টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

ট্রাম্পের আয়কর তথ্য ফাঁস

চট্টগ্রাম, ১৫ মার্চ ২০১৭ (সিটিজি টাইমস):: মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের ২০০৫ সালের আয়কর বিবরণীর তথ্য ফাঁস হয়েছে। মার্কিন টেলিভিশন নেটওয়ার্ক এমএসএনবিসি মঙ্গলবার রাতে এ তথ্য প্রকাশ করে। খবর বিবিসির।

দুই পাতার আয়কর বিবরণীতে উল্লেখ আছে, ২০০৫ সালে ১৫ কোটি ডলার আয়ের বিপরীতে কর পরিশোধ করেছেন তিন কোটি ৮০ লাখ ডলার।

নথিতে দেখা যাচ্ছে, ট্রাম্প যে পরিমাণ আয়কর দিয়েছেন সেটি তার মোট উপার্জনের ২৪ শতাংশ। সাধারণত আমেরিকানরা গড়ে যে পরিমাণ আয়কর দেন এটি তার চেয়ে বেশি। তবে আমেরিকার উচ্চ আয়ের লোকজন গড়ে ২৭ দশমিক ৪ শতাংশ আয়কর দেন। কিন্তু ট্রাম্পের দেয়া আয়কর সেটির তুলনায় কম।

এ ঘটনায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছে হোয়াইট হাউস। তাদের দাবি, আয়কর বিবরণীর তথ্য প্রকাশ করা অবৈধ।

যুক্তরাষ্ট্রের দীর্ঘদিনের রীতি ভেঙে ট্রাম্প গত বছরের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের প্রচারণার সময় তার আয়কর বিবরণীর সম্পর্কে তথ্য প্রকাশ করতে অস্বীকার করেন। ১৯৭৬ সাল থেকে প্রেসিডেন্ট প্রার্থীরা এ রীতি পালন করছেন।

প্রকাশিত দুই পৃষ্ঠার আয়কর বিবরণীতে ট্রাম্পের আয়ের অংশবিশেষ প্রকাশ করা হয়েছে। এতে তার আয়ের পূর্ণাঙ্গ তথ্য নেই।

সংবাদদাতারা বলছেন, আয়কর নথির ফাঁস হবার বিষয়টি বেশ তাৎপর্যপূর্ণ। কারণ ট্রাম্পের আয় সম্পর্কে এতদিন খুব কমই জানা গেছে। আয়কর নথি ফাঁস হবার ফলে সম্পদের বিবরণ প্রকাশের জন্য ট্রাম্পের উপর চাপ বাড়বে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

যদিও যুক্তরাষ্ট্রে রাষ্ট্রীয় আয়কর বিবরণী প্রকাশ ফৌজদারি অপরাধ। এমএসএনবিসি’র উপস্থাপক র‍্যাচেল ম্যাডো যুক্তি দেখান, জনস্বার্থে তথ্য প্রকাশ করা প্রথম সংশোধনীর অধিকারের চর্চা করেছেন তারা।

তিনি বলেছেন, তিনি একটি অজ্ঞাত সূত্র থেকে খামে ভরা ট্রাম্পের দুই পাতার আয়কর বিবরণী পেয়েছেন।

হোয়াইট হাউজ এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, টেলিভিশন চ্যানেলটি নিজেদের খবরের প্রতি মানুষের দৃষ্টি আকর্ষণ করতে বেপরোয়া হয়ে গেছে। নিজেদের খবরের কাটতি বাড়াতে টেলিভিশন চ্যানেলটি আইনের তোয়াক্কা করছেন না সেজন্য তারা এক দশক পুরনো আয়কর বিবরণীর দুই পাতা প্রকাশ করেছে বলে উল্লেখ করে হোয়াইট হাউজ।

মতামত