টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

চট্টগ্রামে আজ আইইবি কনভেনশনে উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী

চট্টগ্রাম, ২৭ জানুয়ারি ২০১৭ (সিটিজি টাইমস): আইইবির ৫৭তম কনভেশন উদ্বোধন করতে চট্টগ্রাম আসছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। শনিবার বেলা সাড়ে ১১টায় ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন চট্টগ্রাম কেন্দ্র মিলনায়তনে চার দিনের এ কনভেনশন উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী।

সারাদেশের প্রায় পাঁচ হাজার প্রকৌশলী এ কনভেনশনে অংশ নেবেন বলে আশা করা হচ্ছে।

ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন বাংলাদেশ (আইইবি) চট্টগ্রাম কেন্দ্রের সেমিনার কক্ষে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, চার দিনের কনভেনশন শনিবার আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন হলেও এর কার্যক্রম শুরু হবে শুক্রবার বিকাল থেকে।এবারের কনভেশনের বিষয়বস্তু রাখা হয়েছে ‘ডিজিটাল টেকনোলজি ফর ডেভলপমেন্ট’।

আগামী সোমবার বিকালে কনভেনশনের সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি থাকবেন জাতীয় সংসদের বিরোধীদলীয় নেতা রওশন এরশাদ।কনভেনশনে বিভিন্ন বিষয় নিয়ে জাতীয় সেমিনার, স্মারক বক্তৃতা, ফিয়েস্কা সেমিনার, শহীদ প্রকৌশলী পরিবারদের সংবর্ধনা, বিদেশী অতিথিদের সংবর্ধনা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান রয়েছে।

শুক্রবার সকালে অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনে চারদিনের কনভেনশনের বিস্তারিত তুলে ধরেন আইইবি’র সাধারণ সম্পাদক প্রকৌশলী মো. আবদুস সবুর বলেন, চার দিনের কর্মসূচির বিভিন্ন পর্বের অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রীর উপদেষ্টাসহ বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের গুরুত্বপূর্ণ মন্ত্রীরা উপস্থিত থাকবেন।উন্নত জগত গঠন করুন’ আদর্শকে সামনে রেখে ১৯৪৮ সালের ৭ মে ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন যাত্রা শুরু করে। প্রকৌশল শিক্ষার মান উন্নয়নসহ বিভিন্ন কাজে সরকারকে পরামর্শ ও সিদ্ধান্ত গ্রহণে সহযোগিতাসহ বিভিন্ন কাজে প্রতিষ্ঠানটি ৬৯ বছর ধরে কাজ করছে। আইইবি সারাদেশে ১৮টি কেন্দ্র, ৩১টি উপকেন্দ্র, ১১টি ওভারসিজ চ্যাপ্টার, সাতটি প্রকৌশল বিভাগীয় কমিটির মাধ্যমে কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছে।

কনভেনশনের উদ্বোধনী দিন শনিবার দুপুরে প্রকৌশলী এম এ রশিদ স্মৃতি বক্তৃতা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি থাকবেন এলজিআরডিমন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার খন্দকার মোশাররফ হোসেন।

বিকালে ফিয়েস্কার সেমিনারে অতিথি থাকবেন পানি সম্পদমন্ত্রী আনিসুল ইসলাম মাহমুদ। এতে বাংলাদেশ, পাকিস্তান, ভারত, নেপাল ও শ্রীলংকার ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশনের পক্ষ থেকে প্রবন্ধ উপস্থাপন করা হবে বলে জানানো হয়।

রোববার জাতীয় সেমিনারে প্রধান অতিথি থাকবেন তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু। ওই দিন বিকালে অনুষ্ঠিত হবে আইইবি বার্ষিক সাধারণ সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।

সোমবার শেষদিনে জাতীয় সেমিনারের সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রীর রাজনৈতিক উপদেষ্টা এইচ টি ইমাম প্রধান অতিথি থাকবেন।

এছাড়া শুক্রবার সন্ধ্যায় শহীদ প্রকৌশলী স্মারক বক্তৃতা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি থাকবেন চট্টগ্রামের মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দিন। সন্ধ্যায় অপর এক স্মারক বক্তব্য অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি থাকবেন প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী নুরুল ইসলাম বিএসসি।

আবদুস সবুর সরকারি বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের অযাচিত হস্তক্ষেপ বন্ধের আহবান জানিয়ে বলেন, “তা না হলে এসব সংস্থায় কাজ করা প্রকৌশলীদের কর্মোদ্যম ব্যাহত হবে এবং ক্ষোভ বাড়বে।”

আমলাতন্ত্রের প্রত্যক্ষ বা পরোক্ষ অংশগ্রহণ ও নিয়ন্ত্রণের সুযোগ থাকা উচিত নয় বলে মত প্রকাশ করেন তিনি।

সংবাদ সম্মেলন থেকে জবাবদিহিতামূলক সুশাসন প্রতিষ্ঠায় বেতন স্কেলে সিলেকশন গ্রেড ও টাইমস্কেল পুনর্বহাল করা, আন্তঃক্যাডার বৈষম্য নিরসন করে সকল ক্যাডার ও সার্ভিসে পদোন্নতির সমান সুযোগ সৃষ্টির লক্ষ্যে সুপার নিউমারি পদ সৃষ্টির দাবি জানানো হয়।

সংবাদ সম্মেলনে আইইবি’র সভাপতি প্রকৌশলী কবির আহমেদ ভূইয়া, সাবেক সভাপতি প্রকৌশলী নুরুল হুদা, বর্তমান সহ-সভাপতি নুরুজ্জামান, চট্টগ্রাম কেন্দ্রের সভাপতি প্রকৌশলী সাদেক মোহাম্মদ চৌধুরী, সম্পাদক প্রবীর কুমার সেন উপস্থিত ছিলেন।

সিটিজি টাইমসে প্রকাশিত সংবাদ সম্পর্কে আপনার মন্তব্য

মতামত