টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

বান্দরবানে জনসংহতি সমিতির নেতা আটক

চট্টগ্রাম, ৩১ জানুয়ারি ২০১৭ (সিটিজি টাইমস):  জনসংহতি সমিতির বান্দরবানের রোয়াংছড়ি উপজেলা শাখার ছাত্র ও যুব বিষয়ক সম্পাদক অনিল তঞ্চঙ্গ্যাকে (৩৬) আটক করেছে সেনাবাহিনী। সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড ও চাঁদাবাজির সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে মঙ্গলবার বিকেলে তাকে উপজেলা সদরের ওয়াগ্যই পাড়ার একটি চা এর দোকান থেকে আটক করা হয়।

আটক অনিল তঞ্চঙ্গ্যাকে জিজ্ঞাসাবাদ করেছে সেনা ও গোয়েন্দা শাখার সদস্যরা।

বান্দরবান সেনাবাহিনীর সদর জোনের অধিনায়ক লে. কর্নেল মশিউর রহমান জুয়েল জানান, অনিল তঞ্চঙ্গ্যার বিরুদ্ধে দীর্ঘদিন থেকে এলাকায় সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড পরিচালনা, চাঁদার দাবিতে ভয়ভীতি প্রদর্শন, চাঁদাবাজি, উন্নয়ন কাজ বন্ধ করে দেওয়াসহ নানা অভিযোগ ছিল। সন্ত্রাস চাঁদাবাজি বন্ধে সেনাবাহিনীর অব্যাহত অভিযানের অংশ হিসেবেই অনিল তঞ্চঙ্গ্যাকে আটক করা হয়েছে বলে তিনি জানান।

এদিকে অনিল তঞ্চঙ্গ্যার আটকের প্রতিবাদ জানিয়েছে জনসংহতি সমিতি। সংগঠনের জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক ক্যবামং মারমা এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানান কোনো কারণ ছাড়াই অনিল তঞ্চঙ্গ্যাকে সেনাবাহিনী আটক করেছে। সাম্প্রতিক সময়ে মিথ্যা অভিযোগে সংগঠনের ৩০ জন নেতা-কর্মীকে আটক রেখে নির্যাতন করা হয়েছে বলে অভিযোগ করেন নেতারা।

গত বছরের ১৩ জুন সদর উপজেলার আওয়ামী লীগ নেতা মংপু মারমাকে অপহরণের ঘটনাকে কেন্দ্র করে জনসংহতি সমিতি কেন্দ্রীয় নেতা কে এস মং মারমাসহ ৩০ নেতা-কর্মীর বিরুদ্ধে ৪টি মামলা দায়ের করে আওয়ামী লীগ। এসব মামলায় নেতা কর্মীদের জামিন হলেও অনেক নেতা কর্মীই গ্রেফতার আতঙ্কে গা ঢাকা দিয়েছেন।

জনসংহতি সমিতির কেন্দ্রীয় নেতারা বান্দরবানের এ ঘটনায় ক্ষোভ প্রকাশ করে রাঙ্গামাটি ও খাগড়াছড়িতে প্রতিবাদ সভা করেছে।

সিটিজি টাইমসে প্রকাশিত সংবাদ সম্পর্কে আপনার মন্তব্য

মতামত