টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

আখেরী মোনাজাতের মধ্য দিয়ে ভাঙ্গলো মাইজভান্ডারী ভক্তের মিলনমেলা

মীর মাহফুজ আনাম

চট্টগ্রাম, ২৪ জানুয়ারি ২০১৭ (সিটিজি টাইমস):  হযরত গাউসুল আজম মাওলানা শাহসুফী সৈয়দ আহমদ উল্লাহ (ক.) মাইজভান্ডারীর ১১১ তম ওরশ (১০ ই মাঘ) শেষ হলো । স্ব স্ব মঞ্জিলের সাজ্জাদানশীনদের আখেরী মোনাজাতের মধ্য দিয়ে ভাঙ্গে লাখো ভক্তের এ মিলনমেলা। গত তিনদিন ধরে চলে ওরশের নানা আয়োজন। আজ ছিল প্রধান দিবস। এ দিনে গাউসুল আজম মাওলানা শাহসুফী সৈয়দ আহমদ উল্লাহ  (ক.) ইহলোক ত্যাগ করেন। তাঁর আশেকানে ভক্তরা দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে ছুটে আসেন এ দিনে। মহাসমারোহে পালন করা হয় দিবসটি। ফটিকছড়ির মাইজভান্ডার দরবার শরীফে এ মহান ওরশ অনুষ্টিত হয়। ওরশে জাতি ধর্ম বর্ণ নির্বিশেষে ভক্তদের ঢল নামে। বিভিন্ন বাদ্যবাজনার শব্দে উৎসবমুখর হয়ে উঠেছিল মাইজভান্ডার এলাকা।

ওরশ পালনে নানা কর্মসূচির মধ্যে ছিল, মাইজভান্ডারীর রওজা শরীফে গোসল, গিলাফ ছড়ানো, মিলাদ মাহফিল, কোরআান খতম, জিকির আজকার, হযরতের জীবন ও দর্শনের উপর আলোচনা. মাইজভান্ডারের বিশেষ আকর্ষণ কওয়ালী, মাইজভান্ডারী মরমী সঙ্গীত, তবারুক বিতরণ।

হযরতের জীবন ও দর্শনের উপর আলোচনা করেন, রহমানীয়া মঞ্জিলের সাজ্জাদানশীন সৈয়দ মুজিবুল বশর মাইজভান্ডারী বলেছেন, উপমহাদেশের বার আউলিয়ার পূণ্যভুমি চট্টগ্রাম। বিশ্ব শান্তি, মানবতা ও সভ্যতার বিকাশের গাউছুল আজম মাইজভান্ডারী শাহসুফী সৈয়দ আহমদ উল­াহ (ক.) এর শিক্ষা এবং জীবনাদর্শ আমাদের প্রত্যাহিক জীবনে অনুসরণ-অনুকরণ আবশ্যক।’

রাত ১১ টায় আখেরী মোনাজাত পূর্ব বক্তব্যে আঞ্জুমানে মোত্তাবেয়ীনে গাউছে মাইজভাণ্ডারীর কেন্দ্রীয় নির্বাহী পরিষদের সভাপতি আলহাজ্ব শাহসুফি ডাঃ সৈয়দ দিদারুল হক মাইজভাণ্ডারী (মঃ) বলেন, “ব্যক্তি, পরিবার, সমাজ, তদুপরি সমগ্র বিশ্ব আজ অস্থির, অশান্ত। তৃষ্ণাতুর মানবজাতি আজ শান্তি ও মুক্তির জন্য উন্মুখ, দিশেহারা। কঠিন ঈমানি পরীক্ষার এই যুগে মহান আল­াহর মনোনীত নায়েবে রাসুল অর্থাৎ আউলিয়া কেরামের দর্শনকে শক্তভাবে ধারণ, লালন ও চর্চা করতে হবে”।

রাত ১২ টায় আখেরী মোনাজাত পূর্ব আলোচনায় আহমদীয়া মঞ্জিলের সাজ্জাদানশীন হযরত মাওলানা শাহ ছুফী সৈয়দ এমদাদুল হক মাইজভান্ডারী বলেছেন, ইসলাম শান্তির ধর্ম, মানবতার ধর্ম। ধর্মের বাণী, প্রেমের বাণী ও সাম্যের নীতিতে প্রসাারিত মাইজভান্ডারী দর্শন হলো এক উদার ও অস¤প্রদায়িক ঐক্যের মূর্ত প্রতীক।

এসময় সাবেক বন ও পরিবেশ প্রতিমন্ত্রী জাফরুল ইসলাম চৌধুরী, নায়েব সাজ্জাদানশীন সৈয়দ ইরফানুল হক মাইজভান্ডারী, সৈয়দুল হক খান, ইন্টারপোর্ট শিপিং লিমিটেড এর পরিচালক জনাব ক্যাপ্টেন (অব:) সৈয়দ সোহেল হাসনাত, চট্টগ্রাম চেম্বার অব কমার্স লিমিটেড এর পরিচালক জহিরুল ইসলাম চৌধুরী, প্রকৌশলী সৈয়দ ফজলুল কাদের, চট্টগ্রাম সিটি কপোরেশন কর্মকর্তা মো: হুমায়ুন, অধ্যাপক মেজবাহ উদ্দিন শৈবাল, মাষ্টার মো: আলমগীর প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন ।

সিটিজি টাইমসে প্রকাশিত সংবাদ সম্পর্কে আপনার মন্তব্য

মতামত