টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

মিরসরাইয়ে ছাত্রলীগের দুইপক্ষে হাতাহাতির পর কলেজ ছাত্রের মৃত্যু

এম মাঈন উদ্দিন
মিরসরাই প্রতিনিধি 

চট্টগ্রাম, ২৩ জানুয়ারি ২০১৭ (সিটিজি টাইমস): মিরসরাইয়ে নিজামপুর বিশ্ববিদ্যালয় কলেজে ছাত্রলীগের দুই গ্রুপে হতাহাতির সময় বুকে ব্যাথা উঠে নুরুল আমিন মুহুরী (২৬) নামে এক ছাত্রলীগ নেতার মৃত্যু হয়েছে। সোমবার (২৩ জানুয়ারি) দুপুরে কলেজ ক্যাম্পাসে এ ঘটনা ঘটে। নুরুল আমিন উপজেলার ওয়াহেদপুর ইউনিয়নের গাছবাড়িয়া গ্রামের মুক্তিযোদ্ধা সাব মিয়ার ছেলে এবং ইউনিয়ন ছাত্রলীগের তথ্য ও পযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক ছিল।

জানা গেছে, গত রোববার (২২জানুয়ারি) কলেজ ক্যাম্পাসে ছাত্রলীগের ফজলুুল গ্রুপের সাথে রেজভি গ্রুপের সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। ওই ঘটনার রেশ ধরে রেজভি গ্রুপের কয়েকজন কর্মী সোমবার কলেজ ক্যাম্পাসে অবস্থান নেয়। এসময় ফজলু গ্রুপের কর্মীরা রেজভি গ্রুপের কর্মী নুরুল আমিন মুহুরীকে মারধর করে। এক পর্যায়ে উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মো. রাসেল ও কলেজ ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক তাজুল ইসলাম দুই গ্রুপের মধ্যে সমঝোতা করে দেয়। সমঝোতা করে দেয়ার কিছুক্ষন পর নুরুল আমিন মুহুরীর বুকে ব্যাথা উঠে অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে প্রথমে স্থানীয় মাতৃকা হাসপাতালে আনা হয়। পরে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হলে হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করে। মেডিকেলে নুরুল আমিন মুহুরী সাথে থাকা ছাত্রলীগ নেতা রেজভি নুরুল আমিনের মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি রাসেল ইকবাল চৌধুরী জানান, ‘কলেজ ক্যাম্পাসে দ্ইু গ্রুপের অবস্থানের খবর পেয়ে দ্রুত ক্যাম্পাসে গিয়ে তাদের মধ্যে সমঝোতা করে দিয়েছে। আমি পৌঁছার আগে কি হয়েছে সেটা জানিনা। এর কিছুক্ষণ পর নুরুল আমিনের বুকে ব্যাথা উঠলে তাকে হাসপাতালে পাঠানো হয়। সেখানে ডাক্তার তাকে মৃত ঘোষনা করে’।

মিরসরাই থানার অফিসার ইনচার্জ সাইরুল ইসলাম জানান, একজন ছাত্রলীগ নেতার মৃত্যুর বিষয়ের তিনি শুনেছেন। বিষয়টি সম্পর্কে খোঁজখবর নিচ্ছেন।

মতামত