হয়। বর্তমানে তিনি কারাগারে রয়েছেন।

প্রকাশিত প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, মুক্তিযুদ্ধের সময় আসামি মোহাম্মদ শহীদুল্লাহ পাকিস্তান সেনাবাহিনীতে চাকরি করতেন। নিজেকে তিনি ক্যাপ্টেন হিসেবে পরিচয় দিয়ে থাকেন। মুক্তিযুদ্ধের সময় তিনি তৎকালীন পশ্চিম পাকিস্তান থেকে তার নিজ জেলা কুমিল্লায় আসেন। পরে পশ্চিম পাকিস্তানে আর ফিরে না গিয়ে হানাদার বাহিনীর সাথে যুক্ত হয়ে কুমিল্লায় ক্যাম্প স্থাপন করেন। মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের লোকদের আটক, নির্যাতন, অপহরণ, লুণ্ঠন, অগ্নিসংযোগ, হত্যাসহ অন্যান্য মানবতাবিরোধী অপরাধে যুক্ত হন।

শহীদুল্লাহর বিরুদ্ধে ২০১৫ সালের ১১ অক্টোবর থেকে তদন্ত শুরু হয়ে সোমবার (২০ মার্চ) শেষ হয়।

এ বিষয়ে আন্তর্জাতিক অপরাধ তদন্ত সংস্থার প্রধান সমন্বয়ক আব্দুল হান্নান খান জানান, তদন্ত প্রতিবেদনটি শিগগিরই প্রসিকিউশনের কাছে জমা দেওয়া হবে। এর ভিত্তিতে আনুষ্ঠানিক অভিযোগ (ফরমাল চার্জ) তৈরি করে ট্রাইব্যুনালে দাখিল করবেন প্রসিকিউশন।

মতামত