টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

শেষ হলো বাবুনগর মাদ্রাসার দু‘দিন ব্যাপি সম্মেলন

মীর মাহফুজ আনাম
ফটিকছড়ি থেকে

চট্টগ্রাম, ১০ ফেব্রুয়ারি ২০১৭ (সিটিজি টাইমস)::  হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের মহাসচিব আল্লামা হাফেজ জুনায়েদ বাবুনগরী বলেছেন, ‘বোরকা কিংবা দাঁড়ি-টুপি থাকলেই জঙ্গি হয়ে যায় না। দাঁড়ি-টুপি নিয়ে যারা কটাক্য করে তারা ইসলামের শত্রু। ইসলাম ধর্মে কোন প্রকার সন্ত্রাসবাদের স্থান নেই। ইসলাম কখনো জঙ্গিবাদকে ভালোবাসে না।

তিনি শুক্রবার ফটিকছড়ি উপজেলা ঐতিহ্যবাহী ইসলামী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান আল জামিয়াতুল ইসলামীয়া আজিজুল উলুম বাবুনগর মাদ্রাসার ৯৩ তম বার্ষিক মাহফিল উপলক্ষ্যে দু‘দিন ব্যাপী ইসলামী সম্মেলনে সমাপনী দিনে প্রধান বক্তার বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

সরকারকে ইঙ্গিত করে তিনি বলেন, নব্বইভাগ মুসলিমের দেশের সুপ্রিমকোর্টের সামনে কি করে দেব-দেবির মূর্তি স্থাপনা থাকে? আমরা সাস্প্রদায়িক স¤প্রীতি বিশ্বাসী; তবে ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত করে এমন কিছু কখনো সহ্য করতে পারব না। অবিলম্বে এটি অপসারণ করার দাবী জানাচ্ছি।

হেফাজতের দাবী মেনে পাঠ্যপুস্তকে ইসলামী ভাবধারার লেখাগুলো পূন:রায় ফিরিয়ে আনায় সরকারের প্রতি ধন্যবাদ জানিয়ে শাপলা চত্বরের ঘটনায় দেশজুড়ে আলোচিত হওয়া ইসলামী এ নেতা আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরী আরো বলেন- সরকার এখন হেফাজতের দাবী দাওয়া মেনে দেশ শাষণ করছে। পাঠ্যপুস্তকে ইসলামী ভাবধারার লেখা থাকলে শিক্ষার্থীরা ধর্মান্ধ হবে না, জঙ্গি হবে না।

সভাপতির বক্তব্যে হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের নায়েবে আমির ও বাবুনগর মাদ্রাসার পরিচালক আল্লামা শাহ মুহিব্বুল্লাহ বাবুনগরী বলেন, ‘একমাত্র মহানবী মুহাম্মদ (স.) এর জীবনাদর্শ বাস্তবায়নের মাধ্যমে ব্যক্তি জীবন, সামাজিক জীবন ও রাষ্ট্রিয় জীবনে সুখ শান্তি পাওয়া সম্ভব।’

হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের নায়েবে আমির ও বাবুনগর মাদ্রাসার পরিচালক আল্লামা শাহ মুহিব্বুল্লাহ বাবনগরীর সভাপতিত্বে এ সম্মেলনে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন-হেফাজতে ইসলামের আমির আল্লামা আহম্মদ শফি, ইসলামী ঐক্যজোটের মহাসচিব মুফতি ফয়েজ উল­াহ, যুগ্ম মহাসচিব আল্লামা জুনায়েদ আল হাবিব।

মুফতি হাবিব উল্লাহ, মুফতি ইকবাল ও মুফতি আবু মাকনুন মোহাম্মদের যৌথ সঞ্চালনায় সম্মেলনে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন- মাও.আব্দুল বাসেত খাঁন সিরাজী, মাও. মুফতি আব্দুল হামিদ, মুফতি মাহমুদ হাসান, মাও. ইসমাইল খান, মাও. মুফতি নজরুল ইসলাম কাশেমী, মাও. সাজেদুল রহমান, মাও. মুফতি শাখাওয়াত, মাও. শাহাদাৎ হোসাইন, শেখ আহম্মদ, আব্দুর রহিম ইসলামাবাদী, মাও. নুর আহমদ , মাও. আনাস সুলতানী, মাও. জুনায়েদ বিন জালাল, মাও. ইমদাদুউল্লাহ নানুপুরী, মাও. সেলিম উল্লাহ, মাও. সৈয়দুল আলম আরমানী প্রমুখ।

সিটিজি টাইমসে প্রকাশিত সংবাদ সম্পর্কে আপনার মন্তব্য

মতামত