টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

প্রতিবেশ সংকটাপন্ন এলাকায় পায়ে হেটে অ্যাডভেন্সার!

ইমাম খাইর
কক্সবাজার ব্যুরো

চট্টগ্রাম, ১৫ মার্চ ২০১৭ (সিটিজি টাইমস)::  কক্সবাজার থেকে টেকনাফের শাহপরীর দ্বীপ পর্যন্ত প্রায় ১০০ কিলোমিটার পর্যন্ত প্রতিবেশ সংকটাপন্ন (ইসিএ) এলাকায় পায়ে হেটে এ্যাডভেন্সার (!) করতে যাচ্ছে  বেজক্যাম্প বাংলাদেশ লিমিটেড নামের একটি প্রতিষ্ঠান। এখানে হাটবে প্রায় অর্ধশত যুবক। তারা ইতোমধ্যে আয়োজন অনেকটা সম্পন্ন করে ফেলেছে। আয়োজকরা গত সপ্তাহে জেলা প্রশাসনের সঙ্গে মতবিনিময় সভাও করেছে। ‘দি লংগেস্ট ওয়াক ২০১৭’-নামে এই কর্মসুচির সহ-আয়োজক হিসেবে রয়েছেন বাংলাদেশ পর্যটন কর্পোরেশন ও বাংলাদেশ ট্যুরিজম বোর্ড। সব ঠিকঠাক থাকলে আগামী ১৮ থেকে ২০ মার্চ ইসিএ এলাকায় কর্মসুচিটি পালিত হবে। বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটনমন্ত্রী রাশেদ খান মেনন এমপি অনুষ্ঠানের উদ্বোধক হিসেবে থাকবেন বলে আয়োজকরা জানিয়েছেন। তবে, আয়োজনে পরিবেশ অধিদপ্তর, বীচ ম্যানেজমেন্ট কমিটিসহ সংশ্লিষ্টদের অনুমতি নেয়া হয়নি বলে জানা গেছে।

এদিকে ইকোলজিক্যাল ক্রিটিক্যাল এরিয়া (ইসিএ) তথা প্রতিবেশ সংকটাপন্ন এলাকায় ১০০ মিটার পায়ে হেটে এ্যাডভেন্সার কর্মসুচির আয়োজনকে জীববৈচিত্রের জন্য চরম হুমকি মনে করছেন পরিবেশবিদরা।

তাদের মতে, কক্সবাজার থেকে টেকনাফের শাহপরীর দ্বীপ এলাকার যে এলাকায় তারা হাটবেন- সেখানে বিভিন্ন প্রণালীর জীবের আবাস। সাগর পাড়ে ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকে লাল কাঁকড়া। বর্তমান সামুদ্রিক কাছিমের ডিম থেকে বাচ্চা ফোটানোর মৌসুম। এমন সময়ে কর্মসুচিটি চরম হুমকি ডেকে আনবে বলে মনে করছেন পরিবেশ বিশেষজ্ঞরা।

এ বিষয়ে মেরিন লাইফ এলাইয়েন্স এর নির্বাহী পরিচালক জহিরুল ইসলাম জুয়েল জানান, বর্তমানে কচ্ছপ ডিম পাড়ার ও বাচ্ছা ফোটানোর মৌসুম। গত দুই মাসে প্রায় ২০০ কচ্ছপ ডিম ছেড়েছে। এখন সম্পূর্ণ ‘পিক সিজন।’ এমন সময়ে সামুদ্রিক এলাকায় হাটা জীব বৈচিত্রের জন্য চরম হুমকি। তিনি আয়োজকদের সাগরপাড়ের বদলে মেরিন ড্রাইভ রোড়ে এ প্রতিযোগিতা আয়োজনের পরামর্শ দেন।

সামুদ্রিক কাছিমকে ‘ন্যাচারাল ক্লিনার’ এবং লাল কাঁকড়াকে ‘বীচ ক্লিনার’ বলা হয়ে থাকে। ইসিএ তথা সমুদ্রতটে এসব প্রাণীর আবাস ও চারণ। এখানে অবাধ বিচরণ ও হাটা পরিবেশ আইন পরিপন্থি।

এ প্রসঙ্গে পরিবেশ অধিদপ্তর কক্সবাজার অফিসের সহকারী পরিচালক সরদার শরীফুল ইসলাম জানান, সমুদ্রপাড়ের যে কোন আয়োজনে পরিবেশ অধিদপ্তরের অনুমতি ও ছাড়পত্র নিতে হয়। আয়োজকরা বিনা অনুমতিতে একাজ করছে। এ বিষয়ে তিনি উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে অবহিত করবেন বলে জানান।

মতামত