টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

চট্টগ্রাম মহিলা লীগের নেতৃত্বে হাসিনা-আনজি

চট্টগ্রাম, ১৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৭ (সিটিজি টাইমস):: চট্টগ্রাম মহানগর মহিলা আওয়ামী লীগের সম্মেলন মঙ্গলবার অনুষ্ঠিত হয় দ্য কিং অব চিটাগংয়ের বলরুমে। এতে সভাপতি নির্বাচিত হয়েছেন হাসিনা মহিউদ্দিন। সাধারণ সম্পাদক হয়েছেন আনজুমান আরা চৌধুরী আনজি।

সম্মেলনের কাউন্সিল অধিবেশনে সভাপতি-সাধারণ সম্পাদকসহ কমিটির ছয়টি পদে নাম ঘোষণা করা হয়। এদের মধ্যে সহসভাপতি হয়েছেন সাবেক কাউন্সিলর মমতাজ খান, রওশন আরা ইউসুফ, নূরনাহার মোতালেব, রওশন আরা আমিন, হামিদা রশিদ এবং তপতী সেনগুপ্তা।

যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হয়েছেন চসিকের কাউন্সিলর নীলু নাগ, সাবেক কাউন্সিলর রেখা আলম চৌধুরী ও মালেক বেগম। এছাড়া হোসনে আরা বেগম সাংগঠনিক সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছেন।

সম্মেলনের প্রধান অতিথি আওয়ামী লীগের মহিলা বিষয়ক সম্পাদক ফজিলাতুন্নেছা ইন্দিরা এই ছয় পদে নাম প্রস্তাব করেন। এতে সর্বসম্মতিক্রমে হাত তুলে সমর্থন জানান কাউন্সিলররা।

সম্মেলনের শেষে পূর্ণাঙ্গ কমিটির তালিকা ফজিলাতুন্নেছা ইন্দিরার কাছে জমা দিয়েছেন বলে জানান সভাপতি হাসিনা মহিউদ্দিন। প্রধান অতিথি ফজিলাতুন্নেছা ইন্দিরা এ কমিটি দ্রুত অনুমোদন দিয়ে পাঠাবেন বলে আশা প্রকাশ করেন।

নেতাকর্মীরা জানান, সর্বশেষ ১৯৯৮ সালে অনুষ্ঠিত সম্মেলনে চট্টগ্রাম মহানগর মহিলা আওয়ামী লীগের কমিটিতেও সভাপতি ছিলেন হাসিনা মহিউদ্দিন। তপতী সেনগুপ্তা ছিলেন সাধারণ সম্পাদক। পরে তিনি হাসিনা মহিউদ্দিনের সঙ্গে বিরোধে জড়িয়ে পড়েন। হাসিনা মহিউদ্দিন সাবেক মেয়র ও নগর আওয়ামী লীগের সভাপতি এবিএম মহিউদ্দিন চৌধুরীর সহধর্মিণী এবং বর্তমান কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক ব্যারিস্টার নওফেলের মাতা।

তপতী সেনগুপ্তা অভিযোগ করেন, মঙ্গলবারের সম্মেলনে তার অনুসারীদের কেউই ঢুকতে পারেননি। ঢুকতে গেলে প্রবেশপথে পুলিশ বাধা দেয়। একপর্যায়ে ধাক্কাধাক্কি ও হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। ফলে সম্মেলনের পুরো সময় বাইরেই কাটাতে হয়েছে নেতাকর্মীদের।

এদিকে সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় ফজিলাতুন্নেছা ইন্দিরা বলেন, নারীদের একসময় বলা হতো অসহায়-অবলা। নারীরা এখন স্বাবলম্বী হচ্ছে। নিজ নিজ ক্ষেত্রে প্রতিষ্ঠিত হচ্ছে। নারীরা আবার আত্মঘাতী জঙ্গিও হচ্ছে। কেউ যাতে নারীদের বিপথে নিয়ে যেতে না পারে সেজন্য মহিলা লীগের কর্মীদের কাজ করতে হবে।

হাসিনা মহিউদ্দিনের সভাপতিত্বে সম্মেলনে বক্তব্য দেন কেন্দ্রীয় মহিলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি বেগম সাফিয়া খাতুন ও অঞ্জলী সরকার, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক শিরিন রোখসানা, সংসদ সদস্য বেগম সাবিহা মুসা, দক্ষিণ জেলা মহিলা লীগের সভানেত্রী ও সাবেক সাংসদ হাসিনা মান্নান।

মতামত