টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

বাঁশখালী থানার ওসিকে হাইকোর্টে তলব

চট্টগ্রাম, ২০  মার্চ ২০১৭ (সিটিজি টাইমস): চট্টগ্রামের বাঁশখালীতে কয়লাভিত্তিক বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মাণ নিয়ে ডাকা মতবিনিময় সভা শুরুর আগে দুই পক্ষের সংঘর্ষে মোহাম্মদ আলী নিহতের ঘটনায় তার স্ত্রীর করা অভিযোগ এজাহার হিসেবে গণ্য না করার বিষয়ে ব্যাখ্যা দিতে ওই থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে (ওসি) তলব করেছেন হাইকোর্ট। আগামী ৫ এপ্রিল সকাল সাড়ে ১০টায় তাকে আদালতে হাজির হতে বলা হয়েছে।

বিচারপতি সালমা মাসুদ চৌধুরী ও বিচারপতি কাজী মো. ইজারুল হক আকন্দের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ সোমবার এই আদেশ দেন। একইসঙ্গে রুলও দিয়েছেন আদালত। আবেদনকারীর করা অভিযোগ কেন এফআইআর হিসেবে গণ্য করা হবে না তা রুলে জানতে চাওয়া হয়েছে। চার সপ্তাহের মধ্যে বিবাদীদের রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে।

আদালতে রিট আবেদনকারীর পক্ষে ছিলেন আইনজীবী এ কে এম ফয়েজ। সঙ্গে ছিলেন আইনজীবী শাহানা পারভীন।

আইনজীবী ফয়েজ বলেন, মোহাম্মদ আলীর নিহতের ঘটনায় তার স্ত্রীর করা অভিযোগ কেন এফআইআর হিসেবে গণ্য করা হয়নি, এ বিষয়ে ব্যাখ্যা জানাতে বাঁশখালী থানার ওসিকে আগামী ৫ এপ্রিল সকাল সাড়ে ১০টায় আদালতে হাজির হতে বলা হয়েছে।

মামলার নথি সূত্রে জানা গেছে, চট্রগ্রামের বাঁশখালীতে কয়লাভিত্তিক বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মাণ নিয়ে গত ১ ফেব্রুয়ারি ডাকা মতবিনিময় সভা শুরুর আগে দুটি পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। সংঘর্ষে মোহাম্মদ আলী (৩৫) নামের একজন নিহত হন। নিহত ব্যক্তির স্ত্রী রুমি আক্তার বাদী হয়ে স্বামী হত্যার অভিযোগে ২৯ জনকে আসামি করে বাঁশখালী থানায় লিখিত অভিযোগ দেন। অভিযোগটি মামলা হিসেবে নেয়নি পুলিশ।পরে পুলিশ বাদী হয়ে অজ্ঞাতনামা ১৫০ থেকে ২০০ জনকে আসামি করে হত্যা মামলা করেন। নিহত ব্যক্তির স্ত্রীর করা অভিযোগ এফআইআর হিসেবে গণ্য না করায় এ ব্যাপারে প্রয়োজনীয় নির্দেশনা চেয়ে ওই নারী আজ হাইকোর্টে রিট করেন। রিটের শুনানি নিয়ে আদালত ওসিকে তলবসহ রুল জারি করেন।

সিটিজি টাইমসে প্রকাশিত সংবাদ সম্পর্কে আপনার মন্তব্য

মতামত