টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

নির্বাচনের প্রস্তুতি নিতে বললেন খালেদা

চট্টগ্রাম, ১২ ফেব্রুয়ারি ২০১৭ (সিটিজি টাইমস)::  জাতীয় নির্বাচনের প্রস্তুতি নিতে দলের ভাইস চেয়ারম্যানদের নির্বাচনী এলাকায় যাওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালোদা জিয়া। শনিবার রাতে গুলশানের তার রাজনৈতিক কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত বৈঠকে খালেদা জিয়া এ নির্দেশ দেন। বৈঠক সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

সূত্রে জানা গেছে, প্রায় দেড় ঘণ্টার বৈঠকে প্রথমে সবার প্রতিক্রিয়া শোনেন খালেদা জিয়া। এরপর তিনি সময় নিয়ে আলোচনা করেন। এ সময় প্রত্যেক ভাইস চেয়ারম্যানকে একাদশ জাতীয় নির্বাচনের প্রস্তুতি নিতে নিজ নিজ নির্বাচনী এলাকায় যেতে নির্দেশ দেন এবং সভা-সমাবেশ করার পরামর্শ দেন বিএনপি চেয়ারপারসন।

বৈঠকে আলোচনা প্রসঙ্গে বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুল আওয়াল মিন্টু বলেন, ‘বর্তমান নির্বাচন কমিশন সম্পর্কে ম্যাডাম (খালেদা জিয়া) সবার মতামত নিয়েছেন। বৈঠকে বলা হয়েছে, উনি (নতুন সিইসি) নিরপেক্ষ নন, দলীয় টাইপের লোক।’

তিনি বলেন, দেশের বর্তমান অবস্থা, আমাদের দলীয় নেতা-কর্মীদের উপর অত্যাচার, জেল, জুলুম এবং নির্বাচন কেমন হবে এসব বিষয় নিয়েই বৈঠকে আলোচনা হয়েছে।

বিএনপি আগামী নির্বাচনে অংশ নেবে কিনা -এমন প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, ‘যখন নির্বাচন হয় তখন বিএনপি তো নির্বাচন করেই ক্ষমতায় আসে, সুতরাং নির্বাচন নিয়ে কোনো সমস্যা নাই। কিন্তু নির্বাচন কমিশনার ও নির্বাচনকালীন যে সরকার থাকবেন তিনি নিরপেক্ষ হতে হবে।’

তিনি আরও বলেন, বিএনপি নির্বাচনে অংশ নেবে কি নেবে না সেটা কোনো ইস্যু নয়। মূল কথা হচ্ছে নির্বাচনের সময় একটা নিরপেক্ষ সরকার ও নির্বাচন কমিশন লাগবে। নির্বাচনের দায়িত্বে যে সকল রিটার্নিং কর্মকর্তা, পিজাইডিং অফিসার থাকেন তারা সরকারি কর্মকর্তা, তখন (নির্বাচনের সময়) যদি দলীয় হয় তাহলে সুষ্ঠু নির্বাচন সম্ভব নয়।

বৈঠকে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার সভাপতিত্বে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরসহ ভাইস চেয়ারম্যান অধ্যাপক এম এ মান্নান, আবদুল মান্নান, ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকু, ব্যারিস্টার শাজাহান ওমর, চৌধুরী কামাল ইবনে ইউসুফ, আলতাফ হোসেন চৌধুরী, সেলিমা রহমান, মোহাম্মদ শাজাহান, খন্দকার মাহবুবুর রহমান, রুহুল আলম চৌধুরী, মাহমুদুল হাসান, ইনাম আহমেদ চৌধুরী, আবদুল আউয়াল মিন্টু, ডা. এ জেড এম জাহিদ হোসেন, শামসুজ্জামান দুদু, আহমেদ আজম খান, জয়নুল আবেদীন, গিয়াস উদ্দিন কাদের চৌধুরী ও শওকত মাহমুদ উপস্থিত ছিলেন।

মতামত