টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

৮৫০০ পোস্ট অফিস ই-সেন্টারে রূপান্তর হবে: তারানা

চট্টগ্রাম, ০৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৭ (সিটিজি টাইমস): ডাক ও টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম বলেছেন, আগামী জুনের মধ্যে সাড়ে ৮ হাজার পোস্ট অফিসকে পোস্ট ই-সেন্টারে রূপান্তর করা হবে।

তিনি বলেন, ‘গ্রামীণ পোস্ট অফিসগুলোকে সচল করার লক্ষ্যে পোস্ট ই-সেন্টার ফর রুরাল কমিউনিটি শীর্ষক প্রকল্প চলমান রয়েছে। এতে ৮ হাজারটি শাখা ডাকঘর এবং ৫০০টি উপজেলা ডাকঘরকে ই-সেন্টার হিসেবে রূপান্তর করা হবে। এ পর্যন্ত ৮ হাজার ৩০০টি পোস্ট ই-সেন্টার চালু করা হয়েছে। এ প্রকল্পের আওতায় গ্রাম পর্যায়ে ইন্টারনেট সেবা সম্প্রসারণ করা সম্ভব হবে।’

আজ সংসদে জাতীয় পার্টির বেগম সালমা ইসলামের এক প্রশ্নের জবাবে প্রতিমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

তারানা হালিম বলেন, ইতোমধ্যে ৭১টি প্রধান ডাকঘর এবং ১৩টি মেইল অ্যান্ড সার্টিং অফিসকে অটোমেশনের আওতায় আনা হয়েছে। চলতি বছরের জুনের মধ্যে আরো ২০০টি উপজেলা পোস্ট অফিস এবং টাউন সাব পোস্ট অফিসকে অটোমেশনের আওতায় আনা হবে।

তিনি বলেন, তথ্য প্রযুক্তি নির্ভর গ্রামীণ ডাকঘর নির্মাণ প্রকল্পের আওতায় এ পর্যন্ত ৩৫১টি তথ্য প্রযুক্তি নির্ভর গ্রামীণ ডাকঘর নির্মাণের কার্যাদেশ দেয়া হয়েছে। কার্যাদেশপ্রাপ্ত ডাকঘরগুলোর মধ্যে ২২৫টি ডাকঘরের নির্মাণ কাজ সম্পন্ন করা হয়েছে।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, ১৮৮টি গ্রামীণ ডাকঘর নির্মাণের জন্য ইজিপি’র আওতায় টেন্ডার আহ্বান করা হয়েছে। ১ হাজার ৮৬টি ডাকঘরের পুনঃসংস্কার কার্যক্রম চলমান রয়েছে। ১ হাজার ৭৩টি ডাকঘরের কার্যাদেশ দেয়া হয়েছে, এর মধ্যে ৭০০টির কাজ শেষ হয়েছে এবং ৪১৪টি ডাকঘর পুনঃসংস্কার কার্যক্রমের আওতায় আনার প্রক্রিয়া চলমান রয়েছে।

তিনি বলেন, ২০১১ সালের ১ জুলাই থেকে পোস্টাল ক্যাশ কার্ডের বাণিজ্যিক কার্যক্রম শুরু হয়। এ পর্যন্ত প্রায় ৯০ হাজার গ্রাহক এ সেবা গ্রহণ করছেন। কিউ ক্যাশ নেটওয়ার্কের আওতাধীন ২৬টি ব্যাংকের ১৪০০টি এটিএম বুথে পোস্টাল ক্যাশ কার্ড সেবা চালু রয়েছে। দেশের সকল উপজেলা ও জেলা পোস্ট অফিসসহ বিভাগীয় গুরুত্বপূর্ণ সাব পোস্ট অফিসসমূহের ১ হাজার ৩৪৬টি অফিসে পিওএস মেশিনের মাধ্যমে পোস্টাল ক্যাশ কার্ড সেবা চালু রয়েছে।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, ইলেক্ট্রনিক ও মোবাইল মানি অর্ডার সার্ভিস প্রবর্তনে ডাক বিভাগ যৌথভাবে ‘বাংলালিংক মোবাইল কোম্পানি লিমিটেড’ এর সাথে এই সার্ভিসটি প্রবর্তন করেছে। ২০১০ সালের মে থেকে সার্ভিসটির কার্যক্রম বাণিজ্যিকভাবে শুরু হয়। বর্তমানে সারাদেশে ২ হাজার ৭৫০টি বিভিন্ন শ্রেণির ডাকঘরে এ সার্ভিসটি চালু রয়েছে।

তিনি বলেন, বাংলাদেশ ডাক বিভাগ পোস্ট ই-কমার্স সার্ভিস প্রবর্তন করতে যাচ্ছে। গত বছরের ২৯ ডিসেম্বর ঢাকা জিপিওতে পোস্ট ই-কমার্স সার্ভিস উদ্বোধন করা হয়।

সিটিজি টাইমসে প্রকাশিত সংবাদ সম্পর্কে আপনার মন্তব্য

মতামত